Categories
লাইফ স্টাইল

এইভাবে ঢেঁড়স রান্না করলে স্বাদ হবে দুর্দান্ত, হার মানাবে মাছ মাংসের স্বাদকেও, শিখে নিন রেসিপি

প্রত্যেকদিন রুটি,পরোটা ও লুচির কি তরকারি পরিবেশন করা যায় তা নিয়ে ভাবনায় থাকেন বাড়ির গিন্নীরা। মরশুমি সবজি দিয়ে যদি বানানো যায় সুস্বাদু তরকারি তাহলে সবাই খুশি হয়ে খায়। তাই আজ আপনাদের বলবো ‘আলু ঢেঁড়সের’ তরকারি। যা রুটি-পরোটার বা লুচির সঙ্গে খাওয়া যায়। চলুন তবে দেখে নেওয়া যাক কীভাবে বানাবেন এই সহজ রেসিপিটি।

উপকরণ:
১. ঢেঁড়স ৩০০ গ্রাম
২.মাঝারি সাইজের ৩ টে সেদ্ধ আলু
৩.পেঁয়াজ কুচি
৪.আদাবাটা ১/২ চামচ
৫.রসুনবাটা ১/২ চামভ
৬.লঙ্কাবাটা ১/২ চামচ
৭.গোটা জিরে ১/৪ চা চামচ
৮.শুকনোলঙ্কা ১ টি
৯.টমেটোকুচি ১ টি ছোট
১০. জিরেগুঁড়ো ১/২ চা চামচ
১১.ধনেগুঁড়ো ১/২ চা চামচ
১২.লঙ্কাগুঁড়ো ১/২ চা চামচ
১৩.হলুদ ১/২ চা চামচ
১৪. নুন স্বাদমতো
১৫.চিনি স্বাদমতো
১৬.কসুরি মেথি ১/২ চা চামচ
১৭.গরমমসলা গুঁড়ো ১/২ চা চামচ
১৮. সরষের তেল

প্রণালীঃ

প্রথমেই কড়াইতে ২ টেবিল চামচ সরষের তেল দিয়ে আস্ত ঢেঁড়সগুলিকে ভেজে নিতে হবে। এরপর ওই তেলের মধ্যেই ১টা শুকনো লঙ্কা, ১/৪ চা চামচ গোটা জিরে ও ১ টা বড় সাইজের কুচনো পেঁয়াজ দিয়ে ভালো করে ভেজে নিতে হবে। এরপর ওর মধ্যেই মাঝারি সাইজের একটি টমেটোকুঁচি দিয়ে ভালো করে নেড়ে এরপর আদা, রসুন ও কাঁচালঙ্কা বাটা দিয়ে দিতে হবে। এরপর মসলাটা অল্প নাড়াচাড়া করে ১ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, ১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১/২ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, সামান্য কাশ্মীরি রেড চিলি পাউডার ও সামান্য জল দিয়ে মসলাটাকে ভালো করে কষিয়ে নিতে হবে। এই সময়ই নুন ও চিনি দিয়ে দিতে হবে। এরপর মসলা কষে তেল ছাড়লে এর মধ্যে কসুরি মেথি দিতে হবে। এরপর সেদ্ধ করে রাখা আলু হাত দিয়ে চটকে তেলের উপরে দিতে হবে। মসলার সঙ্গে আলুসেদ্ধকে খুব ভালভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। এইবারে ভেজে রাখা ঢেঁড়সগুলো দিয়ে দিতে হবে। ঢেঁড়সগুলিকে এরপর ভালো করে মসলার সাথে মিশিয়ে নিয়ে কড়ায় পরিমান মতো জল দিয়ে দিতে হবে।

এবারে মিনিট পাঁচেক রান্না করে নিয়ে নামানোর আগে গরম মসলাগুঁড়ো ছড়িয়ে নিলেই তৈরী ‘আলু ঢেঁড়সের তরকারি’। গরম গরম ভাত বা রুটির সাথে পরিবেশন করুন এই অনন্য স্বাদের পদটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.