April 12, 2024

এই সপ্তাহের শুরুতে কিছুটা স্বস্তিতে সোনার ক্রেতারা। দুর্গাপূজার আগে হলুদ ধাতুর মূল্য কমে গিয়ে অনেকটাই নাগালের মধ্যে চলে এসেছে মধ্যবিত্তদের । কারণ বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দিয়েই মূলত শুরু হবে বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ। বঙ্গ নারীদের কাছে নতুন গয়নায় সেজে ওঠার সময় এই উৎসবই।

আগের সপ্তাহে সোনার দামের ঊর্ধ্বপতন অনেকটাই চিন্তায় ফেলে দিয়েছিল সবাইকে। কিন্তু এই সপ্তাহের শুরুতে অনেকটাই দাম কমেছে সোনার। গতকাল অর্থাৎ রবিবার ২২ ক্যারেট সোনার ১০ গ্রামের মূল্য ছিল ৪৮,৭০০ টাকা। আজকে অর্থাৎ সোমবার তা ২,০৫০ টাকা কমে হয়েছে ৪৬,৬৫০ টাকা। অন্যদিকে ২৪ ক্যারেট পাকা সোনার গতকালের মূল্য ছিল ৫১,৩৫০ টাকা যা কমে বর্তমানে হয়েছে ৫০,৮৯০ টাকা । সোনার সঙ্গে রুপোর দামও গতকালের তুলনায় কমেছে । গতকাল প্রতি কেজি রুপোর বাটের মূল্য ছিল ৫৩,২০০ টাকা। আজকে প্রতি কেজি রুপোর মূল্য হয়েছে ৫২,৫০০ টাকা।

আন্তর্জাতিক বাজারের উপরে অনেকটাই নির্ভর করে দেশীয় বাজারে সোনার এবং রুপোর মূল্য। করোনার সময় সোনার মূল্য একসময় আকাশছোঁয়া হয়েছিল। অগাস্ট মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে ২২ ক্যারেট সোনার মূল্য হয়েছিল ৫৬,২০০ টাকা। এই মূল্যকেই এখনো পর্যন্ত রেকর্ড দর বলে ধরা হয়েছে। গতকাল সোনার দামের মূল্য রেকর্ড দরের থেকে ৭,৫০০ টাকা কম ছিল। আজকে হলুদ ধাতুর মূল্য রেকর্ড দরের থেকে ৯,৫৫০ টাকা কমেছে। এই কারণে চিন্তার ভাঁজ সরে গিয়ে কপালে হাসি ফুটেছে ক্রেতাদের।