Categories
লাইফ স্টাইল

গরম ভাতের সাথে খাওয়ার জন্য বানিয়ে ফেলুন ডিম মাসালা, একবার খেলে বারবার খেতে ইচ্ছে করবে

ডিম (Egg) খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষের জুড়ি মেলা ভার। এমন অনেকেই আছেন যাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় ডিম থাকবেই থাকবে। কিন্তু প্রতিদিন ডিমের একই রকম পদ খেতে কারোরই ভালো লাগে না। তাই আজকের এই প্রতিবেদনে একটু অন্যরকম স্বাদের ‘ডিম মাশালা’র রেসিপি শেয়ার করা হলো, যা খেতে যেমন সুস্বাদু তেমনি ছোট থেকে বড় সকলেই দুপুরবেলায় ভাতের পাতে অথবা রাত্রে রুটি দিয়ে অনায়াসেই খেতে পারবে।

উপকরণ :
১) ডিম
২) পেঁয়াজ কুঁচি
৩) খোসা ছাড়ানো বাদাম
৪) নুন
৫) টকদই
৬) তেল
৭) বড় এলাচ
৮) তেজপাতা
৯) দারচিনি
১০) আদা বাটা
১১) জিরে গুঁড়ো
১২) ধনে গুঁড়ো
১৩) হলুদ গুঁড়ো
১৪) শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো
১৫) টমেটো কুঁচি
১৬) কাঁচালঙ্কা কুঁচি
১৭) ধনেপাতা কুঁচি

প্রণালী :
প্রথমে সামান্য পরিমাণ নুন দিয়ে ডিমগুলো ভালোভাবে সেদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এরপর একটি ফ্রাইং প্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুঁচিগুলো ভালো করে ভেজে বেরেস্তা তৈরি করে নিতে হবে।

তারপর টক দই ও বাদাম বাটার মিশ্রণ বানিয়ে নিতে হবে। এরপর একটা ছুরি দিয়ে সেদ্ধ ডিমের উপরিভাগ অল্প করে চিরে নিয়ে হালকা করে ভেজে নিতে হবে।

তারপর আবার কড়াইতে তেল দিয়ে তাতে একে একে তেজপাতা, বড় এলাচ, দারচিনি, পেঁয়াজ কুচি, আদা বাটা, হলুদ গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, শুকনো লঙ্কাগুঁড়ো, টমেটো কুচি, স্বাদমতো নুন দিয়ে ভালো করে নেড়ে চেড়ে কষিয়ে নিতে হবে। এরপর আগে থেকে ব্লেন্ড করে রাখা টক দই ও বাদামের পেস্ট দিয়ে আরো কিছুক্ষণ ভালো করে নেড়ে নিয়ে কষিয়ে নিতে হবে।

তারপর পরিমাণমতো জল অ্যাড করে তিন চার মিনিটের মতো ফুটিয়ে নিতে হবে। এরপর এতে ওপর থেকে ভেজে রাখা ডিম, ধনেপাতা কুঁচি,কাঁচালঙ্কা কুঁচি ছড়িয়ে দু মিনিটের জন্য রান্না করে নিতে হবে।

এরপর গরম গরম পরিবেশন করুন জিভে জল আসা এই অনন্য স্বাদের রেসিপিটি।