Categories
লাইফ স্টাইল

ত্বক হবে দুধের মতো ধবধবে ফর্সা, বাড়িতে বানিয়ে মেখে ফেলুন এই ফেয়ারনেস ক্রিম

দৈনন্দিন জীবনে সুন্দর, নিখুঁত,ফর্সা, মাখন এর মতো মোলায়েম ত্বক যেকোনো নারীরই চাহিদা। কিন্তু বাজারে নামিদামি ফেয়ারনেস ক্রিম ব্যবহার করেও অনেক সময় আমাদের ত্বকের বিভিন্ন রকমের সমস্যা দেখা যায়। কিন্তু আমরা হয়তো অনেকেই জানিনা রান্নাঘরে থাকা সামান্য কয়েকটি উপাদানের সাহায্যে এক ম্যাজিক্যাল ক্রিম বানানো যায়। এটি যদি আপনি প্রতিদিন রাত্রে শোওয়ার আগে মুখে লাগিয়ে ঘুমাতে যান তাহলে অল্প সময়ের মধ্যেই আপনার ত্বকের সমস্ত রকম সমস্যা দূর হবে এবং একটি নিখুঁত মাখনের মতো মোলায়েম ত্বক আপনি উপহার পাবেন ।

ঘরে এই ক্রিমটি (Beauty Tips) বানানোর জন্য প্রথমেই নিতে হবে তিন টেবিল চামচ আলুর রসের স্টার্চ। এছাড়া দিতে হবে তিনটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল, এক চামচ টমেটোর রস, দু টেবিল চামচ পাতি লেবুর রস এবং ৫ টেবিল চামচ এলোভেরা জেল।

এই ক্রিমটি বানানোর জন্য প্রথমেই একটি মাঝারি মাপের আলু আপনি ভালোভাবে গ্রেট করে নিন। এরপর ওই গ্রেট করা আলু থেকে ভালোভাবে চিপে রস বের করে নিতে হবে। রস কিছুক্ষণ রেখে দিলেই দেখবেন তলায় সাদা পুরু স্টার্চ জমা হয়েছে। এরপর উপর থেকে রসটা না নিয়ে ভিতর থেকে তলায় জমা পুরু স্টার্চটা আপনাকে নিতে হবে। এরপর সেই স্টার্চ এর সাথে একে একে দু চামচ পাতি লেবুর রস ,এক চামচ টমেটো রস এবং ৫ চামচ এলোভেরা জেল ভালোভাবে মিশিয়ে নিলেই দেখবেন মিশ্রণটি একটি ক্রিমের আকার ধারণ করছে।

এরপর প্রতিদিন রাতে শুতে যাওয়ার সময় সামান্য নুন জলে একটি তোয়ালে ভিজিয়ে ভালোভাবে মুখ পরিষ্কার করে নিন। মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার হয়ে গেলে আঙ্গুলের সাহায্যে অল্প পরিমাণ ওই ক্রিম নিয়ে ভালোভাবে সারা মুখে মেখে নিয়ে শুয়ে পড়ুন। মাত্র ৭ দিনের ব্যবহারেই আপনি এর উপকারিতা বুঝতে পারবেন।

Categories
লাইফ স্টাইল

ত্বক হবে দুধের মত ধবধবে ফর্সা, বাড়িতে বানিয়ে মেখে ফেলুন বেসনের এই ফেসপ্যাক

বর্তমান যুগে দূষণের কারণে ত্বকের সমস্যা একটা খুব সাধারণ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। ত্বককে সুস্থ ও সুন্দর রাখার জন্য কিছু না করলে নানান ধরণের ত্বকের অসুখ হওয়াও অসম্ভব নয়। অথচ ঘরোয়া কিছু সাধারণ জিনিস ব্যবহার করেই ত্বকের যত্ন নেওয়া সম্ভব। ত্বকের যত্নের জন্য বাজারের দামী প্রোডাক্ট ব্যবহার করার দরকার নেই।

বেসন আমাদের সবার রান্নাঘরে থাকে। আপনার ত্বকের সমস্যায় ব্যবহার করতে পারেন বেসন। খুব বেশি টাকা খরচ না করেই আপনার ত্বক হয়ে যেতে পারে ভীষণ সুন্দর। তাই বেসনের এই প্যাকটি অবশ্যই একবার ব্যবহার করে দেখুন। আপনার ত্বককে একেবারে পাল্টে দেবে। আপনার ত্বক ভীষণ মোলায়েম হয়ে উঠবে। আপনি ভাবতেও পারবেন না বাজারচলতি ক্রিম যা করতে পারে না বেসন তাই করে দেখাবে। সামান্য টাকা খরচ করলেই বেসন কিন্তু আপনাকে পরিবর্তন এনে দেবে।

বেসনের সাথে টকদই খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। প্রতিদিন স্নানে যাওয়ার আগে খুব ভালো করে মুখে, পিঠে, গলায় অথবা সারা গায়ে ভালো করে ঘষে লাগান। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন আপনার ত্বক কত সুস্থ হয়ে গেছে।

বেসনের সঙ্গে খুব ভাল করে মিশিয়ে নিন কফি পাউডার। এর সাথে পরিমাণমত দুধ ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি খুব ভাল স্ক্রাবারের কাজ করে। সপ্তাহে দুদিন এই স্ক্রাব ব্যবহার করলেই যথেষ্ট। ত্বকের জেল্লা ফিরে আসবে।

বেসনের সঙ্গে মধু খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি স্নানে যাওয়ার আগে ভালো করে মুখে লাগিয়ে নিন। সপ্তাহে তিন দিন করলেই যথেষ্ট। মধু ত্বককে মোলায়েম করে তুলবে।

Categories
বিনোদন লাইফ স্টাইল

Aishwarya Rai Bachchan: ৪৮ বছরেও কমেনি গ্ল্যামার, ফাঁস হল ঐশ্বর্যর স্কিন কেয়ার রুটিন

ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দরী মহিলা বলে মনে করা হয়। ১৯৯৪ সালে বিশ্ব সুন্দরী খেতা জয়ের হওয়ার পর কেটে গিয়েছে অনেক বছর। অথচ ঐশ্বর্য যেন দিনে দিনে আরও সুন্দরী হয়ে উঠছেন। এহেন সুন্দরীর সৌন্দর্যের আসল রহস্যটা কী?

ঐশ্বর্য রাই এখন পুরোদস্তুর সংসারী। অভিষেক বচ্চনের সাথে বিয়ের পর কন্যা আরাধ্যাকে জন্ম দিয়েছেন তিনি। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার সময় ও তারপরেও বেশ কিছুদিন ঐশ্বর্য ওজন বেড়ে গিয়েছিল। এই কারণে তিনি ট্রোলড হয়েছিলেন। অন্তস্বত্তা হওয়ার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল চুল। অনেক চুল পড়ে যায় তাঁর। তবে আবারও ধীরেধীরে নিজের ওজন ঝরিয়েছেন ঐশ্বর্য। পাশাপাশি নিজের সৌন্দর্য রেখেছেন অটুট। ঐশ্বর্যর বিউটি সিক্রেট কি তা নিয়ে জিজ্ঞাসার শেষ নেই মহিলাদের।

আগে ঐশ্বর্য তাঁর চুলে শুধুই নারকেল তেল গরম করে লাগাতেন। কিন্তু অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার সময় তাঁর প্রচুর চুল পড়ে যায়। এজন্য তিনি নারকেল তেলের সাথে কিছুটা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে রাখেন সারারাত। সকালে উঠে শ্যাম্পু করে চুল ধুয়ে ফেলেন। এর ফলে তাঁর চুল পরিষ্কার থাকে এবং খুশকি হয় না।

এছাড়া প্রতিদিন ত্বকের যত্ন নেন তিনি। নিয়মিত ত্বক ক্লিনজার দিয়ে পরিষ্কার করেন ঐশ্বর্য। বাড়িতে তৈরি ফেসপ‍্যাক দিয়ে ত্বক পরিষ্কার রাখেন তিনি। বহুদিন ধরেই বেসন, দুধ ও হলুদের মিশ্রণ দিয়ে তৈরি একটি ফেসপ‍্যাক ব্যবহার করেন ঐশ্বর্য। এই ফেসপ‍্যাকটি ত্বককে এক্সফোলিয়েট করার পাশাপাশি উজ্জ্বল করে তোলে। এরপর মধু ও টক দই-এর মিশ্রণ দিয়ে ত্বককে ম্যাসাজ করেন ঐশ্বর্য। এটি ত্বককে হাইড্রেটেড রাখে। একটি সাক্ষাৎকারে ঐশ্বর্য জানিয়েছিলেন, তিনি ত্বকের যত্ন নিতে অ্যারোমাথেরাপির উপর ভরসা করেন। এর ফলে তাঁর মনও ভালো থাকে। এছাড়াও ঐশ্বর্য ভিটামিন সমৃদ্ধ সবুজ শাক-সব্জি খেতে পছন্দ করেন। প্রতিদিন পান করেন প্রচুর পরিমাণে জল। নিজের মেয়ে আরাধ্যাকেও পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খাওয়াতে ভোলেন না।

Categories
লাইফ স্টাইল

Skin Care Tips: দুধের মতো ধবধবে ফর্সা হবে ত্বক, বাড়িতে বানিয়ে মেখে ফেলুন এই ফেসপ্যাক

আমাদের ত্বক একটি সংবেদনশীল জায়গা। গ্রীষ্মকালে অতিরিক্ত সূর্যের তাপে ও প্রচন্ড ধুলোবালি ময়লা ইত্যাদির কারণে আমাদের ত্বকের উপরে অনেক চাপ পড়ে। সারাদিন নানান ব্যস্ততার কারণে ত্বকের সেই ভাবে যত্ন নেওয়া যায়না। কিন্তু যদি অন্তত দিনে একবার এই প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন, তাহলে কিন্তু আপনার ত্বক সুন্দর ও উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। দুধের মতন ফর্সা হয়ে যাবেন আপনি। তাই আর দেরি না করে চটজলদি দেখে ফেলুন এই অসাধারণ ফেসপ্যাকটি যা আপনার ত্বককে করে তুলবে ভিতর থেকে উজ্জ্বল।

টকদই এবং পাতিলেবু এই দুই পদার্থের মধ্যে রয়েছে প্রাকৃতিক অ্যাসিড। যা ত্বকের জন্য খুব উপকারী। এই দুটি জিনিস একসাথে ব্যবহার করতে পারেন বা আলাদা আলাদাভাবেও ব্যবহার করতে পারেন।

ফেসপ্যাকটি তৈরী করার জন্য অল্প টকদইয়ের মধ্যে সামান্য পরিমাণে পাতিলেবুর রস, সামান্য আলুর রস ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর এই মিশ্রণটি মুখে গলায় ভালো করে লাগিয়ে অন্তত ১০ মিনিটের জন্য রেখে দিতে হবে। দশ মিনিট পরে জল দিয়ে মুখ, গলা ভালভাবে ধুয়ে ফেলুন। ধোয়ার সময় হাত দিয়ে ভালো করে ঘষে ঘষে ধুতে হবে যাতে ত্বক পুরোপুরি পরিষ্কার হয়ে যায়।

টকদই ও লেবুর রসের এই প্যাকটি এক সপ্তাহ প্রতিদিন ব্যবহার করুন। এক সপ্তাহের মধ্যেই ত্বকের পরিবর্তন লক্ষ্য করবেন। ধীরে ধীরে দেখবেন আপনার ত্বক উজ্জ্বল এবং সুন্দর হয়ে উঠছে। ত্বকের উপরের কালো দাগ একদম সহজেই দূর হয়ে যাবে। এছাড়া আলুর রস প্রাকৃতিক ব্লিচিংয়ের কাজ করে। আমরা অনেক সময় পার্লারে গিয়ে ব্লিচ করি কিন্তু আমরা জানি না আলুর রসের মধ্যে প্রচুর ক্ষমতা গায়ের রঙ পরিষ্কার করার। তাই এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করলে সুফল পাবেন হাতে নাতে। গায়ের রঙ হয়ে উঠবে উজ্জ্বল ফর্সা কিছুদিনের মধ্যেই। একবার ফেসপ্যাকটি ট্রাই করেই দেখুন না। ভরসা রাখুন ঠকবেন না।

Categories
লাইফ স্টাইল

প্রিয়াঙ্কার মতো গ্লোয়িং স্কিন পেতে মেনে চলুন এই ৫টি টিপস

Lifestyle দৈনন্দিন জীবনে রূপচর্চা নিয়ে মেয়েরা সাধারণত খুবই চিন্তিত থাকে। কিভাবে কোন পদ্ধতিতে রূপচর্চা করলে ঝকঝকে নিখুঁত চেহারা পাওয়া যায়, এই নিয়ে সর্বক্ষণই চুলচেরা বিশ্লেষণ চলে মহিলামহলে। তবে রূপচর্চায় ঘরোয়া পদ্ধতির কোন তুলনা নেই। বাইরে থেকে কেনা কেমিক্যাল স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট এর থেকে ঘরোয়া এই সমস্ত রূপচর্চাগুলি খুবই কার্যকরী হয়। তাই আজও অনেক অভিনেত্রী এই সমস্ত ঘরোয়া টোটকা মেনে চলেন। তাঁদের মধ্যে একজন হলেন বলিউডের খ্যাতনামা অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

আমরা কমবেশি অনেকে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সুন্দর ফিগার এবং তরতাজা ত্বক (Glowing Skin) নিয়ে আলোচনা করে থাকি। অত্যন্ত ব্যস্ততম জীবন অতিবাহিত করলেও তিনি খুব সুন্দরভাবে নিজেকে মেনটেইন করে চলেন। অভিনেত্রী তাঁর রূপের জৌলুস ধরে রাখতে বরাবর ঘরোয়া ও আয়ুর্বেদিক রূপচর্চার ওপর বিশ্বাস রাখেন। আজকের এই প্রতিবেদনে অভিনেত্রীর তরফ থেকে রইল বেশ কিছু ঘরোয়া উপাদানের রূপচর্চার টিপস:-

১) জলপান করুন :-

গ্লোয়িং স্কিনের একমাত্র রহস্য হলো পর্যাপ্ত পরিমাণে জল পান। আমাদের প্রত্যেকের প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ গ্লাস জল খাওয়া উচিত। এছাড়া দরকার পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমের ও যোগাসনের। ঘুম থেকে উঠে প্রতিদিন তিন গ্লাস জল, তার মধ্যে এক গ্লাস উষ্ণ জল পান করা উচিত। কারণ জল আমাদের শরীরের থেকে সমস্ত টক্সিক উপাদান শোষণ করে নেয়।

২) চিন্তামুক্ত থাকুন :-

আমাদের শরীর এবং ত্বক সুন্দর রাখার জন্য সবসময় টেনশন ফ্রি থাকা উচিত। তার জন্য নিয়মিত যোগাসনের দরকার।

৩) ভেষজ চা :

হলুদ, আদা,লবঙ্গ, গোলমরিচ, তুলসী পাতা ,পুদিনা পাতা, যষ্টিমধু ফুটিয়ে ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ এবং ডিনারের পর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যুক্ত ভেষজ চা পান করুন।

৪) ক্লিনজিং টোনিং ময়েশ্চারাইজিং :-

এই তিনটি ধাপ মেনে চলা আবশ্যিক। ক্লিনজিংয়ের জন্য দুধ, মধু, টোনিং এর জন্য গোলাপজল ,শসার রস অথবা গ্রিন টি এবং ময়েশ্চারাইজিং এর জন্য দুধের সর এবং এলোভেরা জেল অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

৫) ফেসপ্যাক :-

বেসন, টক দই, দুধের সর,কাঁচা হলুদ ,চালের গুঁড়ো, কফি পাউডার ইত্যাদি দিয়ে ঘরোয়া পদ্ধতিতে সপ্তাহে অন্তত তিন দিন ফেসপ্যাক মাখতে হবে।

Categories
লাইফ স্টাইল

Skin Care Tips: বাড়িতে বসেই ত্বকের জেল্লা বাড়াতে মেনে চলুন বাবা রামদেবের সহজ টিপস

যোগগুরু রামদেব এখন বিশ্ববিখ্যাত। তাঁর যোগ ও আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় অনেকেই নবজীবন লাভ করেছেন। ত্বকের যত্নের জন্যও তিনি দিয়েছেন নানান টিপস যেগুলি মেনে চললে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল ও কোমল।

রামদেবের প্রথম পরামর্শ ত্বক রাখতে হবে পরিষ্কার। এজন্য একটি পরিষ্কার তোয়ালে নিয়ে জলে ভিজিয়ে ভালোভাবে মুখ ঘষে পরিষ্কার করুন। তবে খুব জোরে বা বেশি ঘষবেন না। এইভাবে আপনার ত্বকের উপরে থাকা মরাকোষ সহজে দূর হয়ে যাবে।রামদেবের দ্বিতীয় পরামর্শ ত্বক সুন্দর রাখতে মাখতে হবে অ্যালোভেরা জেল। সেইসঙ্গে নিয়মিত খালি পেটে জলের সাথে মিশিয়ে যদি অ্যালোভেরার রস খাওয়া যায় তাহলে ত্বক হয়ে উঠবে ভিতর থেকে পরিষ্কার, উজ্জ্বল ও সুন্দর। রামদেবের তৃতীয় পরামর্শ রোজ বেসনের সাথে টকদই মিশিয়ে মুখে, গলায়, পিঠে ভালো করে মাখতে পারলে ত্বক হবে উজ্জীবিত, ভিতর থেকে সুন্দর।

তবে রামদেবের মতে, শুধুমাত্র উপর থেকে লাগালেই নয়। নিয়মিত যোগাভ্যাস করতে হবে। কপালভাতি প্রাণায়াম করতে হবে। কপালভাতি প্রাণায়াম করলে আপনি অন্তর থেকে উজ্জ্বল হয়ে উঠবেন।

তাহলে আর দেরী নয়, নানান ধরণের ক্রিম ও ফেসপ্যাকের পিছনে খরচ না করে প্রাচীণ আয়ুর্বেদ ও যোগ পদ্ধতিতে নিজের ত্বককে করে তুলুন উজ্জ্বল।