×
Categories
বিনোদন

বড় দিদি লতাকে হারিয়ে আবেগঘন আশা, পোস্ট করলেন দুই বোনের ছোটবেলার ছবি

Advertisement

গতকালই প্রয়াত হয়েছেন বিশ্ব-বিখ্যাত সুর সম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকর (Lata Mangeshkar)। মাল্টি অর্গ্যান ফেইলিওর হয়ে হাসপাতালে ভর্তির চার সপ্তাহের মাথায় মৃত্যু হয় কোকিলকন্ঠীর। যদিও লতাজীর এত বড় সম্মান আজকের নয়! তাঁর জীবন কাহিনী শুনলে হার মানবে খ্যাতনামা সিনেমার গল্পগুলিও। বাবার মৃত্যুর পর মাত্র ১৩ বছর বয়সে সংসারের হাল ধরেছিলেন লতা মঙ্গেশকর, কারণ তখন তাঁর ওপরেই ছিল চার ভাই-বোনকে মানুষ করার দায়িত্ব। পিতৃস্নেহে বড়ো করে তুলেছেন তাঁদের।

Advertisement

তাই দেশ তো বটেই, তিনি পরিবারের কাছেও সাক্ষাত দুর্গা ছিলেন। রবিবার ভারতরত্ন প্রাপ্য লতা মঙ্গেশকরের মৃত্যুতে শোকাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে গোটা দেশসহ তাঁর গোটা পরিবার, প্রিয়জনরা। তাঁর বোন আশা ভোঁসলেও ভারতীয় সঙ্গীত জগতের অন্যতম নক্ষত্র। তাই রবিবার শিবাজি পার্কে দিদির শেষকৃত্যে হাজির থাকতে দেখা যায় শোকাচ্ছন্ন আশাজীকেও।

Advertisement
আরো পড়ুন -  লতা মঙ্গেশকরের অন্তিম যাত্রায় থুতু ছেটানো বিতর্কে সোশ্যালে ভাইরাল শাহরুখ খানের ভিডিও

গতকাল গভীররাতে দিদি লতার সঙ্গে ছেলেবেলার একটি ছবি শেয়ার করে আশাজী লেখেন, ‘দিদি আর আমি, আমাদের ছেলেবেলাটা কত সুন্দর ছিল’। ছবিতে দেখা যাচ্ছে একটি ছোট্ট কাঠের পাটাতনের উপর বসে আছেন আশাজী এবং তাঁর পাশেই দাঁড়িয়ে আছেন লতাজী। স্বাভাবিকভাবেই এই দুর্লভ মুহূর্তের ছবি শেয়ার করা মাত্রই তাঁদের অনুরাগীদের লাইক, কমেন্টের বন্যা বয়ে যায়। অনেকে আশাজীকে মন শক্ত করবার পরামর্শও দেন।

আরো পড়ুন -  শ্রীরামকৃষ্ণের জন্মদিনে দক্ষিণেশ্বরে এসে পুজো দিলেন পর্দার ‘গদাধর’ সৌরভ

যদিও এই পোস্টের কমেন্টবক্সে নেটিজেনদের থেকেও সেলেবদের মন্তব্যে চোখে পড়েছে বেশি। অভিনেতা হৃতিক রোশন থেকে অভিনেতা সিদ্ধান্ত কাপুর সবাই অনেক অনেক ভালোবাসা জানিয়েছেন গায়িকাকে। শেষ সময়ে দিদির পাশেই ছিলেন আশাজী। শনিবার রাতেই দিদির শারীরিক অবস্থার অবনতির কথা শুনেইকাছ ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে ছুটে এসেছিলেন আশা।

রবিবার সকাল ৮.১২ মিনিট নাগাদ লতাজীর মৃত্যুর পর তাঁর মরদেহ হাসপাতাল থেকে প্রথমে তাঁদের প্রভাত কুঞ্জের বাড়িতেই নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। এরপর সেখান থেকে আশাজী শিবাজি পার্কে পৌঁছন, সেখানে হাজির ছিলেন লতাজীর আরেক বোন ঊষা মঙ্গেশকরও। লতার মুখাগ্নি করেন ভাই হৃদয়নাথ মঙ্গেশকর।

Advertisement