×
Categories
বিনোদন

লতা মঙ্গেশকরের অন্তিম বার্তা প্রকাশ্যে আনলেন অনুপম খের! কী বলেছিলেন জীবন্ত সরস্বতী

Advertisement

গত ৬ই ফেব্রুয়ারী অর্থাৎ রবিবার সকালে সংগীত জগতকে একা করে চিরবিদায়ের দেশে চলে গেলেন সুর সম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকর (Lata Mangeshkar)। সরস্বতী বিসর্জনের সাথে সাথে বিসর্জন হয়ে গেল জ্যান্ত সরস্বতীর। এবার থেকে আর কখনো সামনাসামনি তাঁকে গান গাইতে শোনা যাবে না। তাঁর রেকর্ড করা গান আগামী প্রজন্মকে এক নতুন দিশা দেখাবে। শুধু সংগীত মহল বা শিল্পীমহল নয় কোকিল কন্ঠীর এই প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে রাজনৈতিক মহলে তথা সমগ্র ভারতে। সম্প্রতি বলিউড অভিনেতা অনুপম খের (Anupam Kher) লতাজির শেষ বার্তা শেয়ার করলেন সোশ্যাল মিডিয়ার পর্দায়।

Advertisement

স্বাধীনতার ৭৫ তম বর্ষে ‘আজাদী কে অমৃত মহোৎসব’ এর একের পর এক বৈঠক আয়োজন করা হয়েছিল। গত বছরের ২২ শে ডিসেম্বর লতাজি ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন অমৃত মহোৎসব কমিটির দ্বিতীয় বৈঠকে জুম কলে। সেই বৈঠকেরই একটি অডিও ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ার পর্দায় শেয়ার করেছেন অভিনেতা অনুপম খের (Anupam Kher)। লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) তরফ থেকে এই শেষ বার্তাটি ছিল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) উদ্দেশ্যে। এই বার্তায় লতাজি মোদীজিকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন। লতাজি অডিওতে বলেছিলেন, ” ভগবান শ্রীকৃষ্ণ এসব কথা বলেছেন। তিনি সর্বদা আমাদের সঙ্গে আছেন। তিনি আজ ও আছেন এবং ভবিষ্যতেও আমাদের সঙ্গে থাকবেন এটা আমার বিশ্বাস। সকলকে প্রণাম জানিয়ে এগোচ্ছি”। এরপর তিনি শ্রীমদ্ভগবদগীতায় উল্লিখিত একটি শ্লোক পাঠ করে শুনিয়েছিলেন।

Advertisement

টুইটারে এই অডিও ক্লিপ শেয়ার করে অনুপম খের লিখেছেন, ” এটি লতাজির ভগবদ্গীতার শ্লোক নিয়ে শেষ বার্তা। ২০২২ সালের ২২ এ ডিসেম্বর আজাদী কা অমৃত মহোৎসব কমিটির একটি মিটিংয়ে সুর সম্রাজ্ঞী শ্লোকটি উচ্চারণ করেছিলেন এবং তখন তিনি রেকর্ড করে নেন। লিংকে গিয়ে ক্লিক করে শুনে নিন লতা মঙ্গেশকরের গলায় শ্রীমদ্ভগবদগীতার সেই শ্লোক”। নতুন বছরের শুরুতে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে টানা ২৭ দিন চিকিৎসা চলার পর মহাপ্রয়াণ ঘটে এই সুর সম্রাজ্ঞীর। করোনার পাশাপাশি নিউমনিয়াতেও আক্রান্ত হয়েছিলেন লতাজি। লতাজির চিকিৎসক প্রতীক সামধানির এর মতে মাল্টি অর্গান ফেলিওর তাঁর মৃত্যুর কারণ।

আরো পড়ুন -  স্বামী দিবানাথের অনিচ্ছা সত্ত্বেও অভিনয়ে এসেছিলেন সুচিত্রা সেন, রইল স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের অজানা কাহিনী!
Advertisement