×
Categories
লাইস্টাইল

লকডাউনে বন্ধ উপার্জন! দিতে পারেননি কর্মীদের বেতন, দুঃসময়ের কথা বলতে গিয়ে চোখে জল মিঠুনের

Advertisement

বাংলা থেকে মুম্বই রাজত্ব করে বেরিয়েছে মিঠুন চক্রবর্তী। তিনি বলিউডের ডিসকো ডানসার সুপারস্টার। কিন্তু করোনাকালীন সময়ে চরম অর্থ সংকটের মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি। সম্প্রতি একটি রিয়েলিটি শো এসে নিজের সেই দুঃখের কাহিনী তুলে ধরলেন মহাগুরু। জানালেন আর পাঁচজনের মতোই তার আর্থিক অবস্থার অনেকখানি বিপর্যস্ত হয়েছিল। কিন্তু কেন এই চরম দূর্দশার মুখোমুখি হয়েছিলেন এমজি? তবে কি আর কোন সিনেমায় তেমন ডাক পান না তিনি?

Advertisement

গত শনিবার থেকে কালার্স টিভি তে শুরু হয়েছে নতুন হিন্দি রিয়েলিটি-শো হুনোরবাজ। সেখানে বিচারকের আসনে রয়েছেন অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া পরিচালক করণ জোহার এবং অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। শো এর সঞ্চালক এবং সঞ্চালিকা ভারতী সিং ও তার স্বামী। ইতিমধ্যে জোরকদমে চলছে রিয়েলিটি শো এর শুটিং। নিজেদের হিডেন ট্যালেন্ট দেখাতে উপস্থিত হয়েছেন একঝাঁক প্রতিভারা। তাদের মধ্যে থেকে সেরাদের খুঁজে নেবেন বিচারকরা। কথায় কথায় প্রত্যেকেই নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা ভাগ করেছেন মহামারী সময়। এই সভায় কিংবদন্তি অভিনেতা জানান, করোনা পরিস্থিতিতে আয়ের কোনো রাস্তা ছিল না তার। দীর্ঘদিন অভিনয় জগৎ থেকে বেরিয়ে গেছেন তিনি। আপাতত হোটেল ব্যবসা করছেন। কিন্তু আমরা জানি পর্যটন ব্যবসা ক্ষতির মুখে পড়েছিল।

আরো পড়ুন -  ‘তীর বেঁধা পাখি আর গাইবে না গান’, প্রয়াত হলেন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়

এর জন্য এক প্রকার বন্ধের মুখে পৌঁছে গিয়েছিল মিঠুন চক্রবর্তীর হোটেল ও রেস্তোরাঁগুলি। শুধুমাত্র দেশেই নয় বিদেশেও তার বেশ কয়েকটি রেস্তোরাঁ রয়েছে। সেগুলো বন্ধের মুখে। এদিকে কর্মচারীদের কোন পারিশ্রমিক দিতে পারছিলেন না অভিনেতা। নিজেও মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। জীবনে প্রচুর টাকা রোজগার করলেও সেগুলি বিনিয়োগ করেছেন। তাই হাতে মূলধন বলতে কিছুই ছিল না। তবে ধীরে ধীরে এই অবস্থা কাটিয়ে কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে পরিস্থিতি l। বর্তমানে দেশে বিদেশে ঘুরতে যাচ্ছে মানুষ। তাই কিছুটা হলেও লাভের মুখ দেখতে পারছেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। সেইসঙ্গে জালারে শরীরের জন্য আপাতত শুটিং বন্ধ রয়েছে।

Advertisement
আরো পড়ুন -  ডিম, দুধ ও ময়দা দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের এই জলখাবার, রইল রেসিপি

এই কথার মাধ্যমে অভিনেতা বোঝান, লকডাউনে সাধারণ মানুষের মতো পরিস্থিতি হয়েছে শিল্পীদের। উপর থেকে তাদের জীবন রঙিন মনে হলেও যথেষ্ট খেটে খেতে হয় তাদের। এই বয়সে এসেও নিজের রোজগারের ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন মিঠুন। সেইসঙ্গে অভিনেতা কাউকে ভেঙে না পড়ে শক্ত হাতে পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে আহ্বান জানান।

আরো পড়ুন -  আলু ও সুজি দিয়ে চটজলদি তৈরি করুন অসাধারণ স্বাদের বিকেলের নাস্তা, শিখে নিন রেসিপি
Advertisement