May 18, 2024

গোটা কয়েকদিন ধরে সংবাদমাধ্যম উত্তাল হয়ে রয়েছে একটিমাত্র নামকে নিয়ে সেটি হল রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। অবশ্য খবরের শিরোনামে তার সাথে সাথে আরো একটি নাম উঠে এসেছে তিনি হলেন অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায় (Arpita Mukherjee)। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সাথে এই অভিনেত্রীর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল বলেই জানা যাচ্ছে। এমনকি অর্পিতার ফ্লাট থেকে রাশি রাশি টাকা উদ্ধার করেছে ইডি। এই শনিবার অভিনেত্রীর টালিগঞ্জের বাড়ি থেকে প্রায় ২২ কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়। এমনকি মঙ্গলবার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হয় ২৯ কোটি টাকা। নগদ টাকা,বিদেশী মুদ্রা এবং সোনার গয়না ছিল তার মধ্যে। তবে চমকপ্রদ একটি তথ্য হলো গয়না এবং টাকা ছাড়াও অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হয় দুটি সেক্স টয়। সেগুলি পাওয়া যায় অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে।

সংবাদমাধ্যম থেকে পাওয়া খবরে জানা যায় বুধবার সন্ধ্যায় ইডি আধিকারিকরা অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ২৪পরগনার বাড়িতে হানা দেয়। তার ওই ফ্ল্যাটের ওয়ারড্রপ খুলতেই রাশি রাশি টাকার সাথে পাওয়া যায় ঐ দুই সেক্স টয়। তবে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে এত এত টাকা বর্তমানে মিললেও তাঁর কাজের জায়গায় পারিশ্রমিক ছিল নূন্যতম। এদিন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পরিচালক অনুপ সেনগুপ্ত বলেন ‘সত্যি বলতে কি কখনো আমরা ওকে সেভাবে দেখিনি। টাকার উপর কোন লোভ ছিল না। এমনকি টাকা পয়সা নিয়ে কখনো জোরাজুরি করতেও দেখিনি। এসব খবর দেখে সত্যি বলতে আমরা চমকে যাচ্ছি, এমন কি খারাপ লাগছে আমাদের’।

তবে এই দিন অর্পিতা মুখোপাধ্যায় সম্পর্কে মুখ খোলেন টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা বনি সেনগুপ্তের বাবা পরিচালক অনুপ সেনগুপ্ত। পরিচালক জানান অর্পিতার সাথে তিনি তিনটি ছবির কাজ করেন। তিনি জানান ‘মামা ভাগ্নে’ ছবিতে ১৫০০০ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন অর্পিতা। এছাড়া অর্পিতা ‘বাংলা বাঁচাও’ সিনেমাতে পান ১৫-২০হাজার টাকা এবং ‘রাজনন্দিনী’ ছবির জন্য পান ২০ হাজার টাকা। পরবর্তীকালে রাহুল প্রিয়াঙ্কার সাথে ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’ ছবিতে একটি ক্যামিও রোল করে ১০ হাজার টাকা পান অর্পিতা।

তবে অর্পিতা একজন অভিনেত্রী হিসাবে মোটামুটি ক্যাটাগরির। খুব ভালোও না আবার খুব খারাপও না এমনটাই জানান পরিচালক অনুপবাবু। তিনি বলেন অনেক বকাবকি করেছি কোনদিন পাল্টা জবাব দেয়নি মেয়েটা। ও যে বেলঘড়িয়ায় থাকতো তা জানতাম না, সবসময় বলতো বরানগরের দিকে থাকে। তবে বর্তমানে আর যোগাযোগ নেই অর্পিতার সাথে।