Categories
বিনোদন

মা হলেন সোনম কাপুর, ঘর আলো করে এল ফুটফুটে পুত্র সন্তান

পুত্রসন্তানের মা হলেন অভিনেত্রী সোনম কাপুর (Sonam Kapoor)। আজকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অসংখ্য অনুরাগীদের সাথে শেয়ার করেছেন এই খুশির খবর।

২০১৮ সালের মে মাসে ব্যবসায়ী আনন্দ আহুজার (Anand Ahuja) সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন অনিল কাপুর (Anil Kapoor) কন্যা সোনম। বিয়ের পরে তেমনভাবে সিনেমায় অভিনয় না করলেও বলিউডে তিনি ‘ফ্যাশন ডিভা’ বলেই বেশি পরিচিত। তবে ‘নীরজা’ (Neerja), ‘রানঝানা’ (Raanjhanaa) এবং ‘ডলি কি ডোলি’ (Dolly Ki Doli) সিনেমার জন্য বেস্ট এক্ট্রেস (Best Actress) বিভাগে ফ্লিমফেয়ার অ্যাওয়ার্ড (Filmfare Awards) পেয়েছিলেন তিনি। এমনকি ফোর্বসের (Forbes) পক্ষ থেকে যে ১০০ জন সেলিব্রিটির তালিকা প্রকাশিত হয়েছিল তাতেও তাঁর নাম ছিল। নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বরাবরই বেশ খোলাখুলি আলোচনা করতে ভালোবাসেন অভিনেত্রী। আনন্দের সাথে সম্পর্ক, বিয়ে এবং প্রেগন্যান্সি কোনো কিছুই গোপন করেননি। এইবারে সন্তান জন্মের কথাও সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়ে দিলেন সোনম।

চলতি বছরের মার্চ মাসেই আহুজা পরিবারে নতুন সদস্যের আগমনের বার্তা ঘোষণা করেছিলেন সোনম। স্বামীর সাথে মাতৃত্বকালীন ফটোশুটের ছবিও ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেই সময় সোনমের সৌন্দর্যের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন প্রত্যেকেই। সন্তান আগমনের খবর জানিয়ে অভিনেত্রী জানান খুব আনন্দের সঙ্গে এই খুদে সদস্যটিকে তাঁরা অভ্যর্থনা জানিয়েছেন। মাতৃত্বকালীন সময়ে যারা তাঁরা সফর সঙ্গী ছিলেন অর্থাৎ নার্স, ডাক্তার এবং শুভানুধ্যায়ী সবাইকে তিনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন। অনুরাগীদের পাশাপাশি বলিউডের অনেক সেলিব্রিটিরাই অভিনন্দন জানিয়েছেন নতুন মা এবং তাঁর সন্তানকে। এর আগে মাতৃত্বের খবর সামনে আসার পরে বিদেশ থেকে মুম্বাইয়ে ফিরে এসেছিলেন আহুজা দম্পতি।

সোনমের সাধের অনুষ্ঠানের আয়োজন মুম্বাইতে তাঁদের বাসস্থানেই করার পরিকল্পনা ছিল। পরিবার বন্ধু বান্ধব সবাইকেই আমন্ত্রণ জানান হয়েছিল। কিন্তু দেশে সেইসময় করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় সেই অনুষ্ঠান বাতিল করতে হয়েছিল। কিছুদিন আগেই ‘কফি উইথ করণ’ (Koffee With Karan) টক শোতে ভাই অর্জুন কাপুরের (Arjun Kapoor) সাথে উপস্থিত হয়েছিলেন সোনম। সেখানে তাঁর মাতৃত্বকালীন সৌন্দর্য মুগ্ধ হয়েছিলেন দর্শকদের।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Sonam Kapoor Ahuja (@sonamkapoor)


বর্তমানে বলিউডে অনেক নায়িকাই গর্ভবতী। তাঁদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য নাম হল আলিয়া ভাট (Alia Bhatt) ,বিপাশা বসু (Bipasha Basu)। সোনমের পরে এই অভিনেত্রীদের খুশির খবর পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন বিটাউনের দর্শকরা।

Categories
বিনোদন

রূপে লক্ষ্মী গুণে সরস্বতী, নিজের আপন বোনকে বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার শাহিদ আফ্রিদি

শাহিদ আফ্রিদি (Shahid Afridi) আমাদের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার, তিনি পাকিস্তানি জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়কের ভূমিকাও পালন করেছেন। তিনি ১৯৯৬ সালে ওডিআই (ODI) ডেবিউ করেছিলেন, ১৯৯৮ সালে টেস্ট (Test) ডেবিউ করেছিলেন ও ২০০৬ টি-টোয়েন্টি (T-20) ডেবিউ করেছিলেন। শাহিদ একজন ডানহাতি লেগ স্পিনার ও ডানহাতি ব্যাটসম্যান, তবে তিনি অলরাউন্ডার হিসেবেও খেলেছেন।

শাহিদি আফ্রিদি তাঁর দুর্দান্ত ব্যাটিং দক্ষতার জন্য ‘বুম বুম’ নামে পরিচিত ছিলেন, মূলত পারদর্শীভাবে ছয় অর্থাৎ ওভার বাউন্ডারি হাঁকানোর জন্য‌ই তিনি এই নাম অর্জন করেছিলেন। তিনি তাঁর দীর্ঘ কর্মজীবনে মোট সাতাশটি (২৭) টেস্ট ম্যাচ, তিনশো আটানব্বইটি (৩৯৮) ওডি‌আই ম্যাচ ও নিরানব্বইটি (৯৯) ম্যাচ খেলেছেন। শাহিদ ২০১৮ সালের ৩১ মে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করেন, তবে এর আগেও তিনি আরো চারবার অবসর গ্রহণ করে আবার ফিরে এসেছিলেন।

খেলোয়াড় জীবন ছাড়াও নিজের ব্যক্তিগত জীবনের কারণেও শাহিদ বারংবার খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন। বিশেষত নিজের মামাতো বোনের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্কের কারণে তাঁকে বহু সমালোচিত হতে হয়েছে। ২০০০ সালের ২১ অক্টোবর মামাতো বোন নাদিয়া আফ্রিদির (Nadia Afridi) সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শাহিদ। তাঁর পিতাই এই বিয়ের সম্বন্ধ স্থির করেছিলেন। শাহিদ এক ইন্টারভিউতে জানিয়েছেন, কোনো এক ট্যুরের সময় তিনি তাঁর বাবাকে মজা করে বিয়ের জন্য মেয়ে খুঁজে রাখতে বলেছিলেন, আর ট্যুর থেকে ফেরার পরেই মামাতো বোন নাদিয়ার সাথে তাঁর বিয়ের কথা পাকা হয়ে যায়। বর্তমানে শাহিদ ও নাদিয়া সুখী দাম্পত্যজীবন পালন করেছেন, তাঁদের পাঁচটি কন্যাসন্তান রয়েছে। তবে নিজের মামাতো বোনকে বিয়ে করার জন্য শাহিদকে প্রায়শই বিভিন্ন কটাক্ষমূলক মন্তব্য ও নিন্দার সম্মুখীন হতে হয়।

Categories
বিনোদন

টাইট বিকিনিতে উন্মুক্ত বক্ষ বিভাজিকা, হট লুকে নেটদুনিয়ায় ঝড় তুললেন বাঙালি অভিনেত্রী মৌনী রায়

সম্প্রতি হট বিকিনি লুকে সোশ্যাল মিডিয়ায় উষ্ণতা ছড়ালেন বাঙালি অভিনেত্রী মৌনী রয় (Mouni Roy)। নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেল থেকে শেয়ার করা ছবিগুলি বর্তমানে বেশ ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

বর্তমানে ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ (Brahmāstra ) ছবির শুটিং শেষ করে ছুটির মেজাজে আছেন অভিনেত্রী। তাঁর ছবিগুলি দেখে সেটাই বারবার মনে হচ্ছে। নিজের শরীরের প্রতি বরাবরই বেশ যত্নশীল তিনি। সঠিক ডায়েট এবং শরীরচর্চার কারণে এখনো নিজের গ্ল্যামার এবং সুঠাম শরীর ধরে রাখতে পেরেছেন অভিনেত্রী। তাই বিকিনি কিংবা শাড়ি যেকোনো পোষাকেই পুরুষ অনুরাগীদের মনে ঝড় তুলতে পারেন মৌনী। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় তিনি। তাই তাঁর নীল প্রিন্টেড বিকিনি লুকের ছবিতে মুহূর্তের মধ্যেই লক্ষাধিক অনুরাগীরা লাইক করে নিজেদের পছন্দ ব্যক্ত করেছেন ইনস্টাগ্রামে। তাঁদের মতে এই বিকিনির সাথে খোলা চুল এবং ন্যুড মেকাপে মৌনী একবারে লাস্যময়ী জলপরী লাগছেন। বিয়ের পরেও এতটুকু জনপ্রিয়তা কমেনি তাঁর।

বাঙালি হয়েও খুব অল্প সময়েই হিন্দি বিনোদনের জগতে নিজের আলাদা জায়গা করে নিয়েছেন মৌনী। বর্তমানে যেসব অভিনেত্রীরা হিন্দি সিরিয়াল জগতে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম তিনিও। ২০০৬ সালে ‘কিঁউকি সাস ভি কাভি বহু থি’ (Kyunki Saas Bhi Kabhi Bahu Thi) সিরিয়াল দিয়ে হিন্দি টেলিভিশন জগতে পা রেখেছিলেন তিনি। এর পরে দর্শকদের উপহার দিয়েছেন অনেক সিরিয়াল। তবে একতা কাপুর (Ekta Kapoor) পরিচালিত ‘নাগিন’ (Naagin) সিরিয়ালের মধ্যে দিয়ে তিনি দর্শকমহলে বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন। সিরিয়ালের পাশাপাশি সিনেমাতেও তাঁর অভিনয় দক্ষতা প্রমাণিত। তাঁর অভিনীত সিনেমাগুলির মধ্যে অন্যতম হলো ‘গোল্ড’ (Gold) ,’মেড ইন চায়না’ (Made in China) প্রভৃতি। অভিনেত্রীর সাথে সাথে তিনি একজন দক্ষ নৃত্যশিল্পীও। ২০১৮ সালে মুক্তি পাওয়া দক্ষিণের ব্লকব্লাস্টার মুভি ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার ১’ (K.G.F: Chapter 1) সিনেমায় একটি আইটেম ড্যান্সে দেখতে পাওয়া গিয়েছিল মৌনিকে। ছোটপর্দার বেশ কিছু ড্যান্স রিয়েলিটি শোতে উপস্থিত হয়েছিলেন অতিথি হিসেবে। এখন ‘ড্যান্স ইন্ডিয়া ড্যান্স লিটল চ্যাম্পস’ (Dance India Dance Little Champs) নামক রিয়েলিটি শোতে বিচারকের আসনে দেখতে পাওয়া যাবে তাঁকে।

Categories
বিনোদন

বিয়ের ২৫ বছর পূর্ণ, স্বামীর সঙ্গে ছবি পোস্ট করে আবেগঘন অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য

জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য (Aparajita Adhya) বর্তমানে জি বাংলার ‘লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার’ ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্র লক্ষ্মীর ভূমিকায় অভিনয় করছেন। তিনি দীর্ঘ সময় পর ছোটপর্দায় এই অন্যধারার ধারাবাহিকের মাধ্যমে কামব্যাক করেছেন। তাঁর প্রাণবন্ত অভিনয় দক্ষতায় দর্শকমহলে তাঁর চরিত্র ও সার্বিক ধারাবাহিক বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। পর্দার পাশাপাশি মাঝবয়সী এই অভিনেত্রী সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ জনপ্রিয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়মিত সক্রিয় থাকেন অপরাজিতা। তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ৩ লাখ ২৯ হাজার মানুষ নিয়মিত ফলো করেন।

সম্প্রতি নিজের পঁচিশতম বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষ্যে অভিনেত্রী স্বামী অতনু হাজরার সঙ্গে বিয়ের দিনের কিছু ছবি ও সাম্প্রতিক কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন,’আজ রাত পোহালেই কেটে গেলো, ২৫ বছরের বিবাহিত জীবন। ওঠা পড়া আছে কিন্তু প্রতিঘাত নেই দিন গুলো কি ভাবে যে গেলো বুঝলামি না এই বাড়িতেই বয়সে ছোট্ট একটা মেয়ে কিন্তু সম্পর্কে সবার বড় সে আজ সত্যি সত্যিই সবার বড়ই হয়ে গেলো। যখন পরিবার টি তে এসে ছিলাম তখন আমায় নিয়ে আমরা ছিলাম চার জন… আজ আমরা গোটা পরিবার মিলে ১০০ জনের কিছু বেশি গুনতে নেই রোজই সংখ্যা টা বাড়ে তো তাও তো শ্বশুর মশাই আর দিদি শাশুড়ি চলে গেলেন এত তাড়াতাড়ির কি ছিল বাপু বুঝিনা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Aparajita Adhya (@adhyaaparajita)

এর সাথেই তিনি যোগ করেছেন,’অনেক শিখেছি তার থেকেও বেশি পেয়েছি পাচ্ছি পেয়ে পেয়ে বুঝছি এখন সংসারে হিরো একজন ই হয় যে পুরোটাই কাঁধে নিয়ে হাঁটে সে হলো আমার শাশুড়ি মা নিজের ভালো লাগার থেকেও আমার ভালো লাগা নিয়ে উনি সদাই চিন্তিত কি আমার ভালো লাগলো না, কি আমি খেলাম না, সারাক্ষন.. কোনো দিনই ক্লান্তি দেখলাম না…. আমি যখন বলি মা আমার জন্য তোমার খুব জ্বালা উনি বলেন লক্ষী যেখানে ঝক্কি সেখানে….. তাই তো মা লক্ষ্মী আমাদের কুল দেবী….. ভাবছেন এত কিছু বললাম বর মশাই এর ব্যাপারে কিছু তো বললাম না ২৫ বছরের বিবাহ বার্ষিকী তে। ওটা নাহয় আমার মনেই থাক আর আপনারা ভেবেই নিন যার মা এরকম তার ছেলে কেমন হতে পারে….. আমাদের আশীর্বাদ করুন আমরা যেনো সবাই মিলে এমনি হেসে খেলে থাকতে পারি….. গুরু কৃপাহি কে বলম।’

Categories
বিনোদন

ফুলশয্যার রাতেই ভেঙেছিল খাট! বিয়ের প্রথম রাতেই অভিষেক বচ্চনকে সপাটে চড় মারেন ঐশ্বর্য

বিয়ের এতো বছর পর সামনে এলো ঐশ্বর্য রাই বচ্চন (Aishwrya Rai Bachchan) এবং অভিষেক বচ্চনের (Abhishek Bachchan) বিবাহিত জীবনের এক গোপন রহস্য। খবরটি জানার পরে অনুরাগীরা বেশ বিস্মিত হয়েছেন।

নিজেদের সফল ক্যারিয়ারে অনেক নায়ক নায়িকার সাথেই নাম জড়িয়েছে ঐশ্বর্য এবং অভিষেকের। কিন্তু ২০০৭ সালে তাঁদের প্রেমের সম্পর্কের পরিণতি পায়। ওই বছরের ২০শে এপ্রিল রাজকীয় সমারোহের মধ্যে দিয়ে দুজনের চার হাত এক হয়েছিল। কিন্তু বিয়ের রাতেই স্ত্রীয়ের হাতে চড় খেয়েছিলেন অভিষেক। এতবছর এই ঘটনা চাপা ছিল। সাম্প্রতিকালে প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়ে গিয়েছে নানা ধরণের গুঞ্জন। অনেকেই বলছেন বিয়ের শুরুর দিকে কি তাহলে বচ্চন দম্পতির মধ্যে সম্পর্ক ভালো ছিল না। আসল ঘটনা সামনে আসতেই নিন্দুকদের সমস্ত জল্পনায় কার্যত জল পড়ে গিয়েছে। আসলে বিয়ের রাতে স্ত্রীয়ের সাথে মজা করতে গিয়েই এই বিপত্তির সম্মুখীন হয়েছিলেন অভিষেক।

সংবাদ সূত্রের খবর অনুযায়ী, স্ত্রীয়ের সাথে মজা করার জন্য খাটের সমস্ত স্ক্রু খুলে দিয়েছিলেন অভিষেক। এর ফলে খাটটি দাঁড়িয়ে থাকলেও কেউ যদি বিছানায় বসে তাহলে সেটি ভেঙে পড়বে। ঐশ্বর্য বিছানায় বসার সাথে সাথেই খাটটি ভেঙে পরে যায়। অভিষেক এতে খুব মজা পেলেও অস্বস্তিকর অবস্থার সম্মুখীন হতে হয় ঐশ্বর্যকে। এই কারণে অভিষেককে গালে চড় মেরে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন এইরকম ইয়ার্কি তাঁর পছন্দ নয়। তবে সমস্ত ঘটনাই ঘটেছিল মজার ছলে। বচ্চন পরিবারের পারিবারিক অশান্তি বেশ কয়েকবার সামনে এলেও বর্তমানে সবাইকে নিয়ে সুখেই ঘর করছেন ঐশ্বর্য। সম্পর্কের ভাঙ্গনের গুঞ্জনও শোনা গিয়েছিল অনেকবার। কিন্তু বাস্তবে ঐশ্বর্য রাই বচ্চন ওই পরিবারের বধু হিসেবে সম্মানে সঙ্গেই রয়েছেন এবং সবার আশা ভবিষ্যতেও থাকবেন।

Categories
অফবিট

গাছের উপর একে অপরকে জড়িয়ে ফনা তুলছে তিন বিষধর সাপ, তুমুল ভাইরাল ছবি

আজকাল সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে নানান ধরণের ভিডিও মূহুর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়। সারাদিনের পরিশ্রমের পরে একটু বিনোদনের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ার দ্বারস্থ সবাই হয়। নানান জীবজন্তুর ভিডিও নেটিজেনদের খুবই পছন্দ। সাপের ভিডিও দেখতে নেটিজেনরা ভীষণ ভালবাসেন। আসলে ভয় পেতেই মানুষ ভালবাসে। তাই সাপ যতই ভীতুর শ্রেণীর প্রাণী হোক না কেন, মানুষ সাপকে বড়ই ভয় পায়। সাপ দেখলে এটা ভেবেও দেখেনা সেই সাপ বিষাক্ত নাকি বিষহীন।

নানান গবেষণায় আজ প্রমাণিত হয়েছে যে সাপ ছোবল মারলে অধিকাংশ ক্ষেত্রে মানুষ ভয়ে হার্ট অ্যাটাকে মারা যায়। সেই মানুষ যখন তিন তিনটে গোখরো সাপকে একসাথে সামনে দেখে, তার অবস্থা ঠিক কেমন হতে পারে? কিন্তু নিজের ভয়কে জয় করে সম্প্রতি এমনই একটি দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করেছেন এক ব্যক্তি। 

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে তিনটি গোখরা সাপ একসঙ্গে ফনা তুলে দাঁড়িয়ে রয়েছে। একসাথে তিনটি ভয়াল সাপের এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হওয়ার সাথে সাথে ঝড়ের মতো ভাইরাল হয়। আর শেয়ার হতে থাকে। আর প্রচুর কমেন্ট আসতে থাকে। আলোচ্য ভিডিওটি আপলোড করেছেন সুশান্ত নন্দ নামক একজন আইএফএস (IFS) অফিসার। তিনি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে এই ছবিটি টুইট করেন।


সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে বহু সময় ভাইরাল হয় নানা ধরনের ভিডিও। নাচ বা গানের ভিডিও, কখনও বা নানা ধরণের পশু পাখির ভিডিও ভাইরাল হয়। আর এই সমস্ত ভিডিও মানুষ মুঠোফোনে দেখে আনন্দ পান। তাঁদের ভাল লাগার জেরেই গোখরা সাপের ছবিটিও একইভাবে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Categories
বিনোদন

টলিউডে নতুন সম্পর্কের সমীকরণ, এবার স্বামী-স্ত্রী হচ্ছেন প্রসেনজিৎ-শ্রাবন্তী

পিতা-কন্যা থেকে এইবার হয়ে গেলেন স্বামী-স্ত্রী। এ আবার কী? আরে মশাই বুঝলেন না? রুপোলী পর্দার জগতে যে সবই সম্ভব।তব কিন্তু একটা শর্ত আছে। অভিনেতা অভিনেত্রীর শরীরও থাকতে হবে ফিট। এক ছবিতে যিনি এক মেয়ের বাবার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন সেই অভিনেতার পক্ষে দীর্ঘ পঁচিশ বছর পর ওই কন্যার নায়কের ভূমিকায় অভিনয় করা সহজ নয়। এর জন্য সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হতে হবে। রূপ যৌবন ধরে রাখতে হবে।

পুরুষদের বয়সের সঙ্গে সঙ্গে গ্ল্যামার বেড়ে যায়। তাঁরা পাকা চুলেও হ্যান্ডসাম। আবার রোগা হয়ে কিংবা দুর্দান্ত ফিজিক বানিয়ে সবার মন জয় করে নেন। বাংলা সিনেমার সুপারস্টার অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এমনই একজন। যাঁর বয়সের সাথে সাথে বেড়েছে শারীরিক সৌন্দর্য। এই বয়সে এসেও অল্পবয়সী নায়িকার নায়ক হতে পারেন। মেকআপ নিয়ে বয়স্ক পিতা হতে যেমন পারেন, তেমনই অল্প মেকআপে হয়ে উঠতে পারেন নায়ক।

মায়ার বাঁধন সিনেমার বাবা মেয়ের ভূমিকায় অভিনয়ের প্রায় পঁচিশ বছর পর
স্বামী স্ত্রী ভূমিকায় অভিনয় করতে চলেছেন প্রসেনজিৎ ও শ্রাবন্তী। সায়ন্তন ঘোষালের নতুন ছবিতে জুটি বাঁধছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ও প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। ছবির গল্প এমন এক দম্পতিকে নিয়ে যাঁদের বয়সের মধ্যে বিরাট ব্যবধান আছে। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে শ্যুটিং শুরু হওয়ার কথা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by ruhi (@srabanti_loverss)

শ্রাবন্তী কিছুদিন আগেই লন্ডন থেকে শুটিং সেরে ফিরে গাড়ি কিনলেন। তারপর মালদ্বীপ বেড়িয়ে এলেন। শ্রাবন্তীর আগামী ছবি ‘অচেনা উত্তম’। এখানে উত্তম কুমারের স্ত্রী গৌরী দেবীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তিনি। চলতি বছরে অনেকগুলি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে শ্রাবন্তীর। আর বেশ কিছু সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে। এককথায় শ্রাবন্তীর সময়টা খুব ভাল যাচ্ছে।

Categories
বিনোদন

অমরেশ পুরীর মেয়েকে চেনেন? সৌন্দর্যে বলিউড নায়িকাদেরও হার মানাবে নম্রতা, রইল তাঁর ছবি

৯০ এর দশকের বলিউডের অন্যতম গুরুগম্ভীর খলনায়ক ছিলেন অমরেশ পুরী (Amrish Puri)। তাঁর অভিনীত ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ ছবির Mogambo Khush Hua ডায়লগ আজও জনপ্রিয়। সেই সময় এই ছবিটি বক্স অফিসে সুপার ডুপার হিট হয়েছিল। এমনকি শুধু হিন্দিতে নয় বাংলা, কন্নড় মারাঠি,তামিল, তেলেগু ছাড়াও অসংখ্য ভারতীয় প্রাদেশিক ভাষায় ৪০০টির ওপর ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। এমনকি তিনবার সেরা সহ অভিনেতা হিসেবে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড ও পেয়েছিলেন তিনি। তবে আজকের এই প্রতিবেদনে অমরেশ পুরী নয় তাঁর মেয়ে নম্রতা পুরীর (Namrata Puri) কথা আমরা জানব।

বর্তমানে বাবা-মা ফিল্মি দুনিয়ার হলে তাঁদের ছেলেমেয়েরাও একই পথে হাঁটতে চায়। কিন্তু অমরেশ পুরীর মেয়ে নম্রতা পুরী একটু অন্য ধরনের। তিনি গ্ল্যামার জগত অর্থাৎ লাইট ক্যামেরা অ্যাকশন থেকে নিজেকে শত মাইল দূরে রেখেছেন। তবে বলিউডের অন্যান্য সুন্দরীদের থেকে তাঁর গ্ল্যামার কোন অংশে কম নয়। তিনি যথেষ্ট স্টাইলিশ ও গ্ল্যামারাস। তিনি পেশায় একজন সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ও কস্টিউম ডিজাইনার। তাঁর instagram প্রোফাইল দেখলেই বোঝা যাবে নিজের ডিজাইন করা পোশাকের বাহার। নম্রতা কখনো মডেল দিয়ে ওইসব ড্রেস পরিয়ে ফটোশুট করান আবার কখনো নিজেই ফটোশুট করেন। বর্তমানে অমরেশ তনয়া একজন ব্যবসায়ীকে বিয়ে করে সুখে-শান্তিতে ঘর সংসার করছেন। এখনো পর্যন্ত নম্রতা পুরী তাঁর ফিগার, স্টাইল স্টেটমেন্টে বলিউডের যেকোনো পাবো তাবড় তাবড় অভিনেত্রীকে হারিয়ে দিতে পারেন।

বর্তমানে অমরেশপুরী বেঁচে না থাকলেও তাঁর অবিস্মরণীয় কিছু কাজের দ্বারা ৯০ এর দশকের সিনেমাপ্রেমীদের মনে এখনো রয়ে গেছেন। এই দাপুটে খলনায়কের হাড়হিম করা অভিনয় সকলের মনে এখনো চিরস্মরণীয়। উল্লেখ্য অমরেশ তনয়া নম্রতা পুরী সোশ্যাল মিডিয়ায় খুবই আক্টিভ। তবে ভবিষ্যতে নম্রতা লাইট ক্যামেরার সম্মুখীন হবে কিনা সেটা সময়ই বলবে।

Categories
বিনোদন

খোলামেলা পোশাকে উন্মুক্ত বক্ষ বিভাজিকা, হট লুকে নেটদুনিয়ায় ঝড় তুললেন অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী

বর্তমানের টলিউড ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী (Ritabhari Chakraborty) টেলিভিশনের ছোটপর্দা দিয়েই নিজের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন। ‘ওগো বধূ সুন্দরী’ ধারাবাহিকে ললিতা চরিত্রটি তৎকালীন সময়ে অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। আর তারপরে ধীরে ধীরে ছোট পর্দা থেকে বড় পর্দা , টলিউডের গণ্ডি পেরিয়ে বলিউডের অভিনেত্রী হয়ে উঠেছেন। নিজের দক্ষতায় ইন্ডাস্ট্রিতে পায়ের তলার মাটি শক্ত করেছেন তিনি। তবে অভিনয়ের পাশাপাশি ঘুরতে যেতেও খুবই পছন্দ করেন। সময় পেলেই বেরিয়ে পড়েন ভ্রমণে। আর তারই বিভিন্ন রকমের ছবি ভরে ওঠে তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়।

এমনিতেই অভিনেত্রী ঋতাভরী সোশ্যাল মিডিয়ায় খুবই সক্রিয়। মাঝেমধ্যে তাঁর বিভিন্ন রকমের ছবি তিনি শেয়ার করেন। সম্প্রতি তাঁর এমনই একটি হট বোল্ড লুকের ছবি রীতিমতো তোলপাড় করেছে নেটদুনিয়া। এই দিন অভিনেত্রী তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেল থেকে বেশ কয়েকটি ছবি শেয়ার করেছেন,যা দেখে রীতিমতো ঘুম উড়েছে তাঁর অনুরাগীদের। ছবিতে অভিনেত্রীর সাদা রঙের শার্টের ফাঁক দিয়ে গোলাপি ও কালো কম্বিনেশনের ব্রালেট খুব স্পষ্ট ভাবে দেখা যাচ্ছে।তাঁর উন্মুক্ত বক্ষ বিভাজিকা ঝড় তুলেছে অজস্র পুরুষহৃদয়ে। নিউড মেকআপ এবং গ্লসি লিপস্টিকে অভিনেত্রীর মোহময়ী চেহারা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন হাজার হাজার মানুষ।

ছবি শেয়ার করে অভিনেত্রী ক্যাপশনে লেখেন ‘লেজি সানডেস’। এর সঙ্গে হ্যাশট্যাগ দিয়ে লিখেছেন সানডে মুড, হোয়াইট শার্ট, পিস এন্ড লাভ। উল্লেখ্য বেশ কয়েক মাস আগে দুবার অস্ত্রোপচার হওয়ার কারণে ওভার ওয়েট হয়ে যাওয়ায় অভিনেত্রী ডিপ্রেশনে চলে গিয়েছিলেন। সেই কঠিন দুঃসময়ে তাঁর প্রেমিক তথাগতকে তিনি তাঁর পাশে পেয়েছিলেন।

অভিনেত্রীর শেয়ার করা ছবি ইতিমধ্যে সুপার ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়। লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করছেন অনেকেই। ইতিবাচক মন্তব্যে ভরে উঠছে অভিনেত্রীর কমেন্ট বক্স। অনেকেই লিখেছেন ‘রূপবতী রাজকুমারী’, ‘রানী’ , ‘গর্জিয়াস’, ‘লুকিং বিউটিফুল’ ইত্যাদি মন্তব্য। আপাতত তাঁর অনুরাগীরা অভিনেত্রীর এই ছবি দেখে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিচ্ছেন।

Categories
বিনোদন

এবার চোখ মেয়ে নয়, খোলামেলা ব্লাউজে বক্ষবিভাজিকা দেখিয়ে ভাইরাল ‘জাতীয় ক্রাশ’ প্রিয়া প্রকাশ

মালয়ালম অভিনেত্রী প্রিয়া প্রকাশ-এর একটি ভিডিও এখনও অবধি ইন্টারনেটে খুব জনপ্রিয়। প্রিয়ার সেই বিখ্যাত উইঙ্ক অনেকেই অনুকরণ করার চেষ্টা করেছেন। তবে পেরে ওঠেননি।

প্রিয়ার ওই ভিডিওর ভাষা অবশ্য মালিয়ালি হলেও তা কারোর পক্ষেই বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। নেটিজেনদের শুধু চাহিদা ছিল প্রিয়ার উইঙ্ক দেখার। প্রিয়ার অভিনয় নিয়ে চর্চা না হলেও প্রিয়ার উইঙ্ক নিয়ে এখনও অবধি রীতিমত চর্চা চলে। সম্প্রতি প্রিয়ার একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সেই ছবিতে প্রিয়াকে খোলামেলা, বোল্ড পোশাকে দেখা যাচ্ছে। ছবিতে প্রিয়ার পরনে রয়েছে লাল রঙের ডিপ নেক টপ ও পোলকা ডট ট্রাউজার। ডিপ নেক টপের কয়েকটি বোতাম খোলা। ফলে প্রিয়ার ক্লিভেজ দৃশ্যমান। প্রিয়ার এই ছবিটি কয়েক ঘন্টার মধ্যেই দুই লক্ষের বেশি মানুষ দেখেছেন। আবারও সোশ্যাল মিডিয়া ভাইরাল হয়ে উঠেছেন প্রিয়া। তবে সম্ভবত তাঁর উইঙ্ক ভিডিওটি এই ছবির থেকেও বেশি চর্চিত।

উইঙ্ক ভিডিওর পর থেকেই প্রিয়া প্রকাশ বিখ্যাত হয়ে উঠেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এরপরেও বেশ কয়েকটি ফিল্মে কাজ করেছেন প্রিয়া। কিছুদিন আগেই প্রিয়ার আরও একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। ছবিটিতে প্রিয়াকে দেখা গিয়েছিল আদিবাসীদের সাজে। এলোমেলো চুলে অত্যন্ত স্বল্প পোশাকে ছবিটি তুলেছিলেন প্রিয়া। তা দেখে অনেকের মনে হয়েছিল, প্রিয়া আসলে এরোটিকা অভিনেত্রী। কিন্তু এটি ছিল একটি ব্র্যান্ড এনডোর্সমেন্টের জন্য তোলা ছবি। ব্র্যান্ড এনডোর্সমেন্টের শুটিংয়ের জন্য এই ধরনের সাজ সেজেছিলেন প্রিয়া। প্রিয়ার এই ছবিটিতেও তিন লক্ষের বেশি লাইক পড়েছে।