Categories
ভিডিও লাইফ স্টাইল

এইভাবে কাশ্মীরি চিকেন বানালে স্বাদ হবে দুর্দান্ত, হাত চাটবে আট থেকে আশি, শিখে নিন রেসিপি

মৎস্যপ্রিয় বাঙালির পছন্দের খাদ্যতালিকা মাংস ছাড়া একেবারে অসম্পূর্ণ। দুপুরবেলা গরম ভাতের সাথে কিংবা যেকোন অনুষ্ঠান চিকেন কিংবা মাটনের যেকোন লোভনীয় পদ থাকবেই। মাংসের ঝোল থেকে শুরু করে কাবাব কিংবা স্ন্যাকসের জন্য সুস্বাদু পকোড়া সবেতেই মাংসের জয়জয়কার। বিভিন্ন উপাদান দিয়ে নানা ভাবে মাংস রান্না করা যায়। একেবারে সাধারণ ঘরোয়া পদ্ধতিতে কিংবা রেস্টুরেন্ট স্টাইলে যেভাবেই হোক বাঙালি মাংসের যেকোন পদেই তৃপ্তি খুঁজে পায়।

উপকরণ :
১. চিকেন
২. নুন
৩. হলুদ গুঁড়ো
৪. লাল লংকার গুঁড়ো
৫. সর্ষের তেল
৬. পেয়াঁজ
৭. আদা বাটা
৮. রসুন বাটা
৯. টমেটো বাটা
১০. কাশ্মীরি লাল লংকার গুঁড়ো
১১. ধনে গুঁড়ো
১২. জিরে গুঁড়ো
১৩. গোলমরিচ গুঁড়ো
১৪. গরম মশলা
১৫. টক দই
১৬. দুধ
১৭. চিনি
১৮. ধনে পাতা

প্রণালী :
১ কেজি চিকেনকে ভালো করে ধুয়ে ১/২ চামচ হলুদে গুঁড়ো , লাল লংকার গুঁড়ো এবং স্বাদমতো লবণ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। ৫ থেকে ১০ মিনিট এইভাবে মাংসকে ম্যারিনেট করে রাখতে হবে।

এর পরে কড়াই গরম করে এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে পরিমাণের থেকে একটু বেশি সর্ষের তেল। তেল ভাল করে গরম হয়ে গেলে এর মধ্যে ম্যারিনেট করে রাখা মাংসের টুকরোগুলোকে দিয়ে ৩ থেকে ৪ মিনিট উল্টেপাল্টে হালকা করে ভেজে নিতে হবে। চিকেনগুলো হালকা করে ভাজা হয়ে গেলে কড়াই থেকে তুলে নিয়ে আলাদা পাত্রে রেখে দিতে হবে।

মাংস ভাজার তেলের মধ্যেই দিয়ে দিতে হবে ৩টি বড় আকারের পেয়াঁজ কুচি। পেয়াঁজকে ৫ থেকে ৬ মিনিট ভালো করে ভেজে নেওয়ার পরে এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে ২ টেবিল চামচ আদা রসুন বাটা। গ্যাসের আঁচ কমিয়ে দিয়ে ২ থেকে ৩ মিনিট ভাল করে কষিয়ে নিতে হবে। আদা রসুন বাটা থেকে কাঁচা গন্ধ চলে গেলে এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে বড় আকারের ২টো টমেটো বাটা।

টমেটো বাটা ভালো করে কষে শুকিয়ে এলে দিতে হবে ১ টেবিল চামচ কাশ্মীরি লংকার গুঁড়ো, ১/২ টেবিল চামচ লাল লংকার গুঁড়ো , ১ এবং ১/২ টেবিল চামচ ধনে গুঁড়ো এবং ১ চামচ জিরে গুঁড়ো,সামান্য গোলমরিচ গুঁড়ো এবং অল্প পরিমানে গরম মশলা। পরিমানমত লবণ দিয়ে সমস্ত মশলাগুলিকে ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে। মশলা কষানোর সময় গরম জল ব্যবহার করলে রান্নার স্বাদ ভালো হয়। তাই মশলা কষে শুকিয়ে এলে যোগ করতে হবে অল্প পরিমাণে গরম জল।

এইভাবে ভালো করে কষিয়ে নেওয়ার পরে এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে ৩ টেবিল চামচ ফেটানো টক দই। গ্যাসের আঁচ আবার কমিয়ে দিয়ে গ্রেভির সাথে ফেটানো টক দই ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। মশলা ভালো করে কষে গিয়ে তেল বেরোতে শুরু করলে এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে ১ গ্লাস দুধ।

দুধ ঘন হয়ে না আসা পর্যন্ত ভালো করে নাড়াচাড়া করে নিতে হবে। দুধ যোগ করার আগে ভালো করে গরম করে নিয়ে ঠাণ্ডা করে নিতে হবে। ৫ থেকে ৬ মিনিট রান্না করার পরে ভাজা চিকেনগুলো দিয়ে দিতে হবে। মশলার সাথে ৫ মিনিট ধরে মাঝারি আঁচে ভাল করে চিকেন কষিয়ে নিতে হবে। চিকেন কষানোর সময় বারবার ভালো করে নাড়াচাড়া করে নিতে হবে যাতে কড়াইয়ের নিচে ধরে না যায়।

চিকেন ভাল করে কষানো হয়ে এলে দিয়ে দিতে হবে গরম জল। ১০ মিনিট মত কড়াইয়ের ঢাকা বন্ধ করে দিতে হবে যতক্ষণ না চিকেন ভাল করে সেদ্ধ হয়ে যায়। এর মাঝে ঢাকা খুলে প্রয়োজন হলে লবণ দিতে হবে। এই পর্যায়ে যোগ করতে হবে অল্প পরিমাণে চিনি। দুধ এবং দইয়ের সাথে এই রান্নায় চিনি যোগ করলে স্বাদ আরও ভাল হবে। ৫ থেকে ৬ মিনিট এইভাবে ঢাকা দিয়ে রান্না করার পরে দিয়ে দিতে হবে ধনে পাতা কুচি।

এর কিছুক্ষণ পরে গ্যাস বন্ধ করে দিতে হবে। সাধারণ ঘরোয়া মশলা দিয়েই মাংসের এই অসাধরণ পদটি পরিবেশনের জন্য একদম তৈরী।