Categories
চাকরির খবর

ব্যাংকে ৬ হাজার শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ, কবে পরীক্ষা, কীভাবে করবেন আবেদন? রইল বিস্তারিত

ইনস্টিটিউট অব ব্যাঙ্কিং পার্সোনাল সিলেকশন (IBPS) এর তরফ থেকে প্রবেশনারি অফিসার/ ম্যানেজমেন্ট ট্রেনি নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। পুরুষ ও মহিলা দুজনেই চাকরির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

পদের নামঃ Probationary Officer/ Management Trainee

মোট শূন্যপদ : ৬৪৩২

শূন্যপদের বিন্যাস ও বিনিয়োগকারী ব্যাংক :
ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া ৫৩৫ টি, কানারা ব্যাংক ২৫০০ টি, পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক ৫০০ টি, পাঞ্জাব অ্যান্ড সিন্ড ব্যাংক ২৫০, ইউকো ব্যাঙ্ক ৫৫০ টি ও ইউনিয়ন ব্যাংক অব ইন্ডিয়া ২০৯৪ টি শূন্যপদে নিয়োগ করা হবে।

শিক্ষাগত যোগ্যতা : যে কোন সরকার স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রিধারী ব্যাক্তি আবেদন করতে পারবেন।

বয়স : প্রার্থীর বয়স ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। বয়স হিসাব করতে হবে ১ আগস্ট ২০২২ অনুযায়ী। সরকারি নিয়ম অনুসারে সংরক্ষিত শ্রেনীর আবেদনকারীরা বয়সের ছাড় পাবেন।

আবেদন পদ্ধতি : অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে আবেদন করা যাবে। আবেদনকারীর বৈধ ইমেল আইডি, ফোন নং থাকতে হবে। পাসপোর্ট সাইজের ফটো ও সই স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে।

আবেদনের সময়সীমা : ২০ শে অগস্ট ২০২২ তারিখের মধ্যে আবেদন করতে হবে।

আবেদন ফি : আবেদন ফি বাবদ SC/ST/ PWBD প্রার্থীরা ১৭৫+GST ও অন্যান্যদের ক্ষেত্রে ৮৫০ টাকা+ GST ধার্য করা হয়েছে।

নিয়োগ পদ্ধতি : প্রিলিমিনারি ও মেইন পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগ করা হবে।

পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে প্রিলিমিনারি পরীক্ষা কেন্দ্র :
আসানসোল, দূর্গাপুর, বহরমপুর, বর্ধমান, কলকাতা, হুগলি, হাওড়া, হলদিয়া, কল্যানী, পশ্চিম মেদিনীপুর ও শিলিগুড়ি।

পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে মেইন পরীক্ষা কেন্দ্র :
আসানসোল, কলকাতা, কল্যাণী ও শিলিগুড়ি।

পুরো নোটিফিকেশনটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন [Click Here]

অনলাইনে আবেদন করতে এখানে ক্লিক করুন [Click Here]

Categories
চাকরির খবর

পুজোর আগেই ২১ হাজার শিক্ষক নিয়োগ, বড় ঘোষণা শিক্ষামন্ত্রীর

মাসের শুরুতেই চাকরির সুখবর! রাজ্যে নতুন করে ২১ হাজার শুন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের কথা ঘোষণা করলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। ১ আগস্ট সোমবার দফতরের উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করে এই নিয়োগের আশ্বাস দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। নিয়োগের ক্ষেত্রে কোন রকম আইনি জটিলতা না থাকার কারণে এই নিয়োগ খুব তাড়াতাড়ি শুরু করার কথা ঘোষণা করেছেন তিনি। এই শিক্ষক নিয়োগ নীতিতে বড়সড় পরিবর্তন আসতে চলেছে বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আদালতে হলফনামা দিয়ে রাজ্য সরকার জানিয়েছিল নবম দশমে ১৩৮৪২টি, একাদশ দ্বাদশে ৫৫২৭টি, এবং প্রধান শিক্ষক পদে ২৩২৫টি শূন্যপদ রয়েছে। এই সমস্ত শূন্য পদ মিলিয়ে প্রায় ২১ হাজার শূন্যপদে নিয়োগ হবে শিক্ষক। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বলেছিলেন, এই মুহূর্তে এই শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে আর কোনো রকম আইনি জটিলতা নেই। তাই খুব তাড়াতাড়ি রাজ্য সরকারের এই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা উচিত।

শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু নতুন নিয়োগ নিয়ে শিক্ষা দপ্তরের উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেছিলেন। পুজোর আগেই উচ্চমাধ্যমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ প্রাথমিক এবং প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

তবে টেট উত্তীর্ণদের ক্ষেত্রে কি হবে? রাজ্য সরকার সেই ব্যাপারে এখনো পর্যন্ত স্পষ্ট করে কোন নির্দেশিকা জানায়নি। এমনকি শিক্ষা মন্ত্রীর তরফ থেকেও কোনরকম কোন সঠিক বক্তব্য পাওয়া যায়নি। শুধুমাত্র তিনি জানিয়েছেন, আইন এবং সহানুভূতির মধ্যে একটা সমন্বয় হওয়া খুব প্রয়োজন। আইনে কি প্রক্রিয়া আছে সেটা নিয়ে আগামী ৮ তারিখের বৈঠকে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু।

Categories
চাকরির খবর

গ্ৰুপ সি পদে ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্সে চাকরির সুবর্ণ সুযোগ, জেনে নিন আবেদনের পদ্ধতি

ইন্ডিয়ান এয়ার ফোর্সের তরফ থেকে (Indian Air Force) গ্রুপ ‘সি’ সিভিলিয়ান পদে নিয়োগের জন্য কয়েকদিন আগে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

এই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো যে হয়েছে নিয়োগের জন্য আবেদনপত্র গ্রহণের কাজ শুরু হয়েছে। আগ্রহী ও যোগ্য ব্যক্তিরা শীঘ্রই আবেদন করতে পারেন। এই বিষয়ে আরো বিস্তারিতভাবে জানতে হলে আগ্রহী প্রার্থীরা ইন্ডিয়ান এয়ার ফোর্সের ওয়েবসাইটে গিয়ে খোঁজ নিতে পারেন।

ইন্ডিয়ান এয়ার ফোর্সের তরফ থেকে (Indian Air Force) প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুযায়ী গ্রুপ ‘সি’ সিভিলিয়ান পদে নিয়োগের আবেদনপত্র নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। প্রার্থীদের বিজ্ঞাপন প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যে আবেদন করতে হবে। এই আবেদনপত্র অফলাইনে গ্রহণ করা হবে। অনলাইনে যারা আবেদন করতে চাইলে প্রার্থীরা প্রতিষ্ঠানের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটেই আবেদনপত্র পেয়ে যাবেন। এই নিয়োগের আবেদনপত্র গ্রহণ সংক্রান্ত সময়সীমায় কোনও বদল আনা হলে তা নোটিশের মাধ্যমে প্রার্থীদের জানিয়ে দেওয়া হবে।

সরকারি চাকরির পরীক্ষায় বসতে আগ্রহীদের জন্য এ এক সুবর্ণ সুযোগ।