Categories
বিনোদন

পরিচালক মহেশ ভাটকে নিয়ে বিস্ফোরক তথ্য ফাঁস করলেন কঙ্গনা রানাওয়াত

সম্প্রতি পরিচালক মহেশ ভাটকে (Mahesh Bhatt) নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত (Kangana Ranaut)। তাঁর এই মন্তব্য বর্তমানে শোরগোল ফেলে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

২০০৬ সালে ‘গ্যাংস্টার’ (Gangster) সিনেমার মধ্যে দিয়ে বলিউডে আত্মপ্রকাশ ঘটে কঙ্গনার। এই সিনেমায় অসাধারণ অভিনয়ের জন্য তিনি ফ্লিমফেয়ার অ্যাওয়ার্ডও (Filmfare Award) পেয়েছিলেন। এর পরে একের পর এক হিট ছবি উপহার দিয়েছেন বলিউডকে। ‘ওহ লামহে’ (Woh Lamhe) , ‘লাইফ ইন এ মেট্রো’ (Life in a Metro) , ‘ফ্যাশন’ (Fashion), ‘ওয়ানস আপন আ টাইম ইন মুম্বাই’ (Once Upon a Time in Mumbaai) প্রভৃতি সিনেমায় তাঁর অভিনয় মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। ২০১১ সালে ‘তনু ওয়েডস মনু’(Tanu Weds Manu) সিনেমায় একেবারে অন্যরূপে ধরা দিয়েছেন তিনি। ২০১৪ সালে ‘কুইন’ (Queen) এবং ২০১৫ সালে ‘তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস’ (Tanu Weds Manu: Returns) সিনেমার জন্য ন্যাশনাল ফ্লিম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ডও (National Film fare Award) রয়েছে তাঁর প্রাপ্তির তালিকায়।

কেরিয়ারে সফল হলেও বারংবার বিতর্কের মুখোমুখি হতে হয়েছে তাঁকে। এই কারণে বলিউডে ‘বিতর্ক কুইন’ নামেই বেশি খ্যাতি তাঁর। এবারেও পরিচালক মহেশ ভাটকে (Mahesh Bhatt) নিয়ে তিনি যে মন্তব্য করেছেন তাতে নতুন করে বিতর্কের সূচনা হয়েছে। মহেশ ভাটের মা ইসলাম ধর্মাবলম্বী ছিলেন বলে পরিচালকের ধর্ম নিয়ে বেশ ধোয়াঁশা রয়েছে বলিউডে। সূত্রের খবর অনুযায়ী আইনত বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন নি পরিচালকের বাবা এবং মা। সেই কারণে মহেশের পরিচয় নিয়ে সন্দিহান অনেকেই। পরবর্তীকালে বাবার ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন তিনি।

নিজের ব্যক্তিগত জীবনে প্রথম স্ত্রী কিরণের (Kiran) সাথে আইনতভাবে বিচ্ছিন্ন না হয়েও সোনি রাজদানকে (Soni Razdan) বিয়ে করেছিলেন পরিচালক। এমনকি দ্বিতীয় বিয়ের সময় মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করতে হয়েছিল তাঁকে। তাই তাঁর প্রথম পক্ষের সন্তান পূজা ভাট (Puja Bhatt) এবং রাহুল ভাট (Rahul Bhatt) হিন্দু হলেও দ্বিতীয় পক্ষের দুই সন্তান অভিনেত্রী আলিয়া ভাট (Alia Bhatt) এবং শাহীন ভাট (Shaheen Bhatt) মুসলিম ধর্মাবলম্বী বলে জানা গিয়েছে। নিজের ইন্সটা স্টোরিতে কঙ্গনা জানিয়েছেন যে তাঁর কাছে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী পরিচালকের আসল নাম আসলাম। কিন্তু কোথাও তিনি এই নাম ব্যবহার করেন না। তাঁর এই বিতর্কিত মন্তব্য ঘিরে নেটদুনিয়ায় সমালোচনার ঝড় বয়ে গিয়েছে। বর্তমানে ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর (Indira Gandhi) বায়োপিক ‘এমার্জেন্সি’ (Emergency) -এর শুটিং নিয়ে ব্যস্ত অভিনেত্রী। এর মাঝে এইরকম উস্কানিমূলক মন্তব্যকে অনেকে প্রচারের অঙ্গ বলে মনে করছেন।