Categories
লাইফ স্টাইল

মুখের স্বাদ বদলাতে আজই বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের ‘ডিম পোস্ত’, শিখে নিন রেসিপি

ডিম একটি সুস্বাদু এবং পুষ্টিকর খাবার। ডিমের যেকোনো পদ বাঙালির খুব প্রিয়। অন্যদিকে মাছ মাংস প্রিয় ভোজনরসিক বাঙালির প্রিয় পদের তালিকায় আলুপোস্তও রয়েছে । তবে আলুর সাথে ছাড়া ডিমের সাথেও পোস্তর যুগলবন্দিতে খাওয়া জমে যাবে।

উপকরণ :
১. ডিম
২. পোস্ত
৩. কাঁচালঙ্কা
৪. পেয়াঁজ
৫. আদা
৬. রসুন
৭. দারচিনি
৮. লবঙ্গ
৯. এলাচ
১০. সর্ষের তেল

প্রণালী :

রান্নার শুরুতে ৪ থেকে ৫টি ডিমকে ভালো করে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এর পরে একটি কড়াইতে ২ থেকে ৩ চামচ সর্ষের তেল গরম করে নিতে হবে। তেল যতক্ষণ না পর্যন্ত গরম হচ্ছে ততক্ষণ সেদ্ধ করে রাখা ডিমগুলিকে মাঝখান থেকে চিরে অর্ধেক করে নিতে হবে। এইবারে তেল গরম হয়ে গেলে এর মধ্যে কেটে রাখা ডিমগুলিকে দিয়ে মাঝারি আঁচে হালকা করে ভেজে নিতে হবে। ডিমগুলির দুইদিক ভালো করে ভাজা হয়ে গেলে তুলে নিতে হবে।

এর পরে ফোড়নের জন্য দিয়ে দিতে হবে ২টি দারচিনি , ৩টি লবঙ্গ এবং ৩টি এলাচ। ফোড়ন থেকে হালকা সুগন্ধ বেরোতে থাকলে দিয়ে দিতে হবে ২টি মাঝারি আকারের পেয়াঁজ কুচি। এর পরে এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে টুকরো করে কেটে রাখা ১/২ ইঞ্চি আদা এবং ৩টি রসুন। অল্প একটু লবণ দিয়ে ভালো করে পেয়াঁজ ভেজে নিতে হবে যতক্ষণ না পর্যন্ত সেটি নরম হয়ে আসে। অন্যদিকে একটি মিক্সিতে আগে থেকে থেকে ভিজিয়ে রাখা পোস্ত, ১টি কাঁচালঙ্কা ,সামান্য নুন এবং অল্প জল দিয়ে ভালো করে একটা পেস্ট তৈরী করে নিতে হবে। এর পরে কড়াইতে ভাজা পেয়াঁজের মধ্যে দিয়ে দিতে হবে পোস্ত বাটা।

পোস্তর কাঁচা গন্ধ চলে গেলে গিয়ে যখন একটি ক্রিমের মতো রং হবে তখন ভেজে রাখা ডিমের টুকরোগুলোকে দিয়ে দিতে হবে। স্বাদমতো লবণ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। এর মধ্যে হলুদ গুঁড়ো এবং লংকার গুঁড়ো দিয়েও রান্না করা যাবে। তবে এই ক্ষেত্রে ব্যবহার না করলেও স্বাদ হবে দুর্দান্ত। পোস্তর সাথে ডিমগুলিকে ভালো করে মিশিয়ে অল্প একটু জল দিয়ে দিতে হবে।

জল যখন ভালো করে ফুটতে শুরু করবে তখন আঁচটাকে কমিয়ে কড়াইয়ের ঢাকা বন্ধ করে দিতে হবে। ৫ মিনিট এইভাবে রান্না করলেই তৈরী হয়ে যাবে অসাধারণ ডিম পোস্ত।

Categories
লাইফ স্টাইল

সন্ধ্যেবেলা চায়ের সাথে খাওয়ার জন্য বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের ‘এগ ফিঙ্গার’, শিখে নিন রেসিপি

মুখরোচক স্ন্যাকস (Snacks) হিসেবে ফিস ফিঙ্গার বা পটেটো ফিঙ্গার জনপ্রিয় দুই পদ। প্রায় সব জায়গাতেই দোকানে ও রেস্টুরেন্ট এই দুই স্ন্যাকস পাওয়া যায়। আজ আপনাদের সঙ্গে এইরকম এক পদ ‘এগ ফিঙ্গার’-এর (Egg Finger) রেসিপি ভাগ করে নেবো। এই রেসিপি দেখে বাড়িতেই বানানো যাবে ডিম দিয়ে তৈরি দারুণ এই স্ন্যাকস।

•উপকরণ:
১)সাদা তেল
২)আদাবাটা
৩)রসুনবাটা
৪)পেঁয়াজ বাটা
৫)টমেটো বাটা
৬)হলুদ গুঁড়ো
৭)শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো
৮)গোলমরিচ গুঁড়ো
৯)নুন
১০)চিনি
১১)আমচুর পাউডার
১২)কাঁচালঙ্কা কুচি
১৩)পছন্দের সবজি
১৪)ডিম
১৫)জল
১৬) কর্নফ্লাওয়ার
১৭) বিস্কুটের গুঁড়ো

•প্রনালী:

প্রথমেই গ্যাসে কড়াই বসিয়ে পরিমাণ অনুযায়ী সামান্য সাদা তেল দিয়ে গরম করে নিতে হবে। তেল গরম হয়ে গেলে কড়াইয়ে একে একে ১ চামচ গোটা আদাবাটা, ১ চামচ রসুনবাটা, ১ চামচ পেঁয়াজ বাটা, ১ চামচ টমেটো বাটা, ১ চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১/২ শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো, স্বাদ অনুযায়ী গোলমরিচ গুঁড়ো, স্বাদ অনুযায়ী নুন, সামান্য চিনি, স্বাদ অনুযায়ী আমচুর পাউডার, ইচ্ছে অনুযায়ী কাঁচালঙ্কা কুচি দিয়ে সবকিছু খুব ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপরে ইচ্ছে অনুযায়ী পছন্দের সবজি ছোট ছোট কুচি করে কেটে কড়াইয়ে দিয়ে সব মশলার সঙ্গে মেশাতে হবে। মশলা ও সবজি বেশ খানিকক্ষণ সময় নিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে। সবকিছু কষানো হয়ে গেলে তুলে নিয়ে অন্য পাত্রে তুলে রাখতে হবে।

অন্যদিকে, একটি টিফিন কৌটোর মধ্যে সামান্য তেল ব্রাশ করে দিয়ে চারটি ডিম ভেঙে দিয়ে একটু ফেটিয়ে নিতে হবে। এরপরে ডিমের মধ্যে আগে থেকে কষিয়ে রাখা সবজি ও মশলা দিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপরে গ্যাসে একটি পাত্রে বসিয়ে পরিমাণ অনুযায়ী জল দিয়ে গরম করে নিতে হবে। জল ফুটতে শুরু করলে টিফিন কৌটো পাত্রের মধ্যে দিয়ে ২০-২৫ মিনিট রেখে দিতে হবে। এরপর কৌটোর ঢাকা খুলে জমাটবাঁধা ডিমের মিশ্রণ লম্বা ও ছোট টুকরো করে কেটে নিতে হবে। এরপরে প্রত্যেকটি টুকরো প্রথমে কর্নফ্লাওয়ারের গোলায় ডুবিয়ে বিস্কুটের গুঁড়ো মাখিয়ে কোটিং করে নিতে হবে। এবারে গ্যাসে কড়াই বসিয়ে পরিমাণ অনুযায়ী তেল দিয়ে গরম করে নিয়ে প্রত্যেকটি কোটিং করা টুকরো দিয়ে উল্টেপাল্টে লালচে করে ভেজে নিলেই প্রস্তুত হয়ে যাবে দারুণ স্বাদের ‘এগ ফিঙ্গার’।

Categories
লাইফ স্টাইল

ডিমের এই ইউনিক তরকারি বানিয়ে ফেলুন বাড়িতেই, স্বাদ হবে দুর্দান্ত, শিখে নিন রেসিপি

ডিম খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষের জুড়ি মেলা ভার। ডিমের তরকারি যে কোন মাছ মাংসের স্বাদকে হার মানাতে পারে। আজকের এই প্রতিবেদনে এক দুর্দান্ত স্বাদের ঘরোয়া ডিমের তরকারি রেসিপি শেয়ার করা হলো। যা খুব কম সময়ের মধ্যেই আপনি অনায়াসে বানিয়ে নিতে পারেন। আবার দুপুর বেলায় ভাতের পাতে ছোট থেকে বড় সকলেই একেবারে চেটেপুটে খাবে।

উপকরণ :
১) ডিম
২) চিনি
৩) নুন
৪) হলুদ গুঁড়ো
৫) লঙ্কা গুঁড়ো
৬) হলুদ সর্ষে
৭) লাল সর্ষে
৮) পোস্ত
৯) রসুন কোয়া
১০) কাঁচালঙ্কা
১১) টকদই
১২) সর্ষের তেল

প্রণালী :
প্রথমে ডিমগুলোকে ভালো করে ধুয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপর খোসা ছাড়িয়ে সেদ্ধ করা ডিমগুলো অর্ধেক করে কেটে নিন।

এখন কড়াইতে তেল গরম করে নুন, হলুদ ও লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে ডিম গুলোকে ভাল করে ভেজে তুলে নিন। এরপর মিক্সিতে হলুদ সর্ষে, লাল সর্ষে, পোস্ত, কাঁচা লঙ্কা, রসুন কোয়া, নুন জল দিয়ে ভালো করে সবগুলোকে মিশিয়ে পেস্ট করে নিন।

এরপর কড়াইতে পেস্ট করা মশলা গুলো,ফেটিয়ে নেওয়া টকদই, হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো,সর্ষের তেল, জল,নারকেল কুঁচি,স্বাদমত নুন ও চিনি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে ভেজে রাখা ডিমগুলো দিয়ে দিন। তারপর উপর থেকে চেরা কাঁচালঙ্কা অ্যাড করে গ্যাসের ফ্লেম অন করুন।

তারপর পাঁচ মিনিট ধরে ঢেকে রান্না করে নিন। এরপর গরম গরম পরিবেশন করুন লোভনীয় রেসিপিটি।

Categories
লাইফ স্টাইল

সয়াবিন ও ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের এই তরকারি, হাত চাটবে আট থেকে আশি, শিখে নিন রেসিপি

সোয়াবিনের তরকারি অনেকেরই প্রিয়। সোয়া প্রোটিনযুক্ত সোয়াবিন স্বাস্থ্যের জন্যও ভাল।সুন্দরভাবে রান্না করা সোয়াবিন মাংসের স্বাদকেও হার মানিয়ে দিতে পারে। আজকে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি সোয়াবিনের তেমনই এক রেসিপি। যার স্বাদ একদম কষা মাংসের মতো। চলুন এই রেসিপি দেখে নেওয়া যাক।

উপকরণ:
১) সোয়াবিন ১ প্যাকেট
২) গরম জল পরিমাণ মত
৩) নুন পরিমাণ মত
৪) হলুদগুঁড়ো ১/২ চামচ
৫) শুকনো লঙ্কাগুঁড়ো ১/২ চামচ
৬) জিরেগুঁড়ো ১/২ চামচ
৭) রসুনবাটা ২-১/২ চামচ
৮) ডিম ২ টি
৯) তেল পরিমাণমত
১০) আলু ৪ টি
১১) তেজপাতা ২ টি
১২) শুকনোলঙ্কা ২ টি
১৩) এলাচ ৩ টি
১৪) গোটা জিরে ১ চা চামচ
১৫) পেঁয়াজ ৩ টি মাঝারি সাইজের
১৬) আদাবাটা ১ চামচ
১৭) জিরেবাটা ২ চামচ
১৮) ধনেগুঁড়ো ১/২ চামচ
১৯) টকদই ১ চামচ
২০) গরম মশলা গুঁড়ো ১/২ চা চামচ

প্রণালী:
প্রথমে ১ প্যাকেট সোয়াবিন ১০-১৫ মিনিট গরম জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর জল ঝরিয়ে তুলে নিয়ে অন্য এক পাত্রে রাখতে হবে। এবারে সোয়াবিনের মধ্যে একে একে ১ চামচ নুন, ১/২ চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১/২ চামচ শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো, ১/২ চামচ জিরে গুঁড়ো, ১/২ চামচ রসুনবাটা ও দুটো ডিম ভেঙে দিয়ে দিতে হবে। সোয়াবিনগুলোর সাথে ডিম ও মশলা হাত দিয়ে খুব ভালো করে মাখিয়ে নিতে হবে।

এবারে গ্যাসে কড়াই বসিয়ে পরিমাণ অনুযায়ী তেল গরম করে সোয়াবিনগুলো দিয়ে ভেজে নিতে হবে। বেশ কিছুক্ষণ ধরে নেড়েচেড়ে প্রত্যেকটি সোয়াবিন ভালো করে ভাজতে হবে। ভাজা হয়ে গেলে সব সোয়াবিন তেল ঝরিয়ে অন্য পাত্রে তুলে রাখতে হবে। এক‌ই কড়াইয়ে আবার খানিকটা তেল দিয়ে তার মধ্যে চারটে আলু টুকরো করে কেটে দিয়ে দিতে হবে। আলুর টুকরোগুলো লালচে করে ভেজে তুলে নিতে হবে।

এরপর কড়াইয়ে আবার খানিকটা তেল দিয়ে একে একে দুটো তেজপাতা, দুটো শুকনো লঙ্কা, তিনটে থেঁতো করে নেওয়া এলাচ ও ১ চামচ গোটা জিরে দিয়ে খানিকক্ষণ ভেজে নিতে হবে। এবারে কড়াইয়ে তিন-চারটে মাঝারি সাইজের পেঁয়াজ গোল গোল করে কেটে দিয়ে ভেজে নিতে হবে। পেঁয়াজ ভাজা হয়ে গেলে তার মধ্যে ২ চামচ রসুনবাটা, বড়ো ১ চামচ আদাবাটা, ২ চামচ জিরে বাটা, ১/২ চামচ ধনেগুঁড়ো ও ইচ্ছে অনুযায়ী শুকনো লঙ্কাগুঁড়ো দিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে। কিছুক্ষণ নেড়ে নেওয়ার পর স্বাদ অনুযায়ী নুন, কিছু পরিমাণ হলুদগুঁড়ো ও ১ চামচ ফেটানো টকদই মিশিয়ে দিয়ে সবকিছু একসঙ্গে ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে।

সব মশলা ভালো করে কষানো হয়ে গেলে তার মধ্যে আগে থেকে ভেজে রাখা আলুর টুকরো ও সোয়াবিন দিয়ে দিতে হবে। মশলার সাথে ভালো করে মিশিয়ে দিয়ে আরো খানিকক্ষণ সব একসাথে কষিয়ে নিতে হবে। ২-৩ মিনিট কষিয়ে নেওয়ার পর জল দিয়ে ১০-১৫ মিনিট ঢাকা দিয়ে রেখে রান্না করে নিতে হবে। তবে জল কিন্তু খুব বেশি দেওয়া যাবে না, গ্রেভি মাখো মাখো হবে। এরপর নামানোর আগে ১ চামচ গরম মশলাগুঁড়ো মিশিয়ে দিতে হবে। ব্যস, তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে দারুণ স্বাদের ডিম দেওয়া সোয়াবিনের কারি। যা ভাত ও রুটি বা পরোটার সাথে খেতে দারুণ লাগে।

Categories
লাইফ স্টাইল

এইভাবে ডিমের তরকারি বানালে স্বাদ হবে দুর্দান্ত, হাত চাটবে আট থেকে আশি, শিখে নিন রেসিপি

ডিম (Egg) ভালোভাবে রান্না করা হলে তা অনেক সময়েই মাছ-মাংসের স্বাদকেও হার মানিয়ে দেয়। বিভিন্ন বাড়িতে বিভিন্ন ধরণের ডিমের পদ রান্না করা হয়। কিন্তু আজ আপনাদের সঙ্গে এমন এক অভিনব ডিমের তরকারির রেসিপি ভাগ করে নেবো যা স্বাদে হবে একদম আলাদা ও দুর্দান্ত। চলুন তাহলে দেখে নেওয়া যাক অভিনব ‘বেগমতি ডিমের তরকারি’-র রেসিপি।

•উপকরণ:
১)ডিম
২)তেল
৩)এলাচ
৪)দারুচিনি
৫)পেঁয়াজ কুচি
৬)আদা-রসুনবাটা
৭)ধনেপাতা কুচি
৮)কাঁচালঙ্কা
৯)দুধ
১০)কাজুবাদামবাটা
১১)নুন
১২)ধনে গুঁড়ো
১৩)জিরে গুঁড়ো
১৪)কসৌরি মেথি
১৫)জল
১৬)গরম মশলা গুঁড়ো

•প্রনালী:

প্রথমেই পাঁচটা ডিম সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এরপরে প্রত্যেকটি ডিম ছুরি দিয়ে হালকা হাতে চিরে নিতে হবে। এবারে গ্যাসে কড়াই বসিয়ে ৩-৪ চামচ তেল দিয়ে গরম করে নিয়ে তার মধ্যে ফোড়ন হিসেবে দুটো এলাচ ও ২-৩ টুকরো দারুচিনি দিয়ে কয়েক সেকেন্ড নেড়ে নিতে হবে।

এরপর কড়াইয়ে একটি মাঝারি সাইজের পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা লালচে করে ভেজে নিতে হবে। পেঁয়াজ ভাজা হয়ে গেলে তার মধ্যে ১/২ চামচ আদা-রসুনবাটা দিয়ে ২-৩ মিনিট কষিয়ে নিতে হবে। এবারে কড়াইয়ে আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা ডিম দিয়ে ভালো করে ভেজে নিতে হবে।

অন্যদিকে, একটি পাত্রে কিছু পরিমাণ ধনেপাতা কুচি ও তিন-চারটি গোটা কাঁচালঙ্কা গরম জলে খানিকক্ষণ ভিজিয়ে রেখে জল ঝরিয়ে মিক্সার গ্রাইন্ডারে‌ দিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। এছাড়াও, দুধের মধ্যে কিছু পরিমাণ কাজুবাদামবাটা দিয়ে পেস্ট তৈরি করে রাখতে হবে। এবারে কড়াইয়ে প্রথমে দুধ ও কাজুবাদামের পেস্ট দিয়ে খানিকক্ষণ নেড়ে নিতে হবে। তারপর ধনেপাতা ও কাঁচালঙ্কার পেস্ট দিয়ে আবারও সব একসাথে মিশিয়ে নাড়তে হবে।

এবারে কড়াইয়ে একে একে স্বাদ অনুযায়ী নুন, ১/২ চামচ ধনে গুঁড়ো ও ১/২ চামচ জিরে গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে কষিয়ে নিতে হবে। মশলা ও ডিম কষানো হয়ে গেলে তার মধ্যে ১ চামচ কসৌরি মেথি দিয়ে আরো ১ মিনিট সব একসাথে নেড়ে নিতে হবে।

এরপর সামান্য জল ও ১ চামচ গরম মশলা গুঁড়ো মিশিয়ে দিয়ে ২-৩ মিনিট রান্না করে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে অভিনব ‘বেগমতি ডিমের তরকারি’।

Categories
লাইফ স্টাইল

ডিম ও আলু দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের এই তরকারি, হার মানাবে মাছ মাংসের স্বাদকেও, রইল রেসিপি

বাড়িতে বানানো ডিমের তরকারি (Egg Curry) অনেকেরই প্রিয় খাদ্যের তালিকায় রয়েছে। ডিম ভালোভাবে রান্না করলে মাংসের স্বাদকেও হার মানিয়ে দিতে পারে। আজকে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি ডিমের তেমনই এক রেসিপি। ডিমের সাথে আলু ব্যবহার করে এইভাবে রান্না করলে স্বাদ হবে একদম কষা মাংসের মতো। চলুন তাহলে অভিনব এই ‘ডিম-আলুর ধোঁকা’-র রেসিপি দেখে নেওয়া যাক।

•উপকরণ:
১) আলু
২) জল
৩) ডিম
৪) নুন
৫) হলুদ গুঁড়ো
৬) শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো
৭) পেঁয়াজ কুচি
৮) ধনেপাতা কুচি
৯) আদা-রসুনবাটা
১০) বেসন
১১) তেল
১২) গোটা জিরে
১৩) গ্রেট করা আদা-রসুন
১৪) টমেটো পিউরি
১৫) জিরে গুঁড়ো
১৬) ধনে গুঁড়ো
১৭) চিনি
১৮) গরম মশলা গুঁড়ো

•প্রনালী:
প্রথমেই দুটো মাঝারি সাইজের আলু ভালো করে জল দিয়ে ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এরপরে গ্রেটারে ঘষে দুটি আলুই মিহি করে গ্রেট করে নিতে হবে। এবারে গ্রেট করে নেওয়া আলু ধুয়ে জল ঝরিয়ে তার মধ্যে দুটো ডিম ভেঙে দিয়ে দিতে হবে। এক‌ইসঙ্গে আলু ও ডিমের মধ্যে একে একে স্বাদ অনুযায়ী নুন, সামান্য হলুদ গুঁড়ো, ১/২ চামচ শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো, একটি মাঝারি সাইজের পেঁয়াজ কুচি, কিছু পরিমাণ ধনেপাতা কুচি ও ১/২ চামচ আদা-রসুনবাটা দিয়ে সবকিছু খুব ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে।

এরপরে ওই মিশ্রণের মধ্যে ২-৩ চামচ বেসন দিয়ে আবারও মেশাতে হবে। এবারে গ্যাসে ফ্রাইং প্যান বসিয়ে ২-৩ চামচ তেল দিয়ে গরম করে নিতে হবে। তেল গরম হয়ে গেলে আলু ও ডিমের মিশ্রণ ফ্রাইং প্যানে দিয়ে অমলেটের মতো করে উল্টেপাল্টে ভেজে নিতে হবে। আলু ও ডিমের অমলেট ভাজা হয়ে গেলে তুলে অন্য পাত্রে রাখতে হবে। এরপর গ্যাসে অন্য কড়াই বসিয়ে কিছু পরিমাণ তেল দিয়ে গরম করে নিতে হবে। তেল গরম হয়ে গেলে তার মধ্যে প্রথমে ১/২ চামচ গোটা জিরে ও তারপর একটি পেঁয়াজ কুচি দিয়ে খানিকক্ষণ নেড়ে নিতে হবে। পেঁয়াজ ভাজা হয়ে গেলে কড়াইয়ে ১/২ চামচ গ্রেট করে নেওয়া আদা-রসুন দিয়ে আবার নাড়াচাড়া করে নিতে হবে।

এরপর কড়াইয়ে একটি টমেটোর পিউরি দিয়ে বেশ খানিকক্ষণ সময় নিয়ে সবকিছুর সঙ্গে মেশাতে হবে। এবারে একে একে ১/৪ চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১/৪ চামচ শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো, ১/২ চামচ জিরে গুঁড়ো, ১/২ চামচ ধনে গুঁড়ো, স্বাদ অনুযায়ী নুন, ১/২ চামচ চিনি ও সামান্য জল দিয়ে সব মিশিয়ে মশলা ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে। মশলা কষানো হয়ে গেলে কড়াইয়ে পরিমাণ অনুযায়ী জল দিয়ে ঢাকা দিয়ে রেখে ফুটিয়ে নিয়ে ঝোল প্রস্তুত করে নিতে হবে। অন্যদিকে, আলু ও ডিমের অমলেট ছুরি দিয়ে ধোঁকার আকারে কেটে নিতে হবে। ঝোল ফোটার সময়ে কড়াইয়ে ধোঁকার টুকরো ও ১/২ গরম মশলা গুঁড়ো মিশিয়ে দিয়ে কড়াই ঢাকা দিয়ে রেখে রান্না করে নিতে হবে। ব্যস, তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে দারুণ স্বাদের অভিনব ‘ডিম-আলুর ধোঁকা’।

Categories
লাইফ স্টাইল

এইভাবে ডিমের ডেভিল বানালে স্বাদ হবে দুর্দান্ত, হাত চাটবে আট থেকে আশি, শিখে নিন রেসিপি

‘ডিমের ডেভিল’ (Egg Devil) বাঙালিদের প্রিয় এক খাবার। বিভিন্ন অনুষ্ঠান বাড়ি বা দোকান থেকে কিনে সাধারণত এই খাবার খাওয়া হয়। আজ আপনাদের সঙ্গে এই প্রতিবেদনে ভাগ করে নেবো ‘ডিমের ডেভিল’-এর রেসিপি। এই রেসিপি দেখে আপনারা বাড়িতেই যখন খুশি এই মুখরোচক খাবার বানিয়ে নিতে পারবেন।

উপকরণ:
১) হাঁসের ডিম
২) রসুন
৩) আদা
৪) কাঁচালঙ্কা
৫) পেঁয়াজ
৬) তেল
৭) মাটন কিমা
৮) হলুদ গুঁড়ো
৯) কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো
১০) জিরে গুঁড়ো
১১) ধনে গুঁড়ো
১২) শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো
১৩) নুন
১৪) গোটা ধনে
১৫) গোটা জিরে
১৬) দারুচিনি
১৭) ছোট এলাচ
১৮) তেজপাতা
১৯) শুকনো লঙ্কা
২০) আলু
২১) ধনেপাতা কুচি
২২) ব্রেড ক্রাম্বস
২৩) গোলমরিচ গুঁড়ো
২৪) কর্নফ্লাওয়ার
২৫) ময়দা

প্রণালী:
প্রথমেই পনেরোটি হাঁসের ডিম সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এই পুরো রেসিপি পনেরোটি ডিম অনুযায়ী বর্ণনা করা হবে, আপনারা নিজেদের ইচ্ছেমতো উপকরণের পরিমাণ কমিয়ে-বাড়িয়ে নেবেন। ডিমের খোসা ছাড়ানো হয়ে গেলে একটি পাত্রে রেখে দিতে হবে। এরপরে মিনি হ্যান্ড চপারে ২০ কোয়া রসুন, দেড় ইঞ্চি আদা, ইচ্ছে অনুযায়ী গোটা কাঁচালঙ্কা দিয়ে একসাথে কুচিয়ে নিতে হবে। এরপরে ওই চপারেই চারটে পেঁয়াজ দিয়ে এ‌ক‌ইভাবে কুচিয়ে নিতে হবে। তবে আপনারা চাইলে ছুরি বা অন্যকিছু ব্যবহার করেও সবকিছু কুচোতে পারেন।

এবারে গ্যাসে কড়াই বসিয়ে ৩-৪ চামচ তেল দিয়ে গরম করে নিতে হবে। তেল গরম হয়ে গেলে তার মধ্যে পেঁয়াজ কুচি ও রসুন-আদা-কাঁচালঙ্কা কুচি দিয়ে ৫-৬ মিনিট নেড়ে নিতে হবে। এবারে কড়াইয়ে ৩৫০-৪০০ গ্রাম মাটন কিমা দিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে। এখানে মাটন কিমার বদলে চিকেন কিমাও ব্যবহার করা যেতে পারে। এবারে ১ চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চামচ কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো, ১ চামচ জিরে গুঁড়ো, ১/২ চামচ ধনে গুঁড়ো, ১ চামচ শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো ও স্বাদ অনুযায়ী নুন কড়াইয়ে দিয়ে আবারও ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। গ্যাসের আঁচ মাঝারি রেখে সবকিছু একসাথে ১০-১২ মিনিট ধরে কষিয়ে নিতে হবে। কষানোর পরে গ্যাসের আঁচ কম করে কড়াই কিছুক্ষণ ঢাকা দিয়ে রেখে মাটন কিমা সেদ্ধ করে নিতে হবে।

অন্যদিকে, ফ্রাইং প্যানে ২ চামচ গোটা ধনে, ১.৫ চামচ গোটা জিরে, ২ টুকরো দারুচিনি, তিনটি ছোট এলাচ, একটি তেজপাতা ও চারটে গোটা শুকনো লঙ্কা দিয়ে ড্রাই রোস্ট করতে হবে। সব গোটা মশলা নামিয়ে কিছুক্ষণ ঠান্ডা করে নেওয়ার পর মিক্সার গ্রাইন্ডারে‌ দিয়ে গুঁড়ো করে নিতে হবে। অপরদিকে, কিমা কষানো হয়ে গেলে তার মধ্যে চারটে আলু সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে দিয়ে ম্যাশার দিয়ে ভেঙে নিতে হবে। আলু ম্যাশ করা হয়ে গেলে সবকিছু আবার খুব ভালো করে মেশাতে হবে। এরপর আগে থেকে ড্রাই রোস্ট করে গুঁড়ো করে নেওয়া মশলা কড়াইয়ে আলু ও কিমার মধ্যে দিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে। একদম শেষে কিছু পরিমাণ ধনেপাতা কুচি এই পুরের মধ্যে মিশিয়ে দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ঠান্ডা করে নিতে হবে।

এবারে সুতো দিয়ে আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা প্রত্যেকটি ডিম অর্ধেক করে কেটে নিতে হবে। প্রত্যেকটি ডিমের অর্ধেক অংশের চারপাশ এরপর পুর দিয়ে মুড়িয়ে দিতে হবে। এরপর একটি মিক্সিং বোলে পরিমাণ অনুযায়ী ব্রেড ক্রাম্বস, ১ চামচ নুন ও ১ চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো মিশিয়ে নিতে হবে। অন্য একটি পাত্রে ৪ চামচ কর্নফ্লাওয়ার, ২ চামচ ময়দা, ১/২ চামচ নুন, ১/২ চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো ও পরিমাণ অনুযায়ী জল মিশিয়ে পাতলা ব্যাটার তৈরি করে রাখতে হবে। এরপর একটি করে ডেভিল প্রথমে ব্যাটার, তারপরে ব্রেড ক্রাম্বস, তারপরে আবার ব্যাটার ও তারপরে আবার ব্রেড ক্রাম্বসে দিয়ে কোটিং করে নিতে হবে। এইভাবেই প্রত্যেকটি ডেভিল‌ই ডাবল কোটিং করতে হবে। এবারে গ্যাসে কড়াই বসিয়ে পরিমাণ অনুযায়ী তেল দিয়ে গরম করে নিতে হবে। তেল গরম হয়ে গেলে গ্যাসের আঁচ মাঝারি রেখে তিন-চারটি করে ডেভিল কড়াইয়ে দিয়ে ভেজে নিতে হবে। সোনালী-বাদামি রঙ না আসা পর্যন্ত প্রত্যেকটি ডিমের ডেভিল খুব ভালো করে হালকা হাতে উল্টেপাল্টে ভাজতে হবে। এরপর তেল ঝরিয়ে তুলে নিলেই প্রস্তুত হয়ে যাবে দারুণ স্বাদের ‘ডিমের ডেভিল’।

Categories
লাইফ স্টাইল

ডিমের এই ইউনিক তরকারি বানিয়ে ফেলুন বাড়িতেই, স্বাদ হবে দুর্দান্ত, শিখে নিন রেসিপি

ডিম (Egg) খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষের জুড়ি মেলা ভার। এমন অনেকেই আছেন যাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় ডিম থাকবেই থাকবে। কিন্তু প্রতিদিন ডিমের একই রকম পদ খেতে কারোরই ভালো লাগে না। তাই আজকের এই প্রতিবেদনে একটু অন্যরকম স্বাদের ‘ডিম মাশালা’র রেসিপি শেয়ার করা হলো, যা খেতে যেমন সুস্বাদু তেমনি ছোট থেকে বড় সকলেই দুপুরবেলায় ভাতের পাতে অথবা রাত্রে রুটি দিয়ে অনায়াসেই খেতে পারবে।

উপকরণ :
১) ডিম
২) পেঁয়াজ কুঁচি
৩) খোসা ছাড়ানো বাদাম
৪) নুন
৫) টকদই
৬) তেল
৭) বড় এলাচ
৮) তেজপাতা
৯) দারচিনি
১০) আদা বাটা
১১) জিরে গুঁড়ো
১২) ধনে গুঁড়ো
১৩) হলুদ গুঁড়ো
১৪) শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো
১৫) টমেটো কুঁচি
১৬) কাঁচালঙ্কা কুঁচি
১৭) ধনেপাতা কুঁচি

প্রণালী :
প্রথমে সামান্য পরিমাণ নুন দিয়ে ডিমগুলো ভালোভাবে সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এরপর একটি ফ্রাইং প্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুঁচিগুলো ভালো করে ভেজে বেরেস্তা তৈরি করে নিতে হবে। তারপর টক দই ও বাদাম বাটার মিশ্রণ বানিয়ে নিতে হবে।

এরপর একটা ছুরি দিয়ে সেদ্ধ ডিমের উপরিভাগ অল্প করে চিরে নিয়ে হালকা করে ভেজে নিতে হবে।

তারপর আবার কড়াইতে তেল দিয়ে তাতে একে একে তেজপাতা, বড় এলাচ, দারচিনি, পেঁয়াজ কুচি, আদা বাটা, হলুদ গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, শুকনো লঙ্কাগুঁড়ো, টমেটো কুচি, স্বাদমতো নুন দিয়ে ভালো করে নেড়ে চেড়ে কষিয়ে নিতে হবে।

এরপর আগে থেকে ব্লেন্ড করে রাখা টক দই ও বাদামের পেস্ট দিয়ে আরো কিছুক্ষণ ভালো করে নেড়ে নিয়ে কষিয়ে নিতে হবে। তারপর পরিমাণমতো জল অ্যাড করে তিন চার মিনিটের মতো ফুটিয়ে নিতে হবে। এরপর এতে ওপর থেকে ভেজে রাখা ডিম, ধনেপাতা কুঁচি,কাঁচালঙ্কা কুঁচি ছড়িয়ে দু মিনিটের জন্য রান্না করে নিতে হবে।

এরপর গরম গরম পরিবেশন করুন জিভে জল আসা এই অনন্য স্বাদের রেসিপিটি।

Categories
লাইফ স্টাইল

এইভাবে ডিমের তরকারি রান্না করলে স্বাদ হবে দুর্দান্ত, হাত চাটবে আট থেকে আশি, শিখে নিন রেসিপি

ডিম (Egg) খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষের জুড়ি মেলা ভার। এমন অনেকেই আছেন যাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় ডিম থাকবেই থাকবে। কিন্তু প্রতিদিন ডিমের একই রকম পদ খেতে কারোরই ভালো লাগে না। তাই আজকের এই প্রতিবেদনে একটু অন্যরকম স্বাদের ‘ডিম মাশালা’র রেসিপি শেয়ার করা হলো, যা খেতে যেমন সুস্বাদু তেমনি ছোট থেকে বড় সকলেই দুপুরবেলায় ভাতের পাতে অথবা রাত্রে রুটি দিয়ে অনায়াসেই খেতে পারবে।

উপকরণ :
১) ডিম
২) পেঁয়াজ কুঁচি
৩) খোসা ছাড়ানো বাদাম
৪) নুন
৫) টকদই
৬) তেল
৭) বড় এলাচ
৮) তেজপাতা
৯) দারচিনি
১০) আদা বাটা
১১) জিরে গুঁড়ো
১২) ধনে গুঁড়ো
১৩) হলুদ গুঁড়ো
১৪) শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো
১৫) টমেটো কুঁচি
১৬) কাঁচালঙ্কা কুঁচি
১৭) ধনেপাতা কুঁচি

প্রণালী :
প্রথমে সামান্য পরিমাণ নুন দিয়ে ডিমগুলো ভালোভাবে সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এরপর একটি ফ্রাইং প্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুঁচিগুলো ভালো করে ভেজে বেরেস্তা তৈরি করে নিতে হবে।

তারপর টক দই ও বাদাম বাটার মিশ্রণ বানিয়ে নিতে হবে। এরপর একটা ছুরি দিয়ে সেদ্ধ ডিমের উপরিভাগ অল্প করে চিরে নিয়ে হালকা করে ভেজে নিতে হবে।

তারপর আবার কড়াইতে তেল দিয়ে তাতে একে একে তেজপাতা, বড় এলাচ, দারচিনি, পেঁয়াজ কুচি, আদা বাটা, হলুদ গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, শুকনো লঙ্কাগুঁড়ো, টমেটো কুচি, স্বাদমতো নুন দিয়ে ভালো করে নেড়ে চেড়ে কষিয়ে নিতে হবে। এরপর আগে থেকে ব্লেন্ড করে রাখা টক দই ও বাদামের পেস্ট দিয়ে আরো কিছুক্ষণ ভালো করে নেড়ে নিয়ে কষিয়ে নিতে হবে।

তারপর পরিমাণমতো জল অ্যাড করে তিন চার মিনিটের মতো ফুটিয়ে নিতে হবে। এরপর এতে ওপর থেকে ভেজে রাখা ডিম, ধনেপাতা কুঁচি,কাঁচালঙ্কা কুঁচি ছড়িয়ে দু মিনিটের জন্য রান্না করে নিতে হবে।

এরপর গরম গরম পরিবেশন করুন জিভে জল আসা এই অনন্য স্বাদের রেসিপিটি।

Categories
লাইফ স্টাইল

ডিম ও বেগুন দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের এই রেসিপি, শিখে নিন রেসিপি

রোজকার একঘেয়ে ম্যেনুতে একটু পরিবর্তন আনলে সবারই ভাল লাগে। তাই নিত্য নতুন রেসিপির খোঁজে থাকি আমরা সবাই। বেগুন আর ডিম দিয়ে তৈরী এমনই একটি অন্যরকম রেসিপি আজ শেয়ার করব। চলুন দেখে নিই কিভাবে এই রান্নাটি করতে হবে।

উপকরণ:
১.বেগুন ১টি
২.নুন স্বাদমতো
৩.হলুদ গুঁড়ো ১ চামচ
৪.রসুন বাটা ১ চামচ
৫.আদা বাটা ১/২ চামচ
৬. ২টি ছোট পেঁয়াজ কুচি
৭. ১ টি ছোট টমেটো কুচি
৮.লঙ্কা গুঁড়ো ১/২ চামচ
৯.ডিম ১টি
১০.গরম মসলা গুঁড়ো ১/২ চামচ
১১.সরষের তেল ৫ চামচ

প্রণালী:
প্রথমেই একটি বেগুনকে গোল গোল করে কেটে স্বাদমতো নুন ও হলুদ গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে।

একটা ডিম ফাটিয়ে একটা পাত্রে সামান্য নুন দিয়ে ভালভাবে ফেটিয়ে নিতে হবে। এরপর কড়াইতে সরষের তেল গরম করে বেগুনগুলো একে একে ফেটানো ডিমে চুবিয়ে ভেজে তুলে নিতে হবে।

তারপর ওই তেলেই ১ চামচ রসুন বাটা, ১/২ চামচ আদা বাটা, ২ টা পেঁয়াজ কুচি, ১ টা টমেটো কুচি ও সামান্য নুন দিয়ে কিছুক্ষণ ভাজা ভাজা করে নিতে হবে।

এরপর হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে আবারও কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে তেল ছেড়ে এলে অল্প জল দিতে হবে।

তারপর সামান্য গরম মসলা গুঁড়ো দিয়ে নাড়াচাড়া করে বেগুনগুলো দিয়ে মিনিট দুয়েক রান্না করে নিলেই একেবারে তৈরি ডিম বেগুনের এই অসাধারণ রেসিপিটি। গরম গরম ভাত বা রুটির সঙ্গে লাঞ্চ বা ডিনারে পরিবেশন করুন।