April 20, 2024

টিকটিকি (Lizard) বেশিরভাগ সময়েই পোকামাকড় খেয়ে আমাদের উপকার করলেও অনেক সময় বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। বাড়িতে টিকটিকির আনাগোনা বাড়লে তা চিন্তার কারণ হয়ে যায়। খাবারে মুখ দেওয়া, গায়ে পড়ে যাওয়া, যেখানে সেখানে হঠাৎ মল-মূত্র ত্যাগ করা প্রচন্ড সমস্যার সৃষ্টি করে। এছাড়াও, অনেকেই টিকটিকি দেখে ভীষণ ভয় পান। আজ তাই আপনাদের সঙ্গে এমন দশটি (১০) পদ্ধতি ভাগ করে নেবো যা অবলম্বন করলে বাড়িতে টিকটিকির উপদ্রব কমে যাবে।

ন্যাপথলিন:

টিকটিকি ন্যাপথলিনের গন্ধ একেবারেই সহ্য করতে পারে না। সুতরাং, যদি বাড়ির কোণায় কোণায় ন্যাপথলিনের গুঁড়ো ছড়িয়ে দেওয়া হয় তাহলে টিকটিকি দূর হয়ে যাবে।

কর্পূর:

ন্যাপথলিনের পাশাপাশি টিকটিকি কর্পূরের গন্ধেও পালিয়ে যায়। এক‌ইভাবে পুরো বাড়িতে কর্পূরের গুঁড়ো ছড়িয়ে দিলে টিকটিকির উপদ্রব কমবে।

রসুন:

এই কথা সকলেরই জানা যে রসুনের গন্ধ অত্যন্ত উগ্র। রসুনের খোসা অল্প ছাড়িয়ে জানলায় বা দেওয়ালের ভেন্টিলেশনে রাখলে টিকটিকির বাড়ির ভেতরে আসা বন্ধ হয়ে যাবে।

কফি:

কফির গন্ধ‌ও টিকটিকি একেবারেই পছন্দ করে না। ন্যপথলিন ও কর্পূরের মতো কফির গুঁড়ো বাড়িতে ছড়ালেও টিকটিকির আনাগোনা কম হবে।

ডিমের খোসা:

কাঁচা অবস্থায় থাকা ডিম অথবা ডিমের খোসা থেকে অত্যন্ত বাজে ও আঁশটে গন্ধের সৃষ্টি হয়। ডিমের খোসা কয়েকদিন রেখে শুকিয়ে নেওয়ার পর সেই খোসা বাড়ির বিভিন্ন জায়গায় রেখে দেওয়া হলে গন্ধের চোটে টিকটিকি আসা কমে যাবে।

তামাক পাতা:

টিকটিকি যেসব দ্রব্যের গন্ধে পালিয়ে যাবে তার আরেকটি হলো তামাক পাতা। এই পাতা বাড়িতে রাখলে অথবা পুড়িয়ে পুরো বাড়িতে ধোঁয়া ছড়িয়ে দিলে টিকটিকির উপদ্রব কমবে।

পেঁয়াজ:

পেঁয়াজের মধ্যে থাকা সালফার টিকটিকির জন্য হানিকারক। তাই বাড়িতে যেসব স্থানে টিকটিকির আগমন ঘটে সেখানে পেঁয়াজ কেটে রাখলে টিকটিকি আর আসবে না।

বরফ জল:

টিকটিকি যে ঠান্ডা রক্তের প্রাণী তা কারোরই অজানা নয়। তাই টিকটিকির গায়ে যদি বরফ জল ছিটিয়ে দেওয়া হয় তবে অতিরিক্ত ঠান্ডা সহ্য করতে না‌ পেরে টিকটিকি মারা যাবে।

লঙ্কা গুঁড়ো:

শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো জলের সাথে মিশিয়ে টিকটিকির গায়ে অথবা ঘরের কোণায় কোণায় স্প্রে করলে টিকটিকি আর আসবে না। এক‌ইভাবে জলের মধ্যে গোলমরিচ গুঁড়ো মিশিয়েও ব্যবহার করা যেতে পারে।

অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল সলিউশন:

অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল সলিউশন ব্যবহার করে নিয়মিত বাড়ি পরিস্কার করা হলে টিকটিকির উপদ্রব অনেক‌হ্রাস পাবে, সাথে অন্য পোকামাকড়‌ও আর আসবে না।

ময়ূরের পালক:

বাড়ির দেওয়ালে বা ফুলদানিতে ময়ূরের পালক রাখা হলে টিকটিকির উপদ্রব কমে।