Categories
টেক আপডেট

নতুন ফিচারসহ বাজারে আসছে ALTO গাড়ি, মাত্র ১১,০০০ টাকায় হতে পারে আপনার, জেনে নিন বিস্তারিত

সস্তায় অত্যাধুনিক ফিচার নিয়ে গাড়ি বাজার মাতাতে আসছে অল্টোর (ALTO) নতুন গাড়ি। এই খবরে গাড়িপ্রেমীরা যে বেশ খুশি হবেন সেটা বলাই বাহুল্য।

চার চাকার গাড়ি কেনার স্বপ্ন অনেকেই দেখে থাকেন। কিন্তু গাড়ির আকাশছোঁয়া দামের কাছে মাথা নত করতে হয় তাঁদের। সেইসব গাড়িপ্রেমী মধ্যবিত্তদের সাধ এবং সাধ্যের মধ্যে বরাবরই সামঞ্জস্য রেখে এসেছে মারুতি সুজুকি (Maruti suzuki)। এবারেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। শুধুমাত্র শহরের মানুষই নন গ্রামের মানুষও যাতে ব্যবহার করতে পারেন চারচাকা সেকারণে গাড়ির দাম সাধ্যের মধ্যেই রাখার চেষ্টা করেছে মারুতি কোম্পানি।

১৮ই অগাস্ট বাজারে এসেছে মারুতি সুজুকির নতুন অল্টো মডেলের গাড়ি। গাড়ির মডেল অনেকটাই মারুতি কে১০ (k10) -এর মতো। এর মধ্যে রয়েছে ফ্রন্ট গ্রিল, নতুন ডিজাইনের হেড ল্যাম্প সহ আরো অনেক সুবিধা। গাড়িটিকে দেখে অনেকেই হাবচ্যাক সিলারিওর সঙ্গে মিল পেয়েছেন। সস্তায় টেকসই মাইলেজের জন্য মারুতির জনপ্রিয়তা বরাবরই বেশি। এই গাড়িতেও মাইলেজ যথেষ্ট ভালো।

নতুন মডেলের এই গাড়িতে রয়েছে ১.০ লিটারের ডুয়াল জেট ইউনিট। এছাড়া সর্বোচ্চ ৪৮ হর্স পাওয়ার ক্ষমতাসম্পন্ন ৭৯৬ সিসির পেট্রল ইঞ্জিনও রয়েছে গাড়িতে। গাড়িটির বর্তমানে বাজার মূল্য ৪.১৫ লক্ষ টাকা থেকে ৪.৫০ লক্ষ টাকা। তবে মারুতি সুজুকির ওয়েবসাইট থেকে মাত্র ১১,০০০ টাকায় গাড়ির অগ্রিম বুকিং করতে পারবেন গাড়িপ্রেমীরা। ফাইভ স্পিড ম্যানুয়াল গিয়ার বক্স সহ এজিএস এবং এমটি সুবিধা পাওয়া যাবে এতে। গ্রাম এবং শহর সব জায়গার মানুষই যাতে চারচাকা কেনার স্বপ্ন পূরণ হয় তার জন্যই এতো কম দামে এই গাড়ি বাজারে এনেছে মারুতি।

Categories
টেক আপডেট নিউজ

পুজোর আগেই গ্ৰাহকদের জন্য বিরাট সুখবর, আগস্টেই 5G পরিষেবা লঞ্চ করছে জিও

আগামী মাসেই আসতে চলেছে ভারতের অন্যতম বিখ্যাত টেলিকম সংস্থা রিলায়েন্স জিওর (Reliance Jio) ৫জি পরিষেবা। এই খবরে স্বভাবতই খুশি এই সংস্থার গ্রাহকরা। কারণ গ্রাহকদের অনেকদিনের প্রতীক্ষার অবসান হতে চলেছে।

দেশের প্রথম সারির টেলিকম সংস্থাগুলির মধ্যে অন্যতম হলো মুকেশ আম্বানির ( Mukesh Ambani) জিও। উন্নত গ্রাহক পরিষেবা এবং নেটওয়ার্কের কারণে বাকি প্রতিযোগীদের পিছনে ফেলে দিয়ে একেবারে প্রথমে উঠে এসেছে এই সংস্থাটি । বর্তমানে ৪জি (4G) পরিষেবার পরিবর্তে ৫জি (5G) পরিষেবা আনার চেষ্টা করছে সমস্ত টেলিকম সংস্থা। প্রতিযোগিতার বাজারে পিছিয়ে নেই এই সংস্থাটিও। স্পেক্ট্রাম ভাগ হয়ে যাওয়ার পরেই সমস্ত টেলিকম সংস্থাগুলিকে যত দ্রুত সম্ভব এই পরিষেবা চালু করার জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন টেলিকম মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব (Ashwini Vaishnaw)। স্বাধীনতা দিবসের দিনই এই পরিষেবা উদ্বোধনের কথা ছিল মাননীয় প্রধামনন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi)। কিন্তু সমস্ত পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলি প্রস্তুত না থাকায় সেটি সম্ভব হয়নি। তবে সেইদিনই প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভারতে ৫জি পরিষেবা চালু করতে সরকার বদ্ধপরিকর।

আগামী ২৯ শে অগাস্ট অনুষ্ঠিত হবে রিলায়েন্সের বার্ষিক মিটিং। সেইখানেই সম্ভবত ঘোষণা করা হবে এই ৫জি পরিষেবার কথা। তবে এখনো জিওর তরফ থেকে জানা যায়নি যে শুরুর দিকেই তারা এক হাজার শহরে এই ৫জি পরিষেবা দিতে পারবে কিনা। সংবাদসূত্রের খবর অনুযায়ী প্রাথমিক পর্যায়ে দিল্লী, বেঙ্গালুরু , চণ্ডীগড়, হায়দ্রাবাদ সহ ১৩ টি শহরে তারা ৫জি পরিষেবা পৌঁছে দেবে। এই ১৩টি শহরের মধ্যে রয়েছে কলকাতাও। ইতিমধ্যে রিলায়েন্সের অন্যতম প্রতিযোগী এয়ারটেল (Airtel) জানিয়েছে তারা অগাস্ট মাসের মধ্যে এই পরিষেবা চালু করে দেবে। যদিও সরকারিভাবে কোনো তারিখ ঘোষণা করা হয়নি সংস্থাটির পক্ষ থেকে। ৫জি ইনস্পেকট্রাম নিলামের পরে অনুমান করা হচ্ছে আজাদি কা অমৃত মহোৎসবের (Azadi Ka Amrit Mahotsav) সঙ্গেই শুরু হতে পারে তাদের এই ৫জি পরিষেবার যাত্রা।

গ্রাহকদের ৫জি পরিষেবা দেওয়ার দৌড়ে এয়ারটেল কিংবা জিওর সঙ্গে রয়েছে ভোডাফোন , বিএসএনএল সহ একাধিক সংস্থা। সবাই নতুন এই পরিষেবাকে যত দ্রুত সম্ভব গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দেবার চেষ্টা করছে। নিলামের মাধ্যমে স্প্রেকট্রাম বণ্টন করার জন্য এই সব সংস্থার কাছ থেকে এর মধ্যেই ১৭ হাজার ৮৭৬ কোটি টাকা পেয়েছে ডিওটি (DoT)। ৪জি জমানা শেষ হওয়ার পরে গ্রাহকরাও ৫জি পরিষেবার জন্য অধীর আগ্রহ অপেক্ষা করছেন। এইবারে দেখার কোনো সংস্থা এই ৫জি পরিষেবার দৌড়ে এগিয়ে যায়।

Categories
টেক আপডেট

BSNL গ্ৰাহকদের জন্য দুর্দান্ত অফার, এক রিচার্জেই পেয়ে যাবেন ৩৬৫ দিনের আনলিমিটেড কল ও ইন্টারনেট

গ্রাহকদের জন্য ৩৬৫ দিনের দুর্দান্ত অফার নিয়ে এল ভারতের অন্যতম বেসরকারি টেলিকম সংস্থা বিএসএনএল। এর ফলে গ্রাহকরা বেশ উপকৃত হবেন বলে আশাবাদী এই সংস্থাটি।

বর্তমানে ভারতে জনপ্রিয় টেলিকম সংস্থাগুলির মধ্যে অন্যতম হলো বিএসএনএল। গ্রাহকদের জন্য তারা প্রায়শই কম দামে এত ভালো অফার নিয়ে আসে যে বাকি টেলিকম সংস্থাগুলি সস্তায় সেই রকম অফার নিয়ে আসতে পারে না। এই কারণে গ্রাহকদের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে নেটওয়ার্ক এবং প্রযুক্তিগত কারণে গ্রাহকদের সংখ্যা আগের থেকে অনেকটাই কমেছে বলে দাবি করছেন টেলিকম বিশেষজ্ঞরা। তাই গ্রাহক সংখ্যা বৃদ্ধি করতে ২৩৯৯ টাকার ৩৬৫ দিনের একটি দারুন অফার নিয়ে এসেছে সংস্থাটি। এই রিচার্জ প্ল্যানে গ্রাহকরা নিশ্চিন্তে এক বছর নিরবিচ্ছিন্নভাবে বিএসএনএলের পরিষেবা উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়া রয়েছে প্রতিদিন ১০০ টি করে এসএমএস এবং আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহার করার সুবিধাও।

ডেটা শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও যদি কোনো গ্রাহক ডেটা ব্যবহার করতে চান তবে সেই সুবিধাও এই রিচার্জ প্ল্যানে রয়েছে। তবে ২ জিবি হাইস্পিড ডেটার বদলে এই ক্ষেত্রে ইন্টারনেট স্পিড কমে ৪০ কেবিপিএস হবে। এই প্ল্যানটির সময়সীমা ৩১ শে আগস্ট ২০২২ পর্যন্ত। এই সময়সীমার মধ্যে যদি কোনো গ্রাহক রিচার্জ করেন তাহলে ৭৫ জিবি ডেটা বাড়তি পাবেন। ৩০ দিনের জন্য আনলিমিটেড কলার টিউন সহ আরো একাধিক সুবিধা রয়েছে এই দুর্দান্ত অফারটিতে। লক্ষাধিক গ্রাহক হারানোর পরে নিজেদের জায়গা আবার করে ফিরে পাওয়ার জন্য সব রকমের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এই সংস্থাটি। গ্রাহক পরিষেবা উন্নত করার পাশাপাশি আগামী দিনেও আরো এইরকম লাভজনক অফার নিয়ে আসার জন্য বদ্ধপরিকর বিএসএনএল।

Categories
টেক আপডেট

মধ্যবিত্তদের জন্য বাজারে নতুন গাড়ি আনছে টাটা, কম দামে পাবেন এই সমস্ত নতুন ফিচার্স

Tata Bolt-এর সুযোগ্য উত্তরসুরী Tata Tiago বিক্রির নিরিখে Tata Motors-কে বেশি লাভ দিয়েছে। লঞ্চের ছয় বছরের মধ্যেই এই গাড়ির বিক্রি ছাড়িয়েছে ৪ লাখ। এই গাড়ি যাত্রী সুরক্ষার দিক থেকেও Global NCAP-এর থেকে ফোর স্টার রেটিং পেয়েছে। বর্তমানে এটি ভারতের অন্যতম সর্বাধিক সুরক্ষিত গাড়ি। এবার Tata Tiago নতুন চেহারায় বাজারে আসছে। কম দামে Tiago NRG এর নয়া ভ্যারিয়েন্ট লঞ্চ হবে। ইতিমধ্যেই একটি টিজার প্রকাশ করেছে টাটা। অনুমান, নতুন ভ্যারিয়েন্টটির নাম হতে পারে Tiago NRG XT। এটি টপ স্পেক মডেল XZ এর চাইতে সস্তা হবে। ওই নতুন ভ্যারিয়েন্ট আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই বাজারে আসবে।

Tiago NRG এর XT ভ্যারিয়েন্টে কেবলমাত্র এক্সটেরিয়র ডিজাইনে কিছু পরিবর্তন হবে। নয়া ট্রিমটি অতিরিক্ত বডি ক্লাডিং-সহ আসবে। সাধারণ মডেলের তুলনায় Tiago NRG XT এর দৈর্ঘ্য ৩৭ মিমি বেশি হবে। সামনে ও পেছনের দৈর্ঘ্য বাড়াতেই লম্বায় বড় হবে এটি। তবে হার্ডওয়্যার ও ইঞ্জিনে কোনো পরিবর্তন থাকছে না।

NRG XT এর গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স রেগুলার Tiago-র চাইতে বেশি হবে। যা ১৮১ মিমি। যেখানে স্ট্যান্ডার্ড মডেলের গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স ১৭০ মিমি। এই ১১ মিমি অধিক গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স গাড়িটিকে এবড়োখেবড়ো রাস্তায় সাবলীলভাবে চলতে সাহায্য করবে। তবে এখনও পর্যন্ত Tiago NRG XT-র বিস্তারিত স্পেসিফিকেশন এবং ফিচার্স সম্পর্কে টাটা গোপনীয়তা বজায় রেখেছে। অনুমান করা হচ্ছে, Tiago XT-র ফিচার্সের সাথে মিল থাকবে Tiago NRG XT-এর।

এটিও ১.২ লিটার থ্রি-সিলিন্ডার পেট্রোল ইঞ্জিনে চলবে। যা থেকে সর্বোচ্চ ৮৪ বিএইচপি ক্ষমতা এবং ১১৩ এনএম টর্ক উৎপন্ন হবে। এর সাথে ৫-স্পিড ম্যানুয়াল গিয়ার বক্স ও ৫-স্পিড অটোমেটিক ট্রান্সমিশন বিকল্পে বেছে নেওয়া যাবে। তবে XT ভ্যারিয়েন্ট অটোমেটিক ট্রান্সমিশন সহ আসবে কিনা, তা নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না। Tiago NRG-র দাম ৬.৮২ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম) থেকে শুরু। তবে XT ভ্যারিয়েন্টটির মূল্য এর কম হবে বলেই ধারণা।

Categories
টেক আপডেট

একদম জলের দরে নতুন ফোন বাজারে আনল ওয়ানপ্লাস, থাকছে নতুন যত সুবিধা

OnePlus 10T লঞ্চের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বাজারে নয়া ফোন আনল OnePlus। Redmi, realme -কে টেক্কা দিতে বাজেট সেগমেন্টে নয়ে ফোন এনেছে চিনা কোম্পানিটি। লঞ্চ হয়েছে OnePlus Nord N20 SE। Nord সিরিজের এই ফোনে Android 12 অপারেটিং সিস্টেমের উপরেই OxygenOS 12.1 স্কিন চলবে। তুলনামূলক কম দামের এই ফোনে থাকছে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা। এছাড়াও 5,000 mAh ব্যাটারি ও 33 W ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট থাকছে। 8 অগাস্ট এই ফোন বিক্রি শুরু করছে OnePlus Nord.

OnePlus Nord N20 SE -তে Android 12 অপারেটিং সিস্টেমের উপরে চলবে সংস্থার তৈরি OxygenOS 12.1 স্কিন। এই ফোনে রয়েছে 6.56 ইঞ্চি ডিসপ্লে। পাতলা ডিজাইনে এই ফোন নিয়ে এসেছে OnePlus। OnePlus Nord N20 SE -র পিছনে থাকছে ডুয়াল ক্যামেরা। প্রাইমারি ক্যামেরায় 50 MP সেন্সর থাকছে। সঙ্গে রয়েছে একটি 2 MP সেন্সর। ডুয়াল স্পিকারের সঙ্গেই এই ফোনের পাশে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে। OnePlus Nord N20 SE -তে থাকছে 5,000 mAh ব্যাটারি। সঙ্গে 33 W SuperVooc চার্জিং সাপোর্ট থাকছে। কোম্পানির দাবি মাত্র 30 মিনিটে 50 শতাংশ চার্জ হবে এই ফোনের ব্যাটারি।

জুনে একাধিকবার TDRA সার্টিফিকেশন ওয়েবসাইটে এই ফোন দেখা গিয়েছিল। মনে করা হচ্ছে Oppo A57 4G ফোনের নাম বদলে এই ফোন লঞ্চ করেছে OnePlus। OnePlus Nord N20 SE -এর দাম 199 মার্কিন ডলার (প্রায় 15,800 টাকা)। আপাতত শুধুমাত্র চিনে এই ফোন লঞ্চ হয়েছে। 8 অগাস্ট শুরু হবে বিক্রি। Aliexpress ওয়েবসাইটে ইতিমধ্যেই এই ফোন দেখা গিয়েছে।

এদিকে সম্প্রতি ভারত সহ একাধিক দেশে লঞ্চ হয়েছে কোম্পানির নতুন প্রিমিয়াম স্মার্টফোন OnePlus 10T। এই ফোনে শক্তিশালী Snapdragon 8+ Gen 1 চিপসেট দিয়েছে OnePlus। OnePlus 10T -র দাম শুরু হচ্ছে 46,999 টাকা থেকে। বেস ভেরিয়েন্টে থাকছে 8 GB RAM + 128 GB স্টোরেজ। 12 GB RAM + 256 GB স্টোরেজে এই ফোন কিনতে 54,999 টাকা খরচ হবে। এছাড়াও 16 GB RAM + 256 GB স্টোরেজে এই ফোন কিনতে খরচ হবে 55,999 টাকা। এই ফোনে থাকছে 150 W ফাস্ট চার্জ সাপোর্ট।

Categories
টেক আপডেট

সুখবর! গ্ৰাহকদের ১০০ জিবি ফ্রি ডেটা দিচ্ছে জিও, রইল বিস্তারিত

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকমের সুবিধা প্রদান করে অত্যন্ত জনপ্রিয় টেলিকম সংস্থাগুলির মধ্যে অন্যতম হয়ে উঠেছে জিও রিলায়েন্স (Reliance Jio)। জিও মোবাইল নেটওয়ার্কিং দুনিয়ায় রীতিমতো বিপ্লব এনে দিয়েছে এই সংস্থা। গ্রাহকদের জন্য প্রায় নিত্যদিনই সস্তায় প্ল্যান নিয়ে আসে এই সংস্থা। তাই জিও মানেই সস্তায় স্বপ্ন পূরণ। সম্প্রতি এই সংস্থাটি তার গ্রাহকদের জন্য আবারো এক ধামাকাদার অফার নিয়ে এসেছে। এবার থেকে গ্রাহকেরা ১০০ জিবি ডেটা ফ্রিতে পেয়ে যাবেন।

তবে এই অফারটি পাওয়ার জন্য বেশ কয়েকটি নিয়ম মেনে চলতে হবে গ্রাহকদের। যে সমস্ত গ্রাহকেরা এইচপি স্মার্ট সিম ব্যবহার করেন তারাই শুধুমাত্র এই অফারটি পাবেন। যদিও এই ডেটার মূল্য পনেরশো টাকা। রিলায়েন্স ডিজিটাল ডট ইন এবং জিও মার্ট ডট কম থেকে ডেটা কিনলে তবেই বিনামূল্য পাবেন এই অফার। তবে অন্য ক্ষেত্রে আপনি এই অফারটি পাবেন না।

এছাড়া এইচপি ল্যাপটপ ব্যবহারকারী গ্রাহকদের ক্ষেত্রেও এই অফারটি প্রযোজ্য। তবে ল্যাপটপের ক্ষেত্রে রয়েছে নির্দিষ্ট কিছু মডেল। Hp 14ef1003tu এবং HP 14ef1002tu এই মডেলগুলি যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে একটি জিওর সিম কার্ড কিনে নিলেই বিনামূল্যে বিপুল পরিমাণে ডেটা আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। রিলায়েন্স জিও স্টোরে গিয়ে আপনাকে সিম কার্ডটি এক্টিভেট করার জন্য ব্যবস্থা নিতে হবে। অথবা আপনি তাদের প্রতিনিধিদের সাহায্য নিতে পারেন। মাই জিও অ্যাপের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে আপনি সহজেই এই সিমকার্ডটি অর্ডার দিতে পারবেন। তাই আর দেরি না করে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রিলায়েন্সের তরফ থেকে দেওয়া এই চমকপ্রদ অফারটি আপনি আজই কাজে লাগিয়ে ফেলুন।

Categories
টেক আপডেট

মুকেশ আম্বানির জিও এখন অতীত, গ্ৰাহকদের 5G পরিষেবা বিনামূল্যে দিতে প্রস্তুত এই নতুন সংস্থা

ভারতের (India) অর্থনৈতিক পরিস্থিতি বর্তমান সময়ে বেশ টালমাটাল অবস্থার মধ্যে দিয়েই যাচ্ছে। বিশ্ব অর্থনীতির প্রভাবে ভারতের বাজারেও বিভিন্ন জিনিসের দাম ক্রমাগত আকাশছোঁয়া হয়েই চলেছে। ফলে সাধারণ মানুষদের স্বাভাবিক জীবনযাপন করতেও রীতিমতো কালঘাম ছুটে যাচ্ছে। বিভিন্ন দ্রব্যের পাশাপাশি মোবাইলের রিচার্জ‌ও এক অন্যতম বড়ো খরচ। জিও (Jio), এয়ারটেল (Airtel), ভোডাফোন-আইডিয়া (VI) প্রভৃতি কোম্পানির রিচার্জ (4g) মূল্য গত কয়েক মাসে ব্যাপকমাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে।

তবে এবারে জানা যাচ্ছে ভারতে আসতে চলেছে আরো দ্রুতগতির (5g) ইন্টারনেট পরিষেবা, তাও আবার বিনামূল্যে। এর আগে যখন ভারতে জিও কোম্পানির 4g ইন্টারনেট পরিষেবা চালু হয় সেইসময়ে বহুদিন গ্রাহকদের বহুমূল্যে পরিষেবা প্রদান করা হয়েছিল। বিনামূল্যে পরিষেবা প্রদানের মাধ্যমেই গ্রাহকদের আকৃষ্ট করে জিও কোম্পানি নিজের বাজার জমিয়ে নিয়েছিল। পরবর্তী সময়ে রিচার্জের মূল্য ক্রমবর্ধমান হতে থাকে। সাধারণ মানুষদের পকেটে টান পড়লেও বাধ্য হয়েই প্রত্যেককে অন্যদের সঙ্গে যোগাযোগ বজায় রাখার জন্য মোটা অঙ্কের টাকা দিয়েই নির্দিষ্ট সময় অন্তর রিচার্জ করতে হয়।

গত 26 শে জুলাই এর এয়ার ওয়েসের নিলামে জিও, এয়ারটেল প্রভৃতি টেলিকম সংস্থার পাশাপাশি গৌতম আদানির সংস্থাও উপস্থিত ছিল। জোরদারভাবে কোমর বেঁধেই টেলিকম দুনিয়ায় এই সংস্থা প্রবেশ করতে চলেছে। বিভিন্ন জাতীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, জিও কোম্পানির মতোই আদানি সংস্থাও প্রথমে গ্রাহকদের বিনামূল্যে 5g ইন্টারনেট পরিষেবা প্রদান করতে চলেছে। এই পরিষেবা যে অন্যান্য টেলিকম সংস্থাদের ব্যবসায় কিছুটা হলেও প্রভাব ফেলতে চলেছে তা সহজেই অনুমেয়। তবে বিনামূল্যের এই পরিষেবায় ভারতবর্ষের সাধারণ মানুষেরা হয়তো আবারও খানিক স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারবেন!

Categories
টেক আপডেট

মাত্র ১০ হাজার টাকায় পেতে পারেন Hero Super Splendor Plus, কি করতে হবে জেনে নিন

নতুন বছরে মাত্র দশ হাজার টাকায় কিনতে পারেন হিরো সুপার স্প্লেন্ডার (Hero Super Splendor) বাইকটি। এটি যদি আপনার স্বপ্নের বাহন হয় তাহলে দেরি করবেন না। আপনার স্বপ্ন পূরণ হতে পারে খুব শীঘ্রই।

সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারে সাধ থাকলেও সাধ্য থাকেনা সব সময়। নতুন জিনিস কেনার ইচ্ছে থাকলেও পকেটের জোর না থাকায় অধরাই থেকে যায় কেনার স্বপ্ন। তা বলে বাঙালি কিন্তু এখন স্বপ্ন পূরণের পথে পিছিয়ে নেই । নতুন না কিনতে পারলেও সেকেন্ড হ্যান্ড এখন মধ্যবিত্তদের সব ইচ্ছে পূরণের চাবিকাঠি হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিভিন্ন ই -কমার্স ওয়েবসাইটে এখন সেকেন্ড হ্যান্ড জিনিস কেনা বেচার চাহিদা বেড়ে গিয়েছে। ইলেকট্রিক হোক কিংবা মেকানিক্যাল সব জিনিসের কদর বেশ ভালো। বাইকও এখন এইসব সাইটে পাওয়া যাচ্ছে খুব সস্তায়। বাইকস২৪.কম (bikes24.com) ,বাইকওয়ালা.কম (bikewale.com) কিংবা ড্রুম.ইনের (droom.in) মতো সাইটে বাইকের দাম মধ্যবিত্তের নাগালের মধ্যেই রয়েছে ।

সম্প্রতি এইসব ওয়েবসাইটে কম দামে ভালো বাইক রেজিস্টার করা হয়েছে। তার মধ্যে এক ব্যক্তি মাত্র দশ হাজার টাকার বিনিময়ে হিরো সুপার স্প্লেন্ডার বাইকটি বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছেন। দামের সাথে সাথে গাড়িটির বর্তমান কন্ডিশনও বেশ ভালো বলে জানিয়েছেন ভদ্রলোকটি। বর্তমানে কলকাতায় এই বাইকের বাজার মূল্য প্রায় ৯৯ হাজারের মতো। বাইকটির প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো এটির ইঞ্জিন ক্ষমতা ১২৪.৭ সিসি এবং পাওয়ার ১০.৮ পিসি। হিরো কোম্পানির বাইক যাদের কেনার ইচ্ছে রয়েছে তাদের কাছে এই মূল্যে এইরকম বাইক পাওয়া রীতিমত হাতে চাঁদ পাওয়ার মতো অবস্থা। এখন শুধুমাত্র এইসব সাইটে গিয়ে কেনার অপেক্ষা।