×
Categories
অফবিট

চাকরি থেকে ফিরে ক্লান্ত হয়ে পড়তেন যুবতী, এই কারণেই প্রেমিকের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা করলেন!

Advertisement

কথায় বলে মেয়েরা স্বামীকে জমের হাতে দিলেও সতীনের হাতে দেন না। কিন্তু এক্ষেত্রে একেবারে উল্টো পুরান। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশে। সারাদিনের কাজের শেষে ক্লান্ত হয়ে পড়তে মহিলা। অথচ প্রেমিককে সময় দিতে পারতেন না। তাই প্রেমিকের জন্য বিকল্প প্রেমিকার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন তিনি। যাতে সম্পর্ক টেকে একই সঙ্গে তার সপ্রেমিকও কিছুটা মানসিক শান্তি লাভ করেন।শ্যানেল নামে এক মহিলা সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় তার এই বিচিত্র কাহিনী বর্ণনা করেছেন। তিনি একজন তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার কর্মী। আর আইটি মানে সারাদিন হাড়ভাঙা খাটুনি ।

Advertisement
আরো পড়ুন -  স্বল্প পোশাকে উম্মুক্ত বক্ষ যুগল, নেট দুনিয়ায় ঝড় তুললেন বাঙালি অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার

সারাদিনের কাজের চাপে রীতিমতো চিঁড়েচ্যাপটা হয়ে পড়তেন স্যানেল। রাতের বেলা বাড়ীতে ফিরে সময় দিতে পারতেন না প্রেমিককে। অথচ প্রেমিক তাকে স্পর্শ করতে গেলেই ভীষণ বিরক্ত লাগতো তার। দিনের পর দিন তাদের সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। কি করবেন বুঝে উঠতে না পেরে হঠাৎ মাথা থেকে একটি আইডিয়া বার করলেন। প্রেমিকের জন্য খুঁজতে হবে নতুন প্রেমিকা। এতে সাপও মরবে আবার লাঠিও ভাঙবে না।

আরো পড়ুন -  'গৃহবধূ' থেকে 'জিম ট্রেনার', মহিলা হয়েও ৪৭ বছর বয়সে ৬ প্যাক, জানুন কিরনের জীবন সংগ্রামের কাহিনী!

কিন্তু প্রেমিকা নয় শয্যা সঙ্গিনী হিসেবে থাকবেন এই মহিলা। কাগজে বিজ্ঞাপন দিয়ে চট করে পেয়েও গেলেন এমন পিছুটানহীন এক মহিলা। তিনি সারাদিন প্রেমিককে কম্পানি দিতেন। তবে সব সময় নয় ঠিক যে সময় প্রেমিকের শারীরিক চাহিদার দরকার সেই সময় হাজির হতেন ওই মহিলা। এদিকে দিনের শেষে বাড়ি ফিরে খোলা মনে প্রেমিকের সঙ্গে গল্প গুজব করতে পারতেন শ্যানেল। ঘটনার কথা তিনি নিজে মুখে শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই ঘটনা শুনে নেটিজেনদের মনে মিশ্র প্রতিক্রিয়া হয়। কিভাবে এই সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি ভেবে দিশেহারা বেশ কিছু জন। আবার কেউ কেউ ওই তরুণী প্রতি সহমর্মিতা দেখিয়েছেন। প্রেম বাঁচাতে যে কোন পথ অবলম্বন করা যায়।

Advertisement
আরো পড়ুন -  গরিবের স্বপ্নপূরণ, অল্প বয়সে IAS, IPS ও বিচারক হয়ে রেকর্ড গড়লেন ভারতের এই তিন যুবক
Advertisement