Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

খোলা আকাশের নীচে দুর্দান্ত অঙ্গভঙ্গিতে অসাধারণ নাচ সুন্দরী যুবতীর, রইল ভিডিও

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে জনপ্রিয় হিন্দি গান ‘ছাম্মা ছাম্মা’ (Chamma Chamma) তে উমা মীনাক্ষী (Uma Minakshi) নামে একজন বিমানসেবিকার দুর্দান্ত নাচের ভিডিও। নেটিজেনরা বেশ মুগ্ধ হয়েছেন তাঁর নাচ দেখে।

১৯৯৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল রাজকুমার সন্তোষী (Rajkumar Santoshi) পরিচালিত ‘চায়না গেট’ (China Gate) সিনেমাটি। এই সিনেমারই বিখ্যাত গান এটি। সমগ্র গানটি দৃশ্যায়িত হয়েছিল অভিনেত্রী উর্মিলা মাতণ্ডকর (Urmila Matondkar) উপরে। সিনেমার বাকি কলাকুশলীদের এই গানে দেখতে পাওয়া গেলেও মূল আকর্ষণ ছিলেন উর্মিলা। তাঁর নৃত্য দক্ষতায় গানটি সেইসময় খুব জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। সেই বিখ্যাত গানেই পা মেলালেন এই বিমানসেবিকা।

কথায় বলে ‘যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে’। সেই কথাই প্রমান করে দিল এই বিমান সেবিকাটি। নিজের পেশাগত গন্ডির বাইরে বেরিয়ে একেবারে অন্য ভূমিকায় ধরা দিয়েছেন তিনি । ইতিমধ্যে তাঁর নাচের কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরালও হয়েছেন । ভাইরাল ভিডিওটিতে বিমান সেবিকার পরনে ছিল বটল গ্রিন রঙের শর্ট স্কার্ট এবং কালো রঙের টি শার্ট। বর্ষার মরসুমে বাড়ির ছাদের উপরে এই গানে দুর্দান্ত নৃত্য পরিবেশন করেছেন তিনি। তবে এই প্রথমবার নয়। এর আগেও ইনস্টাগ্রামে বিভিন্ন নাচের রিলস আপলোড করে নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছেন। তাঁর নাচের প্রতিটা স্টেপ এবং প্রকৃতির অপূর্ব শোভার মেলবন্ধনে সমগ্র ভিডিওটি বেশ মনোগ্রাহী হয়ে উঠেছে। কিছুদিন আগে ভিডিওটি আপলোড করা হলেও এর লাইকস এবং কমেন্টস ইতিমধ্যে বেশ ঈর্ষণীয় জায়গায় পৌঁছেছে। ৪৪ হাজারের উপরে মানুষ ভিডিওটিকে পছন্দ করেছেন এবং হাজারের উপরে মানুষ কমেন্টে উমার নাচের প্রশংসা করেছেন।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by UMA MEENAKSHI (@yamtha.uma)

সোশ্যাল মিডিয়ার কারণে বর্তমানে ভিন্ন পেশার অনেক মানুষের একেবারে অন্য রূপও ধরা পরে সবার সামনে। চিরাচরিত রূপের থেকে অন্য রূপে তাঁদের দেখতে পেয়ে সবাই বেশ আনন্দিত হন। এইভাবেই ইন্টারনেট এবং মুঠোফোনের যুগলবন্দিতে প্রতিদিনই সামাজিক মাধ্যম আরো বেশি করে সবার কাছে অনায়াসে পৌঁছে যাচ্ছে।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

গ্রাম্য পরিবেশে রাজস্থানী গানে দুর্দান্ত অঙ্গভঙ্গিতে অসাধারণ নাচ সুন্দরী বালিকার, রইল ভিডিও

জনপ্রিয় রাজস্থানি গান ‘তু কালী নাগিন সে’ (Tu Kali Nagin Se) এর রিমিক্স ভার্শনে নাচ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাক লাগিয়ে দিলেন এক গ্রাম্য যুবতী। তাঁর অসাধারণ নৃত্যভঙ্গিমায় মজেছেন নেটিজেনরা।

গত ৬ মাস আগে ‘রাসেল ড্যান্স বিডি’ (Rasel Dance Bd) নামে ইউটিউব চ্যানেল থেকে ভিডিওটি আপলোড হওয়ার পরে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। ভাইরাল ভিডিওটিতে সোনু খুদানিয়ার (Sonu Khudaniya) অ্যালবাম ‘তু কালী নাগিন সে’ থেকে নেওয়া হয়েছে গানটি। ভিডিওটিতে যুবতীটির পরনে ছিল লাল রঙের লেহেঙ্গা চোলি। মানানসই মেকাপ, খোলা চুল এবং লাল রঙের লিপস্টিকে যুবতীটিকে এককথায় খুব সুন্দর লেগেছে। তার উপরে তাঁর এইরকম মনোগ্রাহী উপস্থাপনা এক আলাদা মাত্রা যোগ করেছে। যুবতীটির নাচের মঞ্চ ছিল গ্রাম্য রাস্তা। চারিদিকের সুন্দর গ্রামের দৃশ্যের সাথে তাঁর এই নাচটি যথাযথ মনে না হলেও যুবতীটির অসাধারণ দক্ষতার কারণে খুব সহজেই দর্শকদের মনে ধরেছে। বর্তমানে ভিডিওটির ভিউস সংখ্যা বেশ ভালো জায়গায় পৌঁছেছে। ৮৩ লক্ষ মানুষ ইতিমধ্যে দেখেছেন ভিডিওটি। ৪০ হাজারের উপরে মানুষ পছন্দ করেছেন ভিডিওটিকে। কমেন্টসে বেশিরভাগ নেটিজেনরাই প্রশংসা করেছেন যুবতীটির। এইরকম প্রশংসাসূচক মন্তব্যই আগামী দিনে এইরকম আরো নাচের ভিডিও তৈরী করতে অনুপ্রাণিত করবে যুবতীকে।

বর্তমানে আগের কোন গানের রিমিক্স ভার্সনে নাচ করার প্রবণতা মানুষের মধ্যে বৃদ্ধি পেয়েছে। এইরকম ড্যান্স কভারগুলি নেটিজেনরা বেশ পছন্দও করছেন। এইভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে অনেক অনামী শিল্পীরা বর্তমানে বেশ পরিচিতি পাচ্ছেন। নিজেদের প্রতিভা প্রকাশের মঞ্চ হিসেবে সামাজিক মাধ্যমকে ব্যবহার করে এইসব অনামী শিল্পীরা পরিচিতির পাশাপাশি অর্থ উপার্জনের সুযোগও পান।

Categories
ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

প্রকাশ্য রাস্তায় সুপারহিট হিন্দি গানে দুর্দান্ত নাচ তিন সুন্দরী যুবতীর, নেটদুনিয়ায় প্রশংসার ঝড়

সবুজ প্রকৃতির মাঝে জনপ্রিয় হিন্দি গান ‘বরষো রে’ গানের সাথে তিন সুন্দরী যুবতীর অসাধারন নাচ নেটিজেনদের মুগ্ধ করল। তাঁদের নাচের ভিডিও নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার (Social Media) মাধ্যমে নানান প্রতিভারা উঠে আসছেন। যুব সম্প্রদায় এই সোশ্যাল মিডিয়াকে মাধ্যম করেই তাঁদের প্রতিভাকে দর্শকদের সামনে তুলে ধরছেন। এর মাধ্যমে তাঁরা জনপ্রিয়তা ও অর্থ দুইই পাচ্ছেন। সম্প্রতি এমনি একটি নাচের ভিডিও আপলোড করে নেটমহলে নিজেদের জনপ্রিয় করে তুললেন তিন যুবতী।

ইউটিউবের এক জনপ্রিয় নাচের চ্যানেল ওয়ান স্টপ ডান্স ‘One Stop Dance’,। এই চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা পাঁচ লাখ একাত্তর হাজার। সম্প্রতি এই চ্যানেলের এক ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এই ভিডিওতে প্রখ্যাত গায়িকা শ্রেয়া ঘোষালের গাওয়া ‘বরষো রে’ (Barso Re) গানের সঙ্গে তিন সুন্দরী নেচেছেন। খোলা পরিবেশে রাস্তায় তাঁরা নেচেছেন। ভিডিওতে প্রত্যেকেই গোলাপি রঙের কুর্তি, ফ্লোরাল প্রিন্টেড সাদা পাটিয়ালা ও সাদা ওড়না পরেছিলেন। তাঁদের চুল ছিল খোলা। মুখে ছিল হালকা মেকআপ। তাঁদের কোরিওগ্রাফি ছিল দারুণ। এনার্জি লেভেল ছিল চূড়ান্ত। সবমিলিয়ে তাঁদের প্রাণবন্ত নাচ দেখে নেটিজেনরা মুগ্ধ হয়েছেন। গানের তালে তালে তাঁদের একসাথে করা দক্ষ স্টেপস সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। তিন সুন্দরী যুবতীর এই নাচের ভিডিওটির ভিউজ সংখ্যা ৮.৯ মিলিয়নের গণ্ডি পার করে ফেলেছে। কমেন্ট বক্স উপচে পড়েছে নেটিজেনদের প্রশংসা বাক্যে।

আজকের যুগে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে সাধারণ মানুষ তার প্রতিভা দেখানোর একটা মঞ্চ পেয়েছে। এই সুযোগের সদব্যবহার করে অনেকেই সাফল্য পাচ্ছেন। তিন যুবতীর ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে সেই কথাই আবার প্রমাণ করল।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

সবুজ প্রাকৃতির মাঝে অসাধারণ অঙ্গভঙ্গিতে নাচ সুন্দরী বৌদির, ভাইরাল ভিডিও

অরিজিৎ সিংয়ের (Arijit Singh) গাওয়া ‘কেন পিছু ডাকো আমারে তুমি’ (Keno Pichu Dako Amare Tumi) গানে অসাধারণ নৃত্য পরিবেশন করে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন চিত্রায়ণ (Chitrayan) নৃত্যগোষ্ঠীর শিল্পী তৃনা মন্ডল (Trina Mondal) ।

লতা মঙ্গেশকর (Lata Mangeshkar) এবং হেমন্ত মুখার্জির (Hemanta Mukherjee) গাওয়া ‘দে দোল দোল’ (De Dol Dol Dol) গানটিকে নিজের মতো করে এক অনুষ্ঠানে গেয়ে হাজার হাজার দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন গায়ক অরিজিৎ। বর্তমানে আসল গানের থেকে শিল্পীর গাওয়া এই গানটি মানুষকে আনন্দ দিচ্ছে বেশি। অরিজিতের এই গানটিকে নিয়ে নতুন চিন্তাভাবনা যেমন দর্শকদের আনন্দ দিয়েছে তেমনি এই গানে তৃনার নাচ দর্শকদের মনে ধরেছে। বেশ কিছুদিন ধরেই চিত্রায়ন গোষ্ঠীর নৃত্যশিল্পীদের নাচ সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হচ্ছে। তৃনার নাচও এর ব্যতিক্রম হয়নি। সবুজ মাঠের মধ্যে শিল্পীর এই নাচ সত্যি মনোমুগ্ধকর। হলুদ এবং কালো রঙের শাড়িতে তৃনাকে দেখতে যেমন সুন্দর লেগেছে তেমন তাঁর কোরিওগ্রাফিও ছিল দুর্দান্ত। স্টুডিওর পরিবর্তে প্রাকৃতিক পরিবেশের মধ্যে নাচটি দেখতে আরো ভালো লেগেছে।

তৃনা একজন দক্ষ নৃত্যশিল্পী। নাচের প্রতিটা স্টেপেই তার প্রমান দিযেছেন তিনি। নাচের সাথে সাথে তাঁর মুখের অভিব্যক্তিও ছিল প্রশংসনীয়। চিত্রায়ণ গোষ্ঠী খুব অল্প সময়ের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের আলাদা একটা পরিচিতি বানিয়ে নিয়েছে। এই গোষ্ঠীর প্রতিটা শিল্পীর নাচের দক্ষতা অসাধরণ। সেই কারণে সব ভিডিও বেশ ভালো পরিমানে ভিউস এবং লাইকস পেয়েছে। ইতিমধ্যে দেড় হাজারের উপরে নেটিজেনরা এই ভিডিওটিকে লাইক করেছেন। কমেন্টে প্রত্যেকেই তৃনার এই দারুন উপস্থাপনার প্রশংসা করেছেন।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

বন পাহাড়ি সাজে, জনপ্রিয় লোকসঙ্গীতের তালে দুর্দান্ত নাচ সুন্দরী যুবতীর, রইল ভিডিও

বর্তমান যুব সম্প্রদায় সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে নাচ,গান আবৃত্তি আঁকা ইত্যাদি বিভিন্ন রকমের প্রতিভা সকলের সামনে মেলে ধরছেন। তার ফলে খুব সহজেই জনপ্রিয়তা অর্জন করা যায়। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব।

অনেকেই নৃত্য পরিবেশন করে বেশ নাম করেছে ইউটিউবের সাহায্যে। কারণ দর্শকরা নতুন প্রতিভার নাচ দেখতে চায়। যেমন ‘সুর সাধনা কেন্দ’ নামের এক ইউটিউব চ্যানেল থেকে সুন্দরী যুবতীর নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। তাঁর অপূর্ব সুন্দর নৃত্য দিয়ে মন জয় করে নিয়েছে দর্শকদের।

ভাইরাল সেই ভিডিওতে দেখা গেল খোলা পরিবেশে সবুজ মাঠে কখনো বা জলাশয়ের ধারে সুন্দরী সেই যুবতী নাচছেন। পরনে সাদা ও বিভিন্ন রঙের তাঁতের শাড়ি ও নীল ব্লাউজ। সাথে মানানসই মেকআপ ও চুল বেঁধে রঙিন ফুল গুঁজেছেন। এই সাজে তাঁকে দেখতে খুব ভাল লাগছিল। অসাধারণ নৃত্য শৈলীতে নেটিজেনরা মুগ্ধ। তাঁর সাজ সম্পূর্ণ সাঁওতালি মহিলার ছিল। যা এই গানের সাথে মানিয়েছে খুব সুন্দর।

গায়ক অরিজিৎ চক্রবর্তীর গাওয়া বাংলা লোকগান ‘বন পাহাড়ির সাজে’তে নেচেছেন সুন্দরী যুবতী সুস্মিতা। ‘সুর সাধনা কেন্দ্র’ ইউটিউব চ্যানেল থেকে এই ভিডিওটি মাত্র এক দিন আগে পোস্ট করা হয়েছে। তার মধ্যেই ছয় হাজারের বেশি দর্শক দেখেছেন ভিডিওটি। সাথেই সবাই সুস্মিতার নাচের ভীষণ প্রশংসা করেছেন। কেউ লিখেছেন ‘খুব সুন্দর হয়েছে’। আবার কেউ বলেছেন ‘অসাধারন সুন্দর একটি ভিডিও দেখলাম। আমার কাছে খুবই চমৎকার লাগলো।’ এই চ্যানেলের মাধ্যমেই আপনি অনায়েসেই আরও সুন্দর সুন্দর সব নাচের ভিডিও দেখতে পাবেন।

আজকের যুগে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে সাধারণ মানুষ তার প্রতিভা দেখানোর একটা মঞ্চ পেয়েছে। এই সুযোগের সদব্যবহার করে অনেকেই সাফল্য পাচ্ছেন। সুস্মিতার ভিডিওটি সেই কথাই আবার প্রমাণ করল।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

জনপ্রিয় বাংলা গানে দুর্দান্ত অঙ্গভঙ্গিতে অসাধারণ নাচ মৌ সুন্দরীর, রইল ভিডিও

‘ডান্স স্টার মৌ’ (Dance Star Mou)-এর নাচ আবারও নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াকে (Social Media) বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে অধিকাংশ মানুষ‌ই বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে যেমন ব্যবহার করছেন, তেমনই একদল মানুষ সোশ্যাল মিডিয়াকে নিজেদের প্রতিভা বিকাশের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করছেন। কেউ নিজের নাচ বা গান বা কবিতা বা আঁকা প্রভৃতি বিভিন্ন ধরণের প্রতিভা অন্যদের সামনে ভিডিওর আকারে ইন্টারনেটের মাধ্যমে তুলে ধরতে সক্ষম হচ্ছেন।

কারোর পোস্ট করা কনটেন্ট অর্থাৎ ভিডিও যদি নেটিজেনদের পছন্দ হয় তবে সেই ব্যক্তি খুব সহজেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। তাঁর পোস্ট করা প্রত্যেকটি ভিডিওই কম-বেশি ভাইরাল হতে থাকে। এমনভাবে নেটদুনিয়ায় অনেকেই রাতারাতি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে সর্বাধিক পরিমাণে দেখতে পাওয়া যায় বিভিন্ন বয়সী মেয়েদের বিভিন্ন ধরণের নাচের ভিডিও। পশ্চিমবঙ্গের এমনই একজন জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া স্টার মৌমিতা বিশ্বাস। তিনি নিজের ইউটিউব চ্যানেল ‘ডান্স স্টার মৌ’ (Dance Star Mou) থেকে বিভিন্ন ধরনের গানের সঙ্গে নিয়মিত নাচের ভিডিও পোস্ট করে থাকেন।

সম্প্রতি আবারও মৌমিতা বিশ্বাস নামক ওই সুন্দরী যুবতীর জনপ্রিয় বাংলা সিনেমা ‘চিরদিন‌ই তুমি যে আমার’ সিনেমার গান ‘ঝিরি ঝিরি স্বপ্ন ঝরে’- (Jhiri Jhiri Sopno Jhore) গানের সাথে নাচের ভিডিও নেটিজেনদের মুগ্ধ করেছে। বাহারি রঙের ফুলের ডিজাইন করা গাঢ় সবুজ রঙের লং-স্কার্ট, পিঠকাটা লাল ব্লাউজ, হাতভর্তি রুপোলি চুড়ি, গলায় পাতলা চেন ও কানে ঝোলা দুল পরে সুন্দর করে সেজে তিনি ক্যামেরার সামনে উপস্থিত হয়েছেন। সবুজ গাছপালাঘেরা এক মাঠের মধ্যে দাঁড়িয়ে মৌ সুন্দরীর দারুণ দারুণ সুন্দর স্টেপস, প্রাণবন্ত নাচ, দুর্দান্ত কোরিওগ্রাফি ও মন কেড়ে নেওয়া এক্সপ্রেশন সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টি শেষে, আধুনিক বাংলা গানে সবুজ প্রকৃতির মাঝে দুর্দান্ত নৃত্য পরিবেশন সুন্দরী যুবতীর, রইল ভিডিও

বর্তমান যুব সম্প্রদায় সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে নাচ,গান আবৃত্তি আঁকা ইত্যাদি বিভিন্ন রকমের প্রতিভা সকলের সামনে মেলে ধরছেন। তার ফলে খুব সহজেই জনপ্রিয়তা অর্জন করা যায়। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব। ইউটিউব চ্যানেল ডান্স স্টার মৌ থেকে আপলোড করা জনপ্রিয় গান ‘ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টি শেষে’ গানের সাথে নাচের একটি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছে মৌয়ের অনন্য নৃত্য পরিবেশনা।

ওয়ান্টেড ছবির জনপ্রিয় গান ‘ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টি শেষে’ গানে নাচ করেছেন মৌ। তার পরনে ছিল জংলা ছাপা স্কার্ট আর স্লিভলেস টপ। এর সাথে মানানসই মেক আপ, সুন্দর করে বাঁধা চুল ও উপযুক্ত গয়নায় খুব সুন্দর লাগছিল মৌকে। প্রাকৃতিক পরিবেশে এক গাছের নিচে তার পরিণত নাচ সবাইকে মুগ্ধ করেছে। নাচের কোরিওগ্রাফি ছিল দুর্দান্ত আর তার সাথে মৌয়ের অনবদ্য অভিব্যক্তি নাচটিকে আরো মনের মত করে তুলেছে।

তার নিজের ইউটিউব চ্যানেল ‘ডান্স স্টার মৌ’ থেকে নাচের ভিডিও প্রায়ই আপলোড করা হয়। দর্শকেরা মৌয়ের নৃত্য পরিবেশনা দেখে আনন্দ পান। এই ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছে এক মাস আগে। এখনও পর্যন্ত তিন লক্ষ তিরিশ হাজার মানুষ ভিডিওটি দেখেছেন। তার সাথেই সাড়ে তিন হাজার মানুষ ভিডিওটিকে পছন্দ করেছেন। ভিডিওর কমেন্ট বক্স উপচে পড়েছে নেটিজেনদের প্রশংসা বাক্যে।

আজকের যুগে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে সাধারণ মানুষ তার প্রতিভা দেখানোর একটা মঞ্চ পেয়েছে। এই সুযোগের সদব্যবহার করে অনেকেই সাফল্য পাচ্ছেন। মৌয়ের ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে সেই কথাই আবার প্রমাণ করল।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

স্বচ্ছ নদীর তীরে দুর্দান্ত অঙ্গভঙ্গিতে অসাধারণ নাচ সুন্দরী যুবতীর, ভাইরাল ভিডিও

ইউটিউবার জয়ন্তী চক্রবর্তী (Jayanti Chakroborty) আবারও অসাধারণ নাচ পরিবেশন করে নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছেন! বিগত কয়েক বছর ধরে সোশ্যাল মিডিয়া প্রতিভা প্রকাশের এক অন্যতম মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফেসবুক, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম প্রভৃতি এখন এক শ্রেণীর মানুষের প্রতিভা বিকাশের জায়গা হয়ে উঠেছে। বিশেষত ইউটিউবে নিজস্ব চ্যানেল খুলে অনেকেই নিজেদের ভিডিও পোস্ট করে থাকেন। ইউটিউবে যাঁর চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা এবং ভিডিওতে ভিউজ-লাইক-কমেন্টস যত বেশি থাকে তাঁকে তত জনপ্রিয় বলে গণ্য করা হয়।

বাংলা ইউটিউবের দুনিয়ায় এমনই এক অন্যতম ও জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল ‘জেসি’স ওয়ার্ল্ড’ (JC’s World)। জনপ্রিয় এই চ্যানেলের বর্তমান সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ৭৪.৯ হাজার। জয়ন্তী চক্রবর্তী নামের এক সুন্দরী যুবতী নিজের নামের এই চ্যানেল থেকে নিয়মিত নিজের নাচের ভিডিও পোস্ট করে থাকেন। উল্লেখ্য এই ইউটিউব চ্যানেল থেকে বিভিন্ন ধরণের গানের সঙ্গে পরিবেশিত নাচের ভিডিও পোস্ট করা হয়। এই চ্যানেল থেকে পোস্ট হওয়া প্রায় প্রতিটি ভিডিওই কম-বেশি ভাইরাল হয়ে থাকে।

সম্প্রতি ‘জেসি’স ওয়ার্ল্ড’ চ্যানেল থেকে ‘গুরু’ (Guru) সিনেমার জনপ্রিয় গান ‘বরষো রে’ (Barso Re)-এর সঙ্গে অসাধারণ নাচের ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। এই ভিডিও খোলা আকাশের নীচে নদীর ধারে এক সবুজ মাঠে রেকর্ড করা হয়েছে। ভিডিওতে সাদা লং-স্কার্ট, সবুজ ব্লাউজ পরে ও গোলাপি-হলুদ রঙের ওড়না লাগিয়ে পরে দারুণ সাজে জয়ন্তী সেজেছেন, তাঁর এই রূপে নেটিজেনরা মুগ্ধ হয়েছেন। ‘বরষো রে’ (Barso Re)-গানের সাথে জয়ন্তীর দুর্দান্ত কোরিওগ্রাফি, দক্ষ স্টেপস ও এক্সপ্রেশন বরাবরের মতোই সকলের ভীষণ পছন্দ হয়েছে। তাঁর এই প্রাণবন্ত নাচের ভিডিওটি এক বছর আগে পোস্ট করা হয়, এই ভিডিওর ভিউজ সংখ্যা ৪০ হাজারের গণ্ডি পেরিয়ে গিয়েছে, নেটিজেনরা বরাবরের মতোই প্রশংসাসূচক মন্তব্যে কমেন্ট বক্স ভরিয়ে দিয়েছেন।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

বাড়ির ছাদে বৃষ্টি ভিজে জনপ্রিয় হিন্দি গানে উদ্দাম নাচ মৌ সুন্দরীর, রইল ভিডিও

‘ছম ছম ছম’ (Cham Cham Cham) গানের সাথে এক সুন্দরী যুবতীর দুর্দান্ত নাচ দেখে নেটিজেনরা মুগ্ধ হয়ে গিয়েছেন। চোখ ধাঁধানো এই ভিডিও পুরনো হলেও আবার নতুন করে নেটদুনিয়ায় তুমুল ভাইরাল হয়েছে। বর্তমান সময়ে যেখানে প্রায় সকলেই নেটদুনিয়ায় নিজেদের প্রতিভা বিকাশ করে জনপ্রিয়তা লাভ করতে চান, সেখানে মৌমিতা বিশ্বাস নামক এই যুবতী ব্যাপকভাবে সফল হয়েছেন এই কথা বলাই যায়।

আমরা সকলেই জানি যে ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার মাধ্যমে এখন খুব কম সময়ে অনেক সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছে যাওয়া যায়। এই বিষয়টিকে কাজে লাগিয়ে নেটিজেনদের এক বড়ো অংশ সোশ্যাল মিডিয়াকে নিজেদের প্রতিভা বিকাশের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে বেছে নিয়েছেন। এর কারণে সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে হামেশাই বিভিন্ন বয়সের মেয়েদের বিভিন্ন রকম নাচের ভিডিও দেখতে পাওয়া যায়। বিশেষত ইউটিউবে অনেকেই নিজস্ব চ্যানেল তৈরি করে তা থেকে নিজের নাচের ভিডিও নিয়মিত পোস্ট করে থাকেন। ইউটিউবে তেমনই এক জনপ্রিয় চ্যানেল ‘Dance Star Mou’ (ডান্স স্টার মৌ)। এই চ্যানেলের বর্তমান সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ২ লাখ ২১ হাজার, চ্যানেলের প্রায় প্রতিটি ভিডিওই কম-বেশি ভাইরাল হয়।

সম্প্রতি জনপ্রিয় এই ইউটিউব চ্যানেলের দুই বছর আগে পোস্ট করা এক ভিডিও নতুন করে ভাইরাল হয়েছে। উল্লেখ্য ভিডিওতে চ্যানেলের অধিকারিণী মৌমিতা বিশ্বাস ‘বাঘী’ (Baaghi) সিনেমার জনপ্রিয় হিন্দি গান ‘ছম ছম ছম’-এর (Cham Cham Cham) সাথে দুর্ধর্ষ নাচ পরিবেশন করেছেন। তাঁর অসাধারণ কোরিওগ্রাফি, দক্ষ স্টেপস ও দারুণ এক্সপ্রেশন নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছে। কালো কুর্তি ও লাল পাটিয়ালা প্যান্ট পরে খোলা চুলে বাড়ির ছাদে বৃষ্টির মধ্যে ভিজতে ভিজতে রেকর্ড করা এই মনমাতানো নাচের ভিডিওর ভিউজ সংখ্যা ৪ মিলিয়ন। ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষ এই ভিডিওটি লাইক করার পাশাপাশি কমেন্ট বক্সে নেটিজেনরা মৌমিতার নাচের মন খুলে প্রশংসা করেছেন।

Categories
অফবিট ভাইরাল ভিডিও ভিডিও

সোনা রোদের হাসি দেখে, মনোরম পরিবেশে অসাধারণ নাচ সুন্দরী যুবতীর, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

‘সোনা রোদের হাসি দেখে’ (Sona Roder Hasi Dekhe) গানের সঙ্গে দুর্দান্ত নেচে নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছেন এক সুন্দরী যুবতী! নেটদুনিয়ায় হামেশাই মৌমিতা বিশ্বাস (Moumita Biswas) নামক এই যুবতীর বিভিন্ন নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়ে থাকে। এই কথা অনস্বীকার্য যে নেটদুনিয়া এখন প্রতিভা বিকাশের এক অন্যতম মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। যে কেউ এখন নিজের যে কোনো প্রতিভার ভিডিও রেকর্ড করে নেট দুনিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে যখন খুশি পোস্ট করতে পারেন। ইন্টারনেটের সহজলভ্যতাকে ব্যবহার করে এইভাবে নিজের প্রতিভা খুব সহজেই সকলের কাছে পৌঁছে দেওয়া যায়।

কারোর পোস্ট করা কনটেন্ট অর্থাৎ ভিডিও যদি নেটিজেনদের পছন্দ হয় তবে সেই ভিডিও রাতারাতি ভাইরাল হয়ে যায়। ভাইরাল হ‌ওয়া সেইসব ভিডিওতে যাঁদের প্রতিভা নেটিজেনদের মন জয় করে তাঁরাও রাতারাতি জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। এইভাবে নেটদুনিয়ায় বিভিন্ন বয়সের বিভিন্ন মানুষ সোশ্যাল মিডিয়া স্টার বা সেলিব্রিটি হয়ে উঠেছেন। ইউটিউবে এমন‌ই জনপ্রিয় এক চ্যানেল ‘ডান্স স্টার মৌ’ (Dance Star Mou)। এই চ্যানেলের বর্তমান সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ২ লাখ ২৭ হাজার।

সম্প্রতি জিৎ (Jeet) ও কোয়েল (Koel) অভিনীত জনপ্রিয় বাংলা সিনেমা ‘শুভদৃষ্টি’ (Shubhodrishti)-র গান ‘সোনা রোদের হাসি দেখে’ (Sona Roder Hasi Dekhe)-এর সাথে মৌমিতার নাচের ভিডিও তুমুল ভাইরাল হয়েছে। গত দশকের জনপ্রিয় এই গানের সাথে নাচের এই ভিডিওতে সুন্দরী এই যুবতীর দক্ষ স্টেপস ও ঘায়েল করা এক্সপ্রেশন নেটিজেনদের মুগ্ধ করেছে। হলুদ রঙের শাড়ি-কালো ব্লাউজ, হাতভর্তি লাল চুড়ি ও কানে ঝোলা দুল পরে চুলে লাল ফিতে দিয়ে দুই বিনুনি বেঁধে মানানসই সাজে এই ভিডিওতে মৌমিতাকে ভীষণ মিষ্টি দেখিয়েছে। খোলা পরিবেশে গানের তালে তালে তাঁর প্রাণবন্ত নাচ ও এনার্জি সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। ৬ মাসের পুরনো এই ভিডিওর ভিউজ সংখ্যা ৫ লাখ ১৬ হাজারের গণ্ডি পার করে ফেলেছে।