June 19, 2024

সম্প্রতি ‘বাদাম কাকু’ ভুবন বাদ্যকারের (Bhuban Badyakar) সাথে এক ভিডিওতে দেখতে পাওয়া গিয়েছে ‘মাছ কাকু’ বলে পরিচিত কুশল বাদ্যকারকে (Kushal Badyakar)। বর্তমান যুগের এই দুই সেনসেশনকে একসাথে দেখতে পেয়ে স্বভাবতই বেশ উচ্ছসিত নেটিজেনরা।

জীবিকা নির্বাহের জন্য সাইকেলে করে বাদাম বিক্রি করতেন বীরভূমের দুবরাজপুরের বাসিন্দা ভুবন বাদ্যকার। তাঁর গাওয়া ‘কাঁচা বাদাম’ (Kacha Badam) গানটি জনপ্রিয় হয়ে যাওয়ার পরে রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। তাঁর এই গানটির জনপ্রিয়তা একসময় দেশ কালের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশেও ছড়িয়ে পড়েছিল। কিছুদিন আগে নিজের একক অ্যালবামও প্রকাশিত হয়েছিল তাঁর। অন্যদিকে পশ্চিম বর্ধমানের মাছ ব্যবসায়ীর ক্ষেত্রেও একইরকম ঘটনা ঘটেছে। মাছ বিক্রি করার সময় কুশলবাবু ক্রেতাদের উদ্দেশ্যে যে গান করতেন একসময় সেই গানই তাঁকে প্রচারের আলোয় নিয়ে এসেছিল। কিছুদিন আগে কুশলবাবুও নিজের একটি গানের অ্যালবাম প্রকাশ করার সুযোগ পেয়েছেন।

আরবিএইচ ক্রিয়েশন (RBH CREATION ) নামে ইউটিউব চ্যানেল থেকে যে ভিডিওটি বর্তমানে বেশ ভাইরাল হয়েছে তাতে এই দুই শিল্পীকে একসাথে নিজেরদের মতো করে সময় কাটাতে দেখা গিয়েছে। এমনকি জমাটি আড্ডার সাথে তাঁরা একসাথে গান বাজনাও করেছেন । গানের কারণেই তাঁদের খ্যাতি আর গানের জন্যই তাঁদের কাছাকাছি আসা বলে জানিয়েছেন এই দুই শিল্পী। বর্তমানে প্রজন্মের এই গায়কদের একসাথে গান গাইতে দেখে অনুরাগীরা যে বেশ আনন্দিত সেটা ভিডিওটির লাইকস এবং কমেন্টস থেকেই বোঝা গিয়েছে। গানের পাশাপাশি বর্তমানে ভুবনবাবু যাত্রা পালার সাথেও জড়িত। ‘খোকাবাবুর খেলাঘর’ নামে যাত্রাপালাতে তাঁকে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। যাত্রার কারণেই দেউল পার্কে এসেছিলেন ভুবনবাবু। সেইখানেই তাঁর সাথে দেখা করতে হাজির হয়েছিলেন কুশলবাবু।

সোশ্যাল মিডিয়ার কারণে অনেক অনামী কিন্তু প্রতিভাবান শিল্পীরা পরিচিতি পায়। তাই প্রতিভা বিকাশের মঞ্চ হিসাবে এইসব শিল্পীদের কাছে সামাজিক মাধ্যমই সবচেয়ে বড়ো ভরসার জায়গা হয়ে উঠেছে। ইন্টারনেট এবং মুঠোফোনের যুগলবন্দিতে এইভাবেই আগামী দিনেও খ্যাতি পাবে বাদাম কাকু কিংবা মাছ কাকু অথবা ভিন্ন পেশার কোন মানুষ।