Categories
লাইফ স্টাইল

এইভাবে পটল রান্না করলে স্বাদ হবে দুর্দান্ত, জমে যাবে ভাত ও রুটির সাথে, শিখে নিন রেসিপি

ভিটামিন সমৃদ্ধ সবুজ সবজির মধ্যে অন্যতম হল পটল। মাছ মাংসের পরিবর্তে পটল দিয়ে যদি সুস্বাদু রেসিপি তৈরী করা যায় তাহলে অনেকেই হাত চাটবেন। পুরোনো আমলে ঠাকুমারা পটল এবং চাল দিয়ে একটি রেসিপি বানান যেটি নিরামিষ পদের মধ্যে দারুন জনপ্রিয়।

উপকরণ:
১. পটল (৫থেকে ৬ টা)
২. আলু (৩ থেকে ৪ টি)
৩. এলাচ ২ টো
৪. লবঙ্গ ২ টো
৫. দারচিনি ১ টি
৬. তেজপাতা ‌২ টো
৭. গোবিন্দভোগ চাল
৮. গোটা জিরে
৯. জিরে গুঁড়ো
১০. পরিমাণমতো নুন ও হলুদ।
১১. সামান্য পরিমাণ চিনি।
১২. কাঁচা লঙ্কা ৪টি
১৩. টমেটো ২টি
১৪. আদা বাটা ২ চামচ
১৫. সাদা ও সরষের তেল
১৬. ঘি
১৭. কাজু ও কিসমিস।
১৮. গরম মসলা গুঁড়া
১৯. শুকনো লঙ্কা

প্রণালী:
গোবিন্দভোগ চাল ভালো করে ধুয়ে জল ঝরিয়ে নিতে হবে। কড়াইতে তেল গরম করে কাজু কিসমিস দিয়ে দিতে হবে। কাজু এবং কিসমিসের রং একটু বাদামি হয়ে গেলে এর মধ্যে ধুয়ে রাখা চাল দিয়ে দিতে হবে। চাল একটু ভাজা হয়ে গেলে তুলে নিতে হবে।

এইবার কড়াইতে কেটে রাখা আলু এবং পটল দিয়ে ভেজে তুলে নিতে হবে। এর পরে আরেকটু তেল নিয়ে এর মধ্যে গোটা জিরে ,তেজপাতা ,শুকনো লঙ্কা এবং গোটা গরম মশলা দিয়ে দিতে হবে। এর পরে আদা বাটা, নুন ,হলুদ গুঁড়ো ,জিরে গুঁড়ো এবং লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে ফোড়নের সাথে মিশিয়ে কষাতে হবে।

কষানোর সময় যাতে সেটি কড়াইয়ের সাথে লেগে না যায় তার জন্য অল্প করে একটু একটু জল দিতে হবে। মশলা ভালো করে কষানো হয়ে গেলে এর মধ্যে ভাজা পটল, আলু , চাল ,কাজু এবং কিসমিস দিয়ে ভালো মতো নাড়াচাড়া করে নিতে হবে। এর পরে দিয়ে দিতে হবে দুটি কাঁচালঙ্কা এবং একটা টমেটো কুচি করে। সমস্ত উপকরণ ভালো করে মিশিয়ে নেওয়ার পরে স্বাদমতো লবণ এবং আন্দাজমতো চিনি দিয়ে ভালো করে নাড়াতে হবে। এর পরে অল্প একটু জল দিয়ে কড়াই ভালো করে ঢেকে দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করতে হবে। চালটা এইভাবে ভাপে সেদ্ধ হয়ে গেলে ভালো করে কড়াই থেকে ছেড়ে আসবে। এক চামচ ঘি এবং গরম মশলা দিয়ে ভালো করে খুন্তি দিয়ে সব কিছু মিশিয়ে নিতে হবে। কিছুক্ষণ রান্না করার পরে গ্যাস বন্ধ করে দিতে হবে। তৈরী হয়ে গিয়েছে সুস্বাদু চাল পটল। রুটি কিংবা ভাতের সাথে গরম গরম এই পদটি খেতে দুর্দান্ত লাগবে।