×
Categories
বিনোদন

একবারে রতন টাটার মতো দেখতে! দেশের এই মহান শিল্পপতির পাশে কে এই তরুণ ? দেখুন তার পরিচয়

Advertisement

দুজন অসম বয়সী মানুষের বন্ধুত্ব। তারা হলেন শিল্পপতি রতন টাটা এবং সান্তনু নয়ডা। দিন কয়েক আগে 85 বছর বয়সী মহান মানুষটির জন্মদিন পালন করেছিলেন এই যুবক বন্ধু। যার বয়স 28 বছর। কিন্তু কীভাবে তাদের মধ্যে পরিচয় হলো কে সে যার ছত্রছায়ায় রয়েছেন রতন টাটার মত বৃহৎ মনের মানুষ। জানবার জন্য অধীর আগ্রহ নেটিজেনদের মনে। আসলে সান্তনু টাটা গোষ্ঠীর এক কর্মচারী। কিভাবে বন্ধুত্ব হল তার এবং রতনের জেনে নিন আসল কাহিনী।

Advertisement

কাপ কেক কেটে বন্ধুর জন্মদিন পালন করেছিলেন সান্তনু। হাসিমুখে দুজনে পোজ দিয়েছিলেন ক্যামেরার সামনে। কিন্তু কিভাবে নবীন এবং প্রবীণের বন্ধুত্ব হল? এক সময় মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে টাটা গোষ্ঠীতে যোগ দিয়েছিলেন সান্তনু। তখনো পর্যন্ত একে অপরকে চিনতে না শান্তনু এবং রতন টাটা। মাঝে মধ্যে তাদের দেখা হতো। সাধারণত নাইট শিফটে কাজ করতেন তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী সান্তনু। রাতের বেলা পথ কুকুরদের দুরবস্থার কথা ভেবে তাদের জন্য কিছু করার উদ্যোগ নিয়েছিল সে। একদিন গাড়ি চালকদের অনুরোধ করে ওদের উপর একটু সদয় হওয়ার জন্য। পরে তাদের গলায় এক ধরনের বেল্ট পড়ানোর বন্দোবস্ত করে যাবে খুব সহজেই শনাক্ত করা যায় স্ট্রিট ড্গদের। একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করে ওদের দেখভালের জন্য।

আরো পড়ুন -  বিধবা হয়েও আবারও বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন অভিনেত্রী ঊষসী!

কিন্তু সেই সংস্থা ছিল না কোনো আর্থিক সংস্থান। এদিকে রতন টাটা একজন পশুপ্রেমী মানুষ হিসেবে পরিচিত। তখন এমবিএ করার জন্য চাকরি ছেড়ে দেন শান্তনু। আমেরিকার কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হয় সে। ঘটনাচক্রে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের আলুমনি ছিলেন রতন। যেখান থেকে আবার তাদের বন্ধুত্ব সূত্রপাত। একে অপরের সঙ্গে ইমেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে। শুধু তাই নয় সোশ্যাল মিডিয়ায় হ্যাশট্যাগ বিভিন্ন ইমোজি তার সমস্ত কার্য কানুন সান্তনু নিজে হাতে ধরে শিখিয়েছেন তার এই বয়স্ক বন্ধুটিকে। শান্তনুকে নিজের নাতির থেকেও বেশি ভালোবাসেন রতন।

Advertisement
আরো পড়ুন -  কালো পোশাকে উন্মুক্ত বক্ষবিভাজিকা, নেটদুনিয়ায় ঝড় তুললেন বলি অভিনেত্রী আমিষা প্যাটেল

মাঝেমধ্যেই তাদের একসঙ্গে বারবার ক্যামেরাবন্দি হতে দেখা যায়। কখনো তারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন। আবার কখনো কোনো বিষয়ে জ্ঞান আহরণ করে সেগুলি ভাগ করে নিয়েছেন নেটিজেনদের সঙ্গে। এরকমভাবে মিষ্টি মধুর সম্পর্ক চলে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। শান্তনু এখনো ব্যাচেলর। ওদিকে তার প্রিয় মানুষটি দারপরিগ্রহ করেনি। শান্তনু কি সেই পথে হাঁটবেন? এসব কথা জানতে তার মহিলা অনুগামী সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

আরো পড়ুন -  যেসব নায়কের সাথে অভিনয় করার আগেই সোজাসুজি ‘না’ বলে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী রশ্মিকা মন্দনা
Advertisement