February 19, 2024

প্রত্যেক মানুষেরই সোনা (Gold) নামটার সঙ্গে জড়িয়ে থাকে একটা আলাদা রকমের অনুভূতি। সোনার দামের উত্থান পতনের দিকে সাধারণ মধ্যবিত্তদের সবসময় নজর আটকে থাকে। আজ সপ্তাহ শেষের আগের দিন শনিবার কিছুটা ঘুরে দাঁড়াল হলুদ ধাতুর দর। বেশ কিছুদিন ধরেই সোনার দাম ঊর্ধ্বমুখী ছিল। বর্তমানে কিছুটা দামে হ্রাস ঘটায় মুখে হাসি ফুটেছে মধ্যবিত্তের। ভারতে মূলত সোনার দাম নির্ভর করে আন্তর্জাতিক বাজারের উপর। তবে কিছুদিন আগে ইউক্রেন এবং রাশিয়ার যুদ্ধকে কেন্দ্র করে ভারতবর্ষে সোনার দাম বেশ কিছুটা চড়া ছিল। বর্তমানে সোনার দাম বাড়া কমা নিয়ে সকলেই নাজেহাল।

বর্তমানে সোনার বাজারে উচ্চ সুদের হার এবং বন্ড ইয়েল্ডের প্রভাব পড়েছে। ব্রোকারেজ সংস্থা জিয়োজিৎ ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের তরফে জানানো হয়েছে, সাপ্তাহিক ভিত্তিতে হলুদ ধাতুর দুর্বলতা চলতে থাকবে। টানা চার সপ্তাহ ধরে দাম বাড়ার পর অবশেষে চলতি সপ্তাহে কিছুটা দাম কমেছে হলুদ ধাতুর। আবার বিশ্ববাজারেও দাম কমেছে হলুদ ধাতুর। আজ শনিবার ১০ গ্রাম দাম দাঁড়িয়েছে ৫১,৮৬৮ টাকায়। এদিন ধনী থেকে মধ্যবিত্ত সকলেই হাফ ছেড়ে বাঁচলেন।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে করোনার প্রথম ঢেউয়ের সময় সোনার দাম ঊর্ধ্বমুখী হতে হতে আগস্ট এর দ্বিতীয় সপ্তাহে রেকর্ড দর ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছিল। আজ শনিবার সপ্তাহের ষষ্ঠ দিনে ভারতীয় বাজারে সোনার দাম রেকর্ড দরের থেকে ৪,৩৩২ টাকা কমে গিয়ে হয়েছে ৫১,৮৬৮ টাকা। যদিও কলকাতায় ২২ ক্যারেট সোনার দাম বর্তমানে রয়েছে ৪৯,৯০০ টাকা। যা সর্বোচ্চ দামের থেকে ৬,৩০০ টাকা কম।