Categories
বিনোদন

‘পুষ্পা’র সাফ্যলের পর এবার হলিউডে পাড়ি! মার্ভেল মুভিতে সুপারহিরো হতে পারেন আল্লু অর্জুন, জল্পনা তুঙ্গে

বলিউডের পরে হলিউডেও ছড়াতে চলেছে পুষ্পা ম্যাজিক। এই খবর নিঃসন্দেহে দক্ষিণী সুপারস্টার আল্লু অর্জুনের (Allu Arjun) অনুরাগীদের কাছে খুব খুশির খবর।

দক্ষিণের সিনেমা জগতে কয়েক বছরের মধ্যে নিজের আলাদা জায়গা করে নিয়েছেন অভিনেতা আল্লু অর্জুন। এতদিন দক্ষিণের সিনেমাপ্রেমীদের কাছেই সীমাবদ্ধ ছিল তাঁর জনপ্রিয়তা। কিন্তু আগের বছর সুকুমার (Sukumar) পরিচালিত ‘পুষ্পা :দ্য রাইস’ (Pushpa: The Rise) সিনেমার কারণে তাঁর এই জনপ্রিয়তার গন্ডি ছাড়িয়েছে দেশ কালের সীমানা। এদেশে তো বটেই বিদেশের মাটিতেও প্রভূত পরিচিতি পেয়েছেন এই সিনেমার দৌলতে। কিছুদিন আগে নিউইয়র্কে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক উপস্থিত হয়েছিলেন অভিনেতা। তাঁকে ‘গ্রান্ড মার্শাল’ উপাধিতে ভূষিতও করা হয়েছিল ওই অনুষ্ঠানে। এই কারণে বিদেশের মাটিতে দেশের মানুষকে অনেকটাই গর্বিত করেছেন পুষ্পা।

বর্তমানে দক্ষিণের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক প্রাপ্ত অভিনেতার তালিকায় উপরের দিকে রয়েছেন আল্লু। তাঁর অভিনয় দক্ষতা এবং নাচের কারণে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন দেশে বিদেশে সর্বত্রই। সংবাদমাধ্যমের সূত্র অনুযায়ী, খুব শীঘ্রই হলিউডে পাড়ি দিতে চলেছেন অভিনেতা। হলিউডে সুপারহিরো সিনেমা বানানোর জন্য বেশ খ্যাতি রয়েছে ‘মার্ভেল স্টুডিওস’ (Marvel Studios) নামক প্রযোজনা সংস্থার। এই নামি প্রযোজনা সংস্থার সাথে গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছেন আল্লু। সব ঠিক থাকলে মার্ভেলের সুপারহিরো সিরিজের অংশ হতে পারেন দক্ষিণের এই নায়ক।

তবে এইসময় তিনি ব্যস্ত পুস্পা সিনেমার দ্বিতীয় ভাগ ‘পুষ্পা :দ্য রুল’ (Pushpa: The Rule) সিনেমার শুটিংয়ে। আগামী বছরেই মুক্তি পেতে চলেছে এই সিনেমাটি। আগের ভাগের থেকে পারিশ্রমিকের অঙ্ক অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছেন এই সিনেমার জন্য। বঙ্গের মাটিতেও এই এই সিনেমার বেশ কিছু দৃশ্যের শুটিং হবে বলে জানা গিয়েছে। বাঁকুড়ার লাল মাটিতে বিপক্ষের সাথে লড়াই করতে দেখা যাবে তাঁকে। এই সিনেমার দ্বিতীয়ভাগেও নায়িকা হিসাবে তাঁর বিপরীতে থাকবেন রশ্মিকা মন্দনা (Rashmika Mandanna)। এসিপি চরিত্রে ফাহাদ ফাজিলের (Fahadh Faasil) সাথে তাঁর লড়াই আগের থেকে আরো উপভোগ্য হবে। সব মিলিয়ে সর্বত্রই বিরাজ করছে পুষ্পা রাজ।

Categories
বিনোদন

পর্দায় আসছে পুষ্পা ২, আল্লু অর্জুনের পারিশ্রমিক শুনলে চোখ উঠবে কপালে

আল্লু অর্জুন (Allu Arjun) এবং রশ্মিকা মন্দানা (Rashmika Mandanna) অভিনীত জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবি পুষ্পার দ্বিতীয়ভাগে নায়ক নায়িকার পারিশ্রমিক বর্তমানে শোরগোল ফেলে দিয়েছে নেটদুনিয়ায়। প্রশ্ন উঠেছে পারিশ্রমিকের অসমতা নিয়েও।

আগের বছরে মুক্তি পেয়েছিল সুকুমার (Sukumar) পরিচালিত ‘পুষ্পা :দ্য রাইস’ (Pushpa: The Rise) সিনেমাটি। ছবির গল্পের সাথে সাথে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল সংলাপ এবং গান। দক্ষিণের সাথে সাথে এখানকার মানুষও মজে ছিল পুষ্পা ম্যাজিকে। এমনকি কিছুদিন আগে নিউয়র্কেও দেখতে পাওয়া গিয়েছিল এই ম্যাজিকের ঝলক। এক সামান্য চন্দন শ্রমিকের এই ব্যবসার অন্যতম প্রধান হয়ে ওঠার কাহিনী হল পুষ্পা। প্রধান ভূমিকায় আল্লু অর্জুনের অসাধারণ অভিনয় এবং ছবিতে তাঁর লুকের কারণে ফ্যান ফলোয়ার্স সংখ্যা এই কয়েকদিনে বেড়েছে বহুগুন। অন্যদিকে সুন্দরী অভিনেত্রী রশ্মিকারও জনপ্রিয়তা আগের থেকে অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে।

ছবির সাফল্যের সাথে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে নায়ক নায়িকার পারিশ্রমিকের অঙ্কও। ছবির প্রথমভাগের ব্যাপক জনপ্রিয়তার পরে আগামী বছরেই আসতে চলেছে এই ছবির দ্বিতীয়ভাগে ‘পুষ্পা: দ্য রুল’ (Pushpa 2: The Rule)। ছবির শুটিং ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে। আগের ছবির থেকে পরিচালকের পাশাপাশি পারিশ্রমিকের অঙ্ক অনেকটাই বেড়েছে নায়ক নায়িকার। প্রথম ছবির বাজেট ছিল ১৮০ কোটি টাকা। বক্স অফিসে এই ছবির কালেকশন হয়েছিল প্রায় ৩৬৫ কোটি টাকা। সংবাদসূত্র অনুযায়ী, এই ছবির দ্বিতীয়ভাগের বাজেট ছিল ২০০ কোটি টাকা। কিন্তু পরিচালক থেকে শুরু করে নায়ক নায়িকা সবারই পারিশ্রমিকের অংক আগের থেকে বেড়ে যাওয়ায় স্বভাবতই বাজেট বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রথম ছবিতে নায়িকা রশ্মিকার পারিশ্রমিক ছিল ২ কোটি টাকা। অন্যদিকে নায়ক আল্লু অর্জুনের ছিল ৫০ কোটি টাকা। ছবিতে দুজনের ভূমিকাই বেশ অনেকটা থাকলেও টাকার অংকে বেশ খানিকটা পার্থক্য ছিল। ছবির দ্বিতীয়ভাগেও চোখে পড়েছে এই পার্থক্য । দ্বিতীয় ছবির জন্য রশ্মিকা পারিশ্রমিক হিসাবে নেবেন ৪ কোটি টাকা। কিন্তু আল্লু অর্জুনের পারিশ্রমিক এই ছবির জন্য গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১০০ কোটি টাকায়। নায়ক এবং নায়িকার মধ্যে পারিশ্রমিকের এই অসমতাই বর্তমানে আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবে শুধুমাত্র এইখানেই নয় বলিউডে এমনকি অস্কারের মঞ্চেও নায়িকাদের এইরকম অসমতার শিকার হতে হয়েছে। এই নিয়ে অনেকবারই সোচ্চার হয়েছেন কঙ্গনা রানাউত (Kangana Ranaut) থেকে শুরু করে দীপিকা পাডুকোন (Deepika Padukone) প্রত্যেকে।

গল্প ছাড়াও নায়ক নায়িকার কেমিস্ট্রিও ছবির সাফল্যের উপরে অনেকটাই নির্ভর করে। প্রথম ছবির সফলতার পরে অনেকেই নিজেদের পারিশ্রমিক আগের থেকে অনেকটাই বাড়িয়ে দেন। তবে নায়ক এবং নায়িকার পারিশ্রমিকের মধ্যে পার্থক্য কম বেশি সব জায়গায়তেই দেখতে পাওয়া গিয়েছে। লিঙ্গবৈষম্যের কারণে হওয়া এই ঘটনা আগামীদিনে অনেকটাই প্রভাব ফেলবে বিনোদন জগতে।

Categories
বিনোদন ভিডিও

‘এটা ভারতের তেরঙ্গা, ঝুঁকেগা নেহি’, আল্লু অর্জুনের ডায়লগে কেঁপে উঠল পুরো নিউইয়র্ক

ভারতের পতাকা নিয়ে নিউইয়র্কেও দেখতে পাওয়া গেল ‘পুষ্পা’ ম্যাজিক। সম্প্রতি ‘নিউইয়র্ক ইন্ডিয়া ডে প্যারেডে’ (New York India day parade) সস্ত্রীক উপস্থিত হয়েছিলেন দক্ষিণের সুপারস্টার আল্লু অর্জুন (Allu Arjun)। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সেই অনুষ্ঠানের সমস্ত ভিডিও।

১৯৮৫ সালে ‘ভিজেথা’ (Vijetha ) সিনেমায় শিশুচরিত্রে অভিনয় করেছিলেন আল্লু। ২০০৩ সালে ‘গঙ্গোত্রী’ ( Gangotri) সিনেমার মধ্যে দিয়ে সিনেমা জগতে অভিষেক হয়েছিল তাঁর। এর পরে বেশ কিছু সিনেমায় উল্লেখযোগ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। ২০০৪ সালে ‘আর্য’ (Arya) সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ‘স্পেশাল জুড়ি অ্যাওয়ার্ড’ (Special Jury Award) পেয়েছিলেন অভিনেতা। নিজের দীর্ঘ সফল অভিনয় জীবনে অভিনয় এবং নাচের কারণে এর পরেও বেশ কয়েকটি অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন আল্লু। বর্তমানে দক্ষিণের অন্যতম সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেতা হলেন আল্লু। তাঁর অভিনীত জনপ্রিয় সিনেমার মধ্যে অন্যতম হল ‘সারাইনাডু’ (Sarrainodu) , ‘সন অফ সত্যমূর্তি’ (S/O Satyamurthy) , ‘ভেদাম’ (Vedam) প্রভৃতি। তবে ২০২১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘পুষ্পা :দ্যা রাইস’ (Pushpa: The Rise) সিনেমার জন্য তিনি ভারতজুড়ে সর্বাধিক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন।

‘পুষ্পা’ সিনেমাটি বাণিজ্যিকভাবে চূড়ান্ত সফলতা পাওয়ার পরে আল্লু অর্জুন সবারই প্রিয় অভিনেতা হয়ে গিয়েছেন। আর এই সিনেমার বিখ্যাত সংলাপ ‘ঝুকেগা নেহি ‘ জ্বরে কাবু হননি এইরকম খুব জনই রয়েছেন। কিছুদিন আগে এই জাদু দেখতে পাওয়া গিয়েছিল নিউয়র্কেও । সেখানে প্রিয় ‘পুস্পা’কে দেখতে হাজির হয়েছিলেন অসংখ্য ভক্ত। এই অনুষ্ঠানে অভিনেতাকে তাঁর স্ত্রী স্নেহা রেড্ডির সাথে স্টেজে উঠে ভক্তদের উদ্দেশ্যে হাত নেড়ে অভিবাদন গ্রহণ করতে দেখতে পাওয়া গিয়েছিল । ভারতের পতাকা হাতে পুষ্পার মতো করে বলা তাঁর সংলাপ নিমেষে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সর্বত্র। ‘ইয়ে ভারত কা তিরাঙ্গা হে, কাভি ঝুঁকে গ নেহি’ সংলাপের মধ্যে দিয়ে আপামর ভারতীয়দের মন জয় করে নিয়েছেন দক্ষিণের এই অভিনেতা। এই অনুষ্ঠানের অনেক ভিডিওই বর্তমানে সামাজিক মাধ্যমে বেশ জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছে। সুদৃশ্য একটি গাড়িতে রীতিমতো ভিআইপির মতো করে অভিনেতা এবং তাঁর স্ত্রীকে সম্মান জানিয়ে স্টেজে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তাঁকে গ্র্যান্ড মার্শাল উপাধিতে ভূষিতও করা হয়েছিল। সাদা স্যুটে সুদর্শন এই নায়ককে আরো সুন্দর লাগছিল। অন্যদিকে হলুদে রঙের চুড়িদারে তাঁর স্ত্রীকেও তাঁর পাশে যথেষ্ট সুন্দর লেগেছে। এই অনুষ্ঠানে শুধুমাত্র দক্ষিণ ভারতের নয় সমগ্র ভারতের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। বিদেশের মাটিতে নিজের মতো করে ভারতের মান বাড়ালেন আল্লু। এই ঘটনার পরে অভিনেতার প্রতি তাঁর ভক্তদের সম্মান এবং ভালোবাসা আরও দ্বিগুন হয়ে গিয়েছে সেটা বলাই বাহুল্য।

পরের বছরের শুরুর দিকে আবার করে ‘পুষ্পা’ ম্যাজিক দেখা যাবে এই সিনেমার দ্বিতীয়ভাগে। নতুনভাবে নতুনরূপে আবার করে অনুরাগীদের সামনে আসবেন অভিনেতা। দক্ষিণের সুপারস্টারের বাংলাতেও যেভাবে ভক্ত সংখ্যা বেড়েছে তাতে দ্বিতীয় সিনেমাটিও নিঃসন্দেহে ব্লকক্লাস্টার হিট হবে সেটা সব আল্লু ভক্তরাই আশা করছেন।

Categories
বিনোদন

বাঁকুড়ার জঙ্গলে পুষ্পার রাজ, ধুন্ধুমার অ্যাকশনে বাংলায় ‘পুষ্পা ২’-এর শুটিং করবেন আল্লু অর্জুন

বাঁকুড়ার লাল মাটিতে বিরোধী স্মাগলারদের সাথে লড়াই করতে দেখা যাবে পুষ্পারাজকে। এই খবরে স্বভাবতই বেশ খুশি ‘পুষ্পা’ খ্যাত দক্ষিণী সুপারস্টার আল্লু অর্জুনের (Allu Arjun) অনুরাগীরা।

আগের বছরে মুক্তি পেয়েছিল আল্লু অর্জুন এবং রশ্মিকা মান্দানা (Rashmika Mandanna) অভিনীত ‘পুষ্পা:দ্যা রাইস’ (Pushpa: The Rise) সিনেমাটি। চন্দনের ব্যবসায় কিভাবে একজন সাধারণ শ্রমিক নিজের একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করেছিল তা নিয়েই সিনেমার গল্প। শুধুমাত্র দক্ষিণেই নয় , সর্বত্রই এই সিনেমার বাণিজ্যিক সাফল্য ছিল নজরকাড়া। আগের বছরের ব্লকব্লাস্টার হিট সিনেমার মধ্যে উপরের দিকে থাকবে এই সিনেমাটি। আল্লু অর্জুন এবং রশ্মিকার কেমিস্ট্রির সাথে টানটান অ্যাকশন দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিল। সিনেমাটির প্রথমভাগের নজরকাড়া সাফল্যের পরে খুব শীঘ্রই আসতে চলেছে এই সিনেমার দ্বিতীয় ভাগ।

সিনেমাটির প্রথম ভাগের অন্তিম দৃশ্যেই দ্বিতীয় ভাগের আভাস পাওয়া গিয়েছিল। দর্শকরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছিলেন নতুনভাবে পুস্পা ম্যাজিক দেখতে। সংবাদসূত্রের খবর অনুযায়ী এই সিনেমার দ্বিতীয়ভাগ ‘পুষ্পা :দ্য রুলের’ (Pushpa: The Rule ) শুটিং ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এক পোস্টের মাধ্যমে পুষ্পার অনুরাগীদের এই বিষয়ে জানিয়েছেন পরিচালক সুকুমার (Sukumar)। বড়োসড়ো বেশ কিছু চমক অপেক্ষা করছে দর্শকদের জন্য। পরিচালকের কাছ থেকেও পাওয়া গেল সেইরকমই আভাস। সূত্রের খবর অনুযায়ী আল্লু অর্জুনকে দ্বিতীয়ভাগে একদম অন্য অবতারে দেখতে পাওয়া যাবে। ইতিমধ্যে নায়কের লুক নিয়ে চিন্তাভাবনা করা শুরুও হয়ে গিয়েছে। প্রথমভাগে নায়ক ছাড়াও এসপি ভানওয়ার সিং শেখাওয়াতের (SP Bhanwar Singh Shekhawat) ভূমিকায় আলাদা করে নজর কেড়েছিলেন অভিনেতা ফাহাদ ফাসিল (Fahadh Faasil )। পুষ্পা টু’তে তাঁকেও আলাদা করে গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। তবে দ্বিতীয়ভাগে বাংলার মানুষের জন্য থাকছে একটা বড়ো চমক। কারণ এই সিনেমার বেশ কিছু অ্যাকশন দৃশ্যের শুটিং হতে পারে বাঁকুড়ায়। পুষ্পারাজকে বাংলার লাল মাটিতে বিরোধী পক্ষের সাথে লড়াই করতে দেখা যাবে। এই দৃশ্যগুলির শুটিং হবে বাঁকুড়ার খাতড়ায়। তবে কবে থেকে বাংলায় শুটিং শুরু হবে এই নিয়ে পরিচালক থেকে শুরু করে প্রযোজনা সংস্থা কেউই বিস্তারিত কিছু জানায়নি। এমনকি সিনেমায় বাংলাকে কিভাবে দেখানো হবে তাও পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের শুরুর দিকে শুটিং শুরু হবে এই সিনেমাটির।

বর্তমানে বলিউডের পাশাপাশি দক্ষিণের সিনেমাও এখানকার মানুষের মন জয় করে নিয়েছে । ফলে বলিউডের অভিনেতাদের সাথে সাথে দক্ষিণের অভিনেতাদেরও কদর বাড়ছে। তাঁদের নিয়ে আগের থেকেও চর্চা অনেকটাই বেড়েছে। দক্ষিণের সিনেমা দেখতে এখন বাংলার মানুষ হলমুখী হচ্ছেন। পুষ্পা সিনেমার বিখ্যাত ‘পুষ্পা, ঝুকেগা নেহি’ সংলাপ বাংলাতেও যথেষ্ট জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। বাংলায় এইরকম সুপারহিট সিনেমার শুটিং হলে সেটা বাংলার মানুষের কাছে নিঃসন্দেহে একটা গর্বের বিষয়। এছাড়া প্রিয় পুষ্পাকেও সামনে থেকে দেখার সুযোগ পাবেন তাঁরা।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

ক্লাসরুমের মধ্যে ‘সামি সামি’ গানে উদ্দাম নাচ এক সুন্দরী যুবতীর, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়া অর্থাৎ ফেসবুক, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম প্রভৃতিকে হাতিয়ার করে এখন এক শ্রেণীর মানুষে প্রতিভাকে সকলের সামনে তুলে ধরছেন। এইরকমভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তরুণী ছাত্রী অনিন্দিতার নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে কলেজ ডিপার্টমেন্টে তিনি জনপ্রিয় সিনেমা ‘পুষ্পা’ র একটি গানে নাচছেন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবি ‘পুষ্পা’র সুপার হিট গান ‘সামি সামি তে অসাধারণ তিনি নাচছেন। এই তরুনীর নাম অনিন্দিতা ভট্টাচার্য। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে অনিন্দিতা নিজের সোশ্যাল মিডিয়ার পেজ থেকেই এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। ভিডিওটি আসলে তাঁর ডিপার্টমেন্টাল ফ্রেশার্স অনুষ্ঠানের। অনিন্দিতা বোটানির ছাত্রী নিজেদের কলেজ ডিপার্টমেন্টের অনুষ্ঠানে প্রথাগত রবীন্দ্রসঙ্গীতের বাইরে গিয়ে তিনি জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবির এই গানে নেচে সকলকে মাতিয়ে দিয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে সুন্দরী অনিন্দিতার পরনে রয়েছে হলুদ শাড়ি এবং সঙ্গে ম্যাচিং সবুজ রঙের ব্লাউজ। খোলা চুল এবং দুই হাতে একগুচ্ছ সবুজ চুরিতে অনিন্দিতাকে ভীষণ সুন্দরী লাগছিল। ‘সামি সামি’ গানের নকল করে তিনি সকলের মন জয় করে নিয়েছেন। অনুষ্ঠানে দেখা যাচ্ছে তাঁকে ঘিরে ধরে রয়েছেন তাঁর সহপাঠীরা। তাঁরা সকলেই খুবই খুশী এই নাচ দেখে। তাঁর নাচ সবাই উপভোগ করেছেন। সমস্ত গার্লস কলেজের ক্লাস রুম যেন করতালিতে ফেটে পড়ছিল।


অনিন্দিতার নাচের এই ভিডিওর দর্শকরা দেখছেন। ইতিমধ্যে দুই হাজার ছাড়িয়ে গেছে ভিডিওর ভিউ। এছাড়া অজস্র মানুষ পছন্দ করেছেন ভিডিও। আর কমেন্টবক্স ভরে উঠেছে প্রশংসাওসূচক কমেন্টে। তবে কিছু কিছু নিন্দুকেরা এই নাচকে নিয়ে সমালোচনা করেছেন। অনেকেই বলেছেন কলেজের অনুষ্ঠানে এইরকম চটুল গানের সাথে নাচা অশোভনীয়। তবে প্রথাগত ধারণার বাইরে গিয়ে অনিন্দিতা নেচে প্রমাণ করেছেন যে তিনি প্রতিভাময়ী।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

‘সামি সামি’ গানে দুর্দান্ত অঙ্গভঙ্গিতে উদ্দাম নাচ সুন্দরী যুবতীর, প্রশংসার ঝড় নেটদুনিয়ায়

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়া অর্থাৎ ফেসবুক, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম প্রভৃতিকে হাতিয়ার করে এখন এক শ্রেণীর মানুষে প্রতিভাকে সকলের সামনে তুলে ধরছেন। এইরকমভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তরুণী ছাত্রী অনিন্দিতার নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে কলেজ ডিপার্টমেন্টে তিনি জনপ্রিয় সিনেমা ‘পুষ্পা’ র একটি গানে নাচছেন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবি ‘পুষ্পা’র সুপার হিট গান ‘সামি সামি তে অসাধারণ তিনি নাচছেন। এই তরুনীর নাম অনিন্দিতা ভট্টাচার্য। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে অনিন্দিতা নিজের সোশ্যাল মিডিয়ার পেজ থেকেই এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। ভিডিওটি আসলে তাঁর ডিপার্টমেন্টাল ফ্রেশার্স অনুষ্ঠানের। অনিন্দিতা বোটানির ছাত্রী নিজেদের কলেজ ডিপার্টমেন্টের অনুষ্ঠানে প্রথাগত রবীন্দ্রসঙ্গীতের বাইরে গিয়ে তিনি জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবির এই গানে নেচে সকলকে মাতিয়ে দিয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে সুন্দরী অনিন্দিতার পরনে রয়েছে হলুদ শাড়ি এবং সঙ্গে ম্যাচিং সবুজ রঙের ব্লাউজ। খোলা চুল এবং দুই হাতে একগুচ্ছ সবুজ চুরিতে অনিন্দিতাকে ভীষণ সুন্দরী লাগছিল। ‘সামি সামি’ গানের নকল করে তিনি সকলের মন জয় করে নিয়েছেন। অনুষ্ঠানে দেখা যাচ্ছে তাঁকে ঘিরে ধরে রয়েছেন তাঁর সহপাঠীরা। তাঁরা সকলেই খুবই খুশী এই নাচ দেখে। তাঁর নাচ সবাই উপভোগ করেছেন। সমস্ত গার্লস কলেজের ক্লাস রুম যেন করতালিতে ফেটে পড়ছিল।


অনিন্দিতার নাচের এই ভিডিওর দর্শকরা দেখছেন। ইতিমধ্যে দুই হাজার ছাড়িয়ে গেছে ভিডিওর ভিউ। এছাড়া অজস্র মানুষ পছন্দ করেছেন ভিডিও। আর কমেন্টবক্স ভরে উঠেছে প্রশংসাওসূচক কমেন্টে। তবে কিছু কিছু নিন্দুকেরা এই নাচকে নিয়ে সমালোচনা করেছেন। অনেকেই বলেছেন কলেজের অনুষ্ঠানে এইরকম চটুল গানের সাথে নাচা অশোভনীয়। তবে প্রথাগত ধারণার বাইরে গিয়ে অনিন্দিতা নেচে প্রমাণ করেছেন যে তিনি প্রতিভাময়ী।

Categories
ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

ক্লাসরুমের মধ্যে ‘সামি সামি’ গানে উদ্দাম নাচ সুন্দরী যুবতীর, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়া অর্থাৎ ফেসবুক, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম প্রভৃতিকে হাতিয়ার করে এখন এক শ্রেণীর মানুষে প্রতিভাকে সকলের সামনে তুলে ধরছেন। এইরকমভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তরুণী ছাত্রী অনিন্দিতার নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে কলেজ ডিপার্টমেন্টে তিনি জনপ্রিয় সিনেমা ‘পুষ্পা’ র একটি গানে নাচছেন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবি ‘পুষ্পা’র সুপার হিট গান ‘সামি সামি তে অসাধারণ তিনি নাচছেন। এই তরুনীর নাম অনিন্দিতা ভট্টাচার্য। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে অনিন্দিতা নিজের সোশ্যাল মিডিয়ার পেজ থেকেই এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। ভিডিওটি আসলে তাঁর ডিপার্টমেন্টাল ফ্রেশার্স অনুষ্ঠানের। অনিন্দিতা বোটানির ছাত্রী নিজেদের কলেজ ডিপার্টমেন্টের অনুষ্ঠানে প্রথাগত রবীন্দ্রসঙ্গীতের বাইরে গিয়ে তিনি জনপ্রিয় দক্ষিণী ছবির এই গানে নেচে সকলকে মাতিয়ে দিয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে সুন্দরী অনিন্দিতার পরনে রয়েছে হলুদ শাড়ি এবং সঙ্গে ম্যাচিং সবুজ রঙের ব্লাউজ। খোলা চুল এবং দুই হাতে একগুচ্ছ সবুজ চুরিতে অনিন্দিতাকে ভীষণ সুন্দরী লাগছিল। ‘সামি সামি’ গানের নকল করে তিনি সকলের মন জয় করে নিয়েছেন। অনুষ্ঠানে দেখা যাচ্ছে তাঁকে ঘিরে ধরে রয়েছেন তাঁর সহপাঠীরা। তাঁরা সকলেই খুবই খুশী এই নাচ দেখে। তাঁর নাচ সবাই উপভোগ করেছেন। সমস্ত গার্লস কলেজের ক্লাস রুম যেন করতালিতে ফেটে পড়ছিল।


অনিন্দিতার নাচের এই ভিডিওর দর্শকরা দেখছেন। ইতিমধ্যে দুই হাজার ছাড়িয়ে গেছে ভিডিওর ভিউ। এছাড়া অজস্র মানুষ পছন্দ করেছেন ভিডিও। আর কমেন্টবক্স ভরে উঠেছে প্রশংসাওসূচক কমেন্টে। তবে কিছু কিছু নিন্দুকেরা এই নাচকে নিয়ে সমালোচনা করেছেন। অনেকেই বলেছেন কলেজের অনুষ্ঠানে এইরকম চটুল গানের সাথে নাচা অশোভনীয়। তবে প্রথাগত ধারণার বাইরে গিয়ে অনিন্দিতা নেচে প্রমাণ করেছেন যে তিনি প্রতিভাময়ী।