April 12, 2024

মনামী ঘোষ (Monami Ghosh) বাংলা বিনোদন জগত অর্থাৎ টলিউড ইন্ডাস্ট্রির এক অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী। তিনি ছোট পর্দা অর্থাৎ বাংলা ধারাবাহিকের মাধ্যমে নিজের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন। ছোট পর্দার পাশাপাশি মনামী বর্তমানে বড়ো পর্দা অর্থাৎ সিনেমা এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্ম অর্থাৎ ওয়েব সিরিজেও নিজের জায়গা ভালোভাবে তৈরি করে নিয়েছেন। মনামী ১৯৯৯ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে ডিডি বাংলা চ্যানেলের ‘সাত কাহন’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে অভিনয় জগতে প্রবেশ করেছিলেন। তাঁর ঝুলিতে ‘সোনার হরিণ’, ‘এক আকাশের নীচে’, ‘একদিন প্রতিদিন’, ‘কাল’, ‘বিন্নি ধানের খ‌ই’, ‘হিয়ার মাঝে’, ‘পুণ্যি পুকুর’, ‘ইরাবতীর চুপকথা’ প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিক রয়েছে।

এছাড়াও, মনামী ‘ওগো বধূ সুন্দরী’, ‘ভূতের ভবিষ্যত’, ‘ভাল্লু সর্দার’, ‘হয়তো প্রেমের জন্য’, ‘বেলাশেষে’ প্রভৃতি সিনেমাতে কাজ করেছেন। সম্প্রতি চলতি বছরে মুক্তিপ্রাপ্ত তারকাখচিত সিনেমা ‘বেলাশুরু’-তেও মনামী কাজ করেছেন এবং দর্শকমহলে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। ছোট পর্দা ও বড়ো পর্দা ছাড়া এখন ওটিটি প্ল্যাটফর্ম‌ও বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। ২০২১ সালে বাংলা ওটিটি প্ল্যাটফর্ম ‘হ‌ইচ‌ই’-এর ওয়েব সিরিজ ‘মৌচাক’-এর মাধ্যমে মনামী ওয়েব সিরিজের দুনিয়ায় পা রেখেছেন। এই সিরিজে তাঁর সাহসী অভিনয়, হটনেস ও একাধিক বোল্ড লুকস দর্শকদের রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে।


কেরিয়ার জীবনের উন্নতির সাথে সাথে মনামী নিজের সৌন্দর্য্য ও যৌবন ধরে রাখার ব্যাপারেও ভীষণ আগ্রহী। তাঁর ফিটনেস ও আকর্ষণীয় শারীরিক গঠন রীতিমতো তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো। সোশ্যাল মিডিয়ায় ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মনামী হামেশাই চোখধাঁধানো স্টাইলিশ পোশাকে দুর্ধর্ষ সেজে উপস্থিত হয়ে থাকেন। সম্প্রতি ‘ফিল্মফেয়ার পুরস্কার বিতরণী’-র রেড কার্পেটে মনামীর লুক তেমনভাবেই সকলের নজর কেড়ে নিয়েছে। এই অনুষ্ঠানে তিনি রুপোলী রঙের এক ১০ মিটার লম্বা মিরর ড্রেস পরেছিলেন, জমকালো এই পোশাকের সঙ্গে তাঁর মানানসই সাজ রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে। নেটদুনিয়ায় তাঁর এই লুকের ছবি প্রকাশ হতেই ভাইরাল হয়ে যায়। কলকাতার বিখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার দেবজ্যোতি গোস্বামী জানিয়েছেন কলকাতার বুকে এই প্রথম টলিউড ইন্ডাস্ট্রির কোনো তারকা এমন পোশাকে নিজেকে পেশ করেছেন।